বৃহস্পতিবার, ০৫ ডিসেম্বর ২০১৯, ০৯:২১ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
যে কারণে অন্যদের চেয়ে ভিন্ন মারিয়ার ইসলাম গ্রহণ হঠাৎ করে আয়শার বাড়িতে হাজির আবুধাবির রাজা! মুর্শিদাবাদে প্রিয়াঙ্কা রেড্ডি ধর্ষকদের শাস্তির দাবীতে হিন্দ জমিয়তের মিছিল ভারতে আবারও ধর্ষণের শিকার নারীর শরীরে অগ্নিসংযোগ শিশুকে শিক্ষার সাথে দীক্ষাও দেই | রেক্স সালমান দুর্নীতি বিরুদ্ধে অভিযান চলমান থাকবে : সেতুমন্ত্রী নৈতিকতা বিবর্জিত শিক্ষার কারণেই মানুষ চরিত্রহীন হচ্ছে : চরমোনাই পীর মাওলানা আজিজুল হক হুজি প্রতিষ্ঠাতা উল্লেখ করে সংবাদ; ক্ষমা চাইলো যমুনা কানাকে কানা আর খোঁড়াকে খোঁড়া বলো না : প্রধানমন্ত্রী ইমাম হয়ে কাতার যেতে প্রধানমন্ত্রীর সহাযোগিতা চায় ‘হাফেজ কল্যাণ ফাউন্ডেশন’

ইবোলা ভাইরাস : কঙ্গোর হাজিরা নিষিদ্ধ সৌদিতে

প্রতীকী ছবি

ইবোলা ভাইরাস : কঙ্গোর হাজিরা নিষিদ্ধ সৌদিতে

পাথেয় টোয়েন্টিফোর ডটকম : পবিত্র ভূমি মক্কায় প্রবেশে বাধায় পড়লো এবার কঙ্গোর হাজিরা। শঙ্কা ইবোলা ভাইরাসের। ইবোলা ভাইরাস থেকে বিশ্ব থেকে আসা হাজিদের সুরক্ষা দিতেই এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছেন সৌদি সরকার। ফলে কঙ্গো রিপাবলিক থেকে এবার কোনো মুসলমান পবিত্র হজ পালন করতে পারছেন না। গত বুধবার সৌদি আরব ঘোষণা দিয়েছে এবার দেশটি থেকে কোনো হাজিকে সৌদিতে প্রবেশ করতে দেয়া হবে না। ইতোমধ্যে ভিসা ইস্যু বাতিল করতে কঙ্গোর সৌদি দূতাবাসকে নির্দেশনা দিয়ে চিঠি পাঠিয়েছে রিয়াদ।

বার্তা সংস্থা এপির কাছে সেই চিঠির কপি রয়েছে বলে তারা এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে।

এদিকে রয়টার্স জানিয়েছে, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার একটি বিবৃতিকে উদ্ধৃত করে ভিসা বাতিলের সিদ্ধান্ত নিয়েছে সৌদি আরব। সম্প্রতি বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা জানিয়েছিল, কঙ্গোতে ইবোলা ছড়িয়ে পড়েছে এবং এজন্য বিশ্ববাসীর জরুরি পদক্ষেপ কামনা করেছিল।

সংস্থাটি আরও জানায়, চলতি বছর ইবোলা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে ১৭০০ এর মতো মানুষ প্রাণ হারিয়েছেন।

তবে স্বাস্থ্যপরীক্ষা সাপেক্ষে কঙ্গোর অধিবাসীদের অন্যান্য দেশে যাতায়াতে কোনো বাধা নেই বলেও জানায় বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা। কোনো দেশ যাতে পুরো কঙ্গোবাসীর উপর ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা আরোপ না করে সেই আহ্বানও জানায় সংস্থাটি।

যদিও সৌদি কর্তৃপক্ষ এই আহ্বানকে আমলে নেয়নি। ইবোলা আক্রান্ত না এমন ব্যক্তিদেরও হজের ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে। কঙ্গোর জনসংখ্যার ৩ শতাংশ মুসলিম। এবার ৫ শতাধিক ব্যক্তি হজের জন্য প্রস্তুতি নিয়েছিলেন।

কঙ্গোর একজন মুসলিম নেতা ইমাম জুমা তোয়াহা বিবিসেক বলেন, এমন অনেকেই আছেন যারা গত ১০ বছর ধরে একটু একটু করে টাকা জমিয়েছেন হজে যাওয়ার জন্য।

ইতোমধ্যে হাজিদের সব প্রস্তুতি সম্পন্ন। বিমান টিকেটসহ যাবতীয় খরচ দিয়ে দেয়া হয়েছে। শেষ মুহুর্তে আসা নিষেধাজ্ঞায় তারা ক্ষতিগ্রস্ত হবেন।

নিউজটি শেয়ার করুন

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার সম্পূর্ণ বেআইনি এবং শাস্তিযোগ্য অপরাধ
Design & Developed BY ThemesBazar.Com