২৮শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ ইং , ১৩ই আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ , ১০ই সফর, ১৪৪২ হিজরী

অস্ট্রেলিয়ায় হেলমেট না পড়লেও জরিমানা হবে না মুসলিম-শিখদের

পাথেয় টোয়েন্টিফোর ডটকম : অস্ট্রেলিয়ার রাজধানী ক্যানবেরায় শিখ এবং মুসলিমদের বাইকে আর হেলমেট পরতে হবে না। তারা তাদের ধর্মীয় পোশাকই মাথায় পরতে পারবেন। যেখানে অন্য রাইডারদের হেলমেট না পরলে ৩৪৪ ডলার জরিমানা গুনতে হয় সেখানে তাদেরকে কোনো জরিমানাও দিতে হবে না।

হেলমেট না পরে ধর্মীয় পোশাক পরা শিখ মুসলিমদের আর জরিমানা করা হবে না বলে নিশ্চিত করেছে ক্যানবেরা পুলিশ। গত ডিসেম্বর থেকেই সড়কে নতুন আইন কার্যকর হয়েছে। এই আইন অনুযায়ী, রাজধানীতে কোনো রাইডার হেলমেট ছাড়া ধরা পড়লে তাকে জরিমানা গুনতে হবে।

সড়কমন্ত্রী শেন রাটেনবুরি বলেছেন, নতুন এই আইন শিখদের জন্য খুব গুরুত্বপূর্ণ। কারণ তারা মাথায় পাগড়ি পরে। ফলে সাইকেল চালানোর সময় পাগড়ির ওপর হেলমেট পরা খুবই কঠিন কাজ।

বুধবার (২২ জানুয়ারি) এক বিবৃতিতে সড়কমন্ত্রী বলেন, ক্যানবেরা এমন একটি কমিউনিটি যেখানে সবাই নিজেকে এর আওতাধীন মনে করেন। এখানে সব সম্প্রদায়ের মানুষকে তাদের ধর্ম পালনে সহযোগিতা করা হয়।

শিখ সম্প্রদায় নতুন সড়ক আইনে তাদের সমস্যার বিষয়টি তুলে ধরার পরই এই আইনে পরিবর্তন আনা হয়েছে। কারণ এটা তাদের জন্য এক ধরনের প্রতিবন্ধকতা। শিখ সম্প্রদায়ের লোকজনের মাথায় পাগড়ি পরা তাদের কাছে গুরুত্বপূর্ণ একটা বিষয়। এর ফলে সাইকেল চালানোর সময় তারা হেলমেট পরতে পারেন না।

ফলে এক সাথে পাগড়ি এবং হেলমেট পরে সাইকেল চালানোও সম্ভব না। আবার মুসলিমদের মাথায় টুপি ও হিজাবের কারণে হেলমেট পরতে সমস্যা হয়। এসব বিষয় বিবেচনা করেই এই দুই সম্প্রদায়ের হেলমেট পরার ওপর নিষেধাজ্ঞা তুলে নিয়েছে কর্তৃপক্ষ।

তবে অস্ট্রেলিয়ার নিউ সাউথ ওয়েলসে আগের নিয়মই কার্যকর থাকছে। সেখানে হেলমেট না পরলে ৩৪৪ ডলার জরিমানা গুনতে হয়, অপরদিকে ভিক্টোরিয়ায় এক্ষেত্রে জরিমানা ২০৭ ডলার। এছাড়া দক্ষিণ অস্ট্রেলিয়ায় এই জরিমানা ১৫৩ ডলার, কুইন্সল্যান্ডে ১২৬ ডলার এবং তাসমানিয়ায় ১১৯ দশমকি ২৫ ডলার।

নিউজটি শেয়ার করুন

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার সম্পূর্ণ বেআইনি এবং শাস্তিযোগ্য অপরাধ
Design & Developed BY ThemesBazar.Com