৩০শে মার্চ, ২০২০ ইং , ১৬ই চৈত্র, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ , ৫ই শাবান, ১৪৪১ হিজরী

ইসলামি ভাবধারায় আকৃষ্ট হলেই তা চরমপন্থা নয় : হোসেন জিল্লুর রহমান

ইসলামি ভাবধারায় আকৃষ্ট হলেই তা চরমপন্থা নয় : হোসেন জিল্লুর রহমান

জাগো নিউজের সাক্ষাৎকার

পাথেয় টেয়েন্টিফোর ডটকম :: ইসলামি ভাবধারায় তরুণরা আকৃষ্ট হলেই তাকে চরমপন্থা বলা যায় না বলে মন্তব্য করেছেন তত্ত্বাবধায়ক সরকারে সাবেক উপদেষ্টা, বেসরকারি সেবা সংস্থা ব্র্যাকের চেয়ারম্যান ও পাওয়ার অ্যান্ড পার্টিসিপেশন রিসার্চ সেন্টার (পিপিআরসি), নির্বাহী সভাপতি ড. হোসেন জিল্লুর রহমান। তিনি বলেন, ইসলামি ভাবধারায় তরুণরা আকৃষ্ট হলেই তাকে চরমপন্থা বলতে পারি না। শূন্যতা সব জায়গাতেই। যারা ওয়াজ-মাহফিলে বক্তব্য দিচ্ছেন, তারাও যে আদর্শমান নিয়ে কথা বলছেন, তা বলা মুশকিল। সেখানেও তো ধর্মীয় গোঁড়ামির চর্চা হচ্ছে। অথচ, ইসলামি আদর্শের ইতিহাস-ঐতিহ্যেরও কথা সমাজে আছে। এ আদর্শকে ইতিবাচকভাবে দেখতেই অভ্যস্ত মানুষ।

জাগো নিউজের পক্ষে সাক্ষাৎকার নিতে গিয়ে সাংবাদিক সায়েম সাবুর প্রশ্নের উত্তরে এসব কথা বলেন প্রভাবশালী রাষ্ট্রগবেষক ড. হোসেন জিল্লুর রহমান।

সায়েম সাবু জানতে চান, ধর্মীয় অনুভূতির প্রসঙ্গ নিয়ে আলোচনা হচ্ছে সর্বত্রই। বিশেষ করে ওয়াজ-মাহফিল ও বাউলদের কয়েকটি ঘটনা ব্যাপক আলোচিত। সংসদেও আলোচনা হলো। এ নিয়ে কোনো বিশ্লেষণ আছে আপনার?

হোসেন জিল্লুর রহমান : বিষয়টি আরেকটু দেখা দরকার। এসব বিশ্লেষণ করতে হলে গভীরে যেতে হয়।

সময় ও বাস্তবতার ওপর অনেক কিছুই নির্ভর করে। পাশের দেশ ভারত মুসলিমবিরোধী অবস্থান নিয়ে আইন করছে। রোজ সীমান্তে মানুষ মারছে। রোহিঙ্গা ইস্যু সামনে। সঙ্গত কারণে তরুণদের মধ্যে প্রতিশোধপরায়ণ মনোভাব বিকাশ ঘটতেই পারে। নিজে হুমকির মুখে থাকলে ধর্মাশ্রিত হয়ে মুক্তির পথ খোঁজে।

আন্তর্জাতিক নানা পক্ষও আছে। তারাও সুযোগ নেয়। তরুণরা শূন্যতা পছন্দ করে না। আপনি যখন সব পথ বন্ধ করে দেবেন, তখন অন্য পথের সন্ধান করতেই পারে তারা। সমাজে উন্নয়নের যে রাজনৈতিক আলোচনা চলছে, সেখানে আদর্শের বিশাল এক ঘাটতি তৈরি হয়েছে।

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে চোখ দেন। আবরার হত্যাকাণ্ডের পর ঢাবিতেও নির্যাতন দেখতে হলো। এসবের মধ্য দিয়ে তরুণরা বিভ্রান্ত। আদর্শের শূন্যতা রেখে আপনি নিয়ন্ত্রণমূলক কায়দায় তরুণদের পথ দেখাতে পারবেন না।

সায়েম সাবুর আরও একটি প্রশ্ন ছিল, দেশে এত সংকট থাকার পরও এগিয়ে যাওয়া বাংলাদেশ নিয়ে অনেকে মিরাকেল (অলৌকিক ঘটনা) বলছেন। এ নিয়ে আপনার মন্তব্য কী?

হোসেন জিল্লুর রহমান : মিরাকেল একটি মুখরোচক শব্দ। এমন শব্দের সঙ্গে বাস্তবতার কোনো সম্পর্ক নেই। আপনি বাংলাদেশের সঙ্গে আরও দেশের তুলনা করেন। দেখেন, তারা কোথায় গেছে! আমরা আমাদের অতীতের সঙ্গে তুলনা করে দেখতে অভ্যস্ত। অন্যের সঙ্গে তুলনা করে দেখতে চাই না।

সার্বিকভাবে আমাদের সামনে চ্যালেঞ্জ হচ্ছে গতি ও মানের। মধ্যম আয়ের বাংলাদেশ নিয়ে ভাবতে হলে এ গতি ও মানের উন্নয়ন করতে হবে। এ এগিয়ে যাওয়া আমরা কোন কাঠামোতে নির্ধারণ করব, তা নিয়ে এখন আলোচনা করতে হবে।

জাগো নিউজ এর সৌজন্যে

নিউজটি শেয়ার করুন

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার সম্পূর্ণ বেআইনি এবং শাস্তিযোগ্য অপরাধ
Design & Developed BY ThemesBazar.Com