২৮শে জানুয়ারি, ২০২১ ইং , ১৪ই মাঘ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ , ১৪ই জমাদিউস-সানি, ১৪৪২ হিজরী

করোনা; আক্রান্তে তালিকায় ইতালিকে টপকাল ভারত

পাথেয় টোয়েন্টিফোর ডটকম : কোভিড-১৯ এর শনাক্ত রোগীর সংখ্যায় ইতালিকে পেছনে ফেলেছে ভারত৷ অন্যদিকে জনস হপকিন্স বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিসংখ্যানে শনাক্তের সংখ্যায় বাংলাদেশ উঠে এসেছে ২০ এ৷

ভারতে ২৪ ঘণ্টায় রেকর্ড নয় হাজার ৮৮৭ জন করোনা আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হয়েছেন৷ জনস হপকিন্স বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিসংখ্যান অনুযায়ী দেশটিতে মোট আক্রান্তের সংখ্যা এখন দুই লাখ ৩৭ হাজার ৫৬৬ জন৷ শনাক্তের দিক থেকে ভারত এখন বিশ্বের দেশগুলোর তালিকায় ছয় নাম্বারে৷ দেশটিতে মোট শনাক্তের সংখ্যা এখন দুই লাখ ৩৪ হাজার ৫৩১ জন৷

ভারতে প্রথম রোগী শনাক্ত হয়েছিল ৩০ জানুয়ারি৷ এদিন কেরালায় চীনের উহান বিশ্ববিদ্যালয় থেকে আগত এক শিক্ষার্থীর দেহে ভাইরাসটি ধরা পড়েছিল৷ এরপর ক্রমাগত বেড়েছে রোগীর সংখ্যা৷ পাল্লা দিয়ে বেড়েছে মৃত্যুও৷ সরকারি হিসাবে দক্ষিণ এশিয়ার জনবহুল দেশটিতে এখন পর্যন্ত মারা গেছেন ছয় হাজার ৬৪২ জন৷ ২৯৪ জন মারা গেছেন গত ২৪ ঘণ্টায়৷

বেশ কয়েকটি গবেষণায় দেখা গেছে করোনা ভাইরাসের কারণে হৃৎপিণ্ড ক্ষতিগ্রস্ত হয়৷ হৃদরোগ বা উচ্চ রক্তচাপ থাকা ব্যক্তিদের কোভিড-১৯ এ মৃত্যুর হার অনেক বেশি৷ কিন্তু যাদের হৃদরোগ নেই তারাও আক্রান্তের পর হৃৎপিণ্ডের পেশির কোষ মারা যায়৷ তবে ভাইরাসের আক্রমণে কোষ ক্ষতিগ্রস্ত হয় নাকি ভাইরাসের বিরুদ্ধে শরীরের তৈরি রোগপ্রতিরোধ ব্যবস্থার কারণে, তা এখনো নিশ্চিত হওয়া যায়নি৷

সোমবার (০৮ জুন) থেকে ভারতে লকডাউনের বিধিনিষেধগুলো শিথিল করার কথা৷ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে শপিং মল, রেস্টুরেন্ট আর উপাসনালয়গুলোও খুলে দেয়ার৷

এদিকে ২৪ ঘণ্টায় বাংলাদেশে আরো দুই হাজার ৬৩৫ জন শনাক্ত হয়েছেন৷ মোট রোগী এখন ৬৩ হাজার ২৬ জন৷ আক্রান্তদের সংখ্যার দিক থেকে এখন বাংলাদেশের জনস হপকিন্সের তালিকায় ২০ তম৷

শনিবার (০৬ জুন) স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের নিয়মিত অনলাইন ব্রিফিংয়ে ২৪ ঘণ্টায় ৩৫ জনের মৃত্যুর খবর দেয়া হয়েছে৷ এ নিয়ে মৃত্যুর সংখ্যা বেড়ে দাঁড়াল ৮৪৬ জনে৷

সুস্থ হয়ে উঠার সংখ্যাও কম নয়৷ নতুন ৫২১ জনসহ করোনামুক্ত হয়েছেন ১৩ হাজার ৩২৫ জন৷

/এএ

নিউজটি শেয়ার করুন

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার সম্পূর্ণ বেআইনি এবং শাস্তিযোগ্য অপরাধ
Design & Developed BY ThemesBazar.Com