৯ই এপ্রিল, ২০২০ ইং , ২৬শে চৈত্র, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ , ১৬ই শাবান, ১৪৪১ হিজরী

এরদোয়ান নয়, সালমানই ইসলামি বিশ্বের প্রকৃত নেতা!

এরদোয়ান নয়, সালমানই ইসলামি বিশ্বের প্রকৃত নেতা!

পাথেয় টোয়েন্টিফোর ডটকম : বিশ্ববিখ্যাত ইসলামিক স্কলার ড. আয়েজ আল-কারনীর মতে বর্তমানে মুসলিম বিশ্বের প্রকৃত নেতা হলেন সৌদি আরবের বাদশাহ সালামান বিন আব্দুল আজিজ আল-সৌদ। তুরস্কের পেসিডেন্ট রজব তাইপে এরদোয়ান ইসলামি বিশ্বের প্রকৃত নেতা নয় বলেও দাবি করেছেন।

তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রজব তাইপে এরদোয়ানের বিরুদ্ধে আরব বিশ্বের ইয়ামেনসহ প্রতিটি আঞ্চলিক সংঘাতে অবৈধ হস্তক্ষেপের অভিযোগ এনেছেন সৌদি আরবের বিশিষ্ট ইসলামিক স্কলার।

তিনি আরও বলেন, ‘কথার ফুলঝুরি ফুটাতে পটু এরদোয়ান ইসলামিক বিভিন্ন ইস্যুতে কথা বললেও সিরিয়ানদের হত্যা করতে এরদোয়ান বাহিনী সিরিয়ায় অবৈধ অনুপ্রবেশ করেছে। অনুরূপভাবে লিবিয়া ও ইয়ামেনের ব্যাপারেও একই ভূমিকা পালন করছেন এরদোয়ান।

আল-জাজিরার এক প্রতিবেদনে তিনি দাবি করেন, ইয়েমেনীদের হত্যার পেছনেও এরদোয়ানের হাত রয়েছে। এ ব্যাপারে হতাশা ব্যক্ত করেছেন ড. আয়েজ আল-কারনী।

ড. আয়েজ আল-কারনী শনিবার আরটি নিউজ আরবিকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে মন্তব্য করেন, এরদোয়ান সৌদির সব শত্রুদের পাশে দাঁড়িয়েছেন। সুতরাং তিনি ইসলামি বিশ্বের প্রকৃত নেতা নন বরং বাদশাহ সালমান বিন আব্দুল আজীজ আল সৌদই ইসলামি বিশ্বের প্রকৃত নেতা। কেননা, বিশ্বব্যাপী সকল মুসলিম ইস্যুতে সাহায্যকারী দেশ হলো সৌদি আরব।

উল্লেখ্য যে, বিশ্ববিখ্যাত ইসলামিক স্কলার ড. আয়েজ আল-কারণী আগে একটি ভিডিওতে প্রেসিডেন্ট এরদোয়ানের প্রশংসা করেন। সে ভিডিও সম্পর্কে তিনি বলেন-

‘আরবসহ মুসলিম বিশ্বের অন্যান্য মুসলমানদের মতো আমিও এরদোগানের ব্যাপারে ধোঁকা খেয়েছিলাম। তার সম্পর্কে আমি বিভ্রান্তির শিকার হয়েছিলাম। তবে এখন বিষয়টি আমাদের কাছে স্পষ্ট। আমরা ইসলামকে ভালবাসি। আর এমন নেতাকেই আমরা ভালবাসবো- যিনি ইসলামের সাহায্য করেন।’

ড. আয়েজ আল-কারনী আরও উল্লেখ করেন যে, সৌদি আরব আন্তর্জাতিক প্রতিটি ইস্যুতে যে অবস্থান গ্রহণ করে এরদোয়ান সে সবের প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষ বিরোধিতা করেন। আর তাতেই প্রকৃত মানসিকতা বেরিয়ে এসেছে।’

সৌদি শীর্ষ এ আলোম এরদোয়ান সম্পর্কে আরও বলেন, ‘তিনিই সর্ব প্রথম কোনো মুসলিম নেতা, যিনি ইহুদিদের হায়েতুল বোরাক (বোরাকের দেয়াল। ইহুদিরা এখানে কেঁদে কেঁদে প্রার্থনা করে। তাদের ধর্মমতে আল আকসার এই প্রান্তটি পূন্যময়ী) জেয়ারত করেছেন। আর দখলদার অবৈধ রাষ্ট্র ইসরাইলেও তার দেশের দূতাবাস রয়েছে বলে উল্লেখ করেন এ ইসলামিক স্কলার।

নিউজটি শেয়ার করুন

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার সম্পূর্ণ বেআইনি এবং শাস্তিযোগ্য অপরাধ
Design & Developed BY ThemesBazar.Com