২৭শে মে, ২০২০ ইং , ১৩ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ , ৩রা শাওয়াল, ১৪৪১ হিজরী

করোনা; নতুন শনাক্ত ১৮৭৩, মৃত্যু ২০

পাথেয় টোয়েন্টিফোর ডটকম : দেশে নভেল করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে গত ২৪ ঘণ্টায় আরো ২০ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ পর্যন্ত এ নিয়ে দেশে ভাইরাসটিতে আক্রান্ত হয়ে মারা গেলেন ৪৫২ জন। এছাড়াও গেল ২৪ ঘণ্টায় দেশে নতুন করে আক্রান্ত শনাক্ত হয়েছেন ১ হাজার ৮৭৩ জন। এ নিয়ে দেশে মোট আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়াল যথাক্রমে ৩২ হাজার ৭৮ জন।

শনিবার (২১ মে) দুপুরে স্বাস্থ্য অধিদফতরের করোনাভাইরাস বিষয়ক নিয়মিত হেলথ বুলেটিনে এ তথ্য জানান অধিদফতরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (মহাপরিচালকের দায়িত্বপ্রাপ্ত) অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা।

বুলেটিনে দেয়া তথ্যে করোনায় প্রতিদিন মারা যাওয়াদের বেশিরভাগই ঢাকার বাসিন্দা দেখা গেলেও আজকের দেয়া তথ্যের চিত্রটা ভিন্ন। আজ ঢাকার চেয়ে চট্টগ্রামে দ্বিগুণ সংখক মারা গেছেন। নাসিমা সুলতানা জানিয়েছেন, গেল ২৪ ঘণ্টায় মারা যাওয়া ২০ জনের মধ্যে ঢাকা বিভাগের রয়েছেন চারজন, আর চট্টগ্রামের রয়েছেন আটজন। এছাড়াও রংপুরের দুজন, ময়মনসিংহের দুজন, রাজশাহীর দুজন, সিলেটের একজন এবং খুলনা বিভাগে একজন করোনা আক্রান্ত হয়ে গেল ২৪ ঘণ্টায় মারা গেছেন।

এদের মধ্যে হাসপাতালে মারা গেছেন ১৫ জন, বাড়িতে মারা গেছেন চারজন এবং মৃত অবস্থায় হাসপাতালে এসেছেন একজন।

মৃত ২০ জনের মধ্যে পুরুষ ১৬ জন, নারী ৪ জন। তাদের বয়স বিশ্লেষণে নাসিমা সুলতানা বলেন, এদের মধ্যে ৭১ থেকে ৮০ বছরের মধ্যে একজন, ৬১ থেকে ৭০ বছরের মধ্যে তিনজন, ৫১ থেকে ৬০ বছরের মধ্যে আটজন, ৪১ থেকে ৫০ বছরের মধ্যে তিনজন, ৩১ থেকে ৪০ বছরের মধ্যে তিনজন এবং ২১ থেকে ৩০ বছরের বয়সসীমার ছিলেন দুজন।

তিনি আরো জানান, সারা দেশে বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি রোগীদের মধ্যে গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছেন ২৯৬ জন। সবমিলিয়ে এ পর্যন্ত সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ৬ হাজার ৪৮৬ জন। শনাক্ত বিবেচনায় সুস্থতার হার ২০ দশমিক ২২ শতাংশ এবং মৃত্যুর হার ১ দশমিক ৪১ শতাংশ।

পিসিআরের মাধ্যমে নমুনা পরীক্ষার তথ্য তুলে ধরে ডা. নাসিমা সুলতানা জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় নমুনা সংগ্রহ হয়েছে ৯ হাজার ৯৭৭টি এবং আগের কিছু নমুনাসহ ১০ হাজার ৮৩৪টি। এ নিয়ে মোট নমুনা পরীক্ষার সংখ্যা দাঁড়াল ২ লাখ ৩৪ হাজার ৬৭৫টিতে।

গত ডিসেম্বরের শেষ দিকে চীনের উহান শহর থেকে ছড়িয়ে পড়া করোনাভাইরাস এখন বৈশ্বিক মহামারীতে পরিণত হয়েছে। এ ভাইরাসে বিশ্বজুড়ে আক্রান্তের সংখ্যা এখন পর্যন্ত ৪৭ লাখের বেশি। আর মৃতের সংখ্যা তিন লক্ষাধিক। বাংলাদেশে প্রথম করোনাভাইরাস আক্রান্ত শনাক্ত হয় গত ৮ মার্চ। সেদিন তিনজন আক্রান্ত শনাক্ত হওয়ার কথা জানায় সরকারের রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা ইনস্টিটিউট (আইইডিসিআর)। এরপর মার্চ মাস শেষে ৫০ জনের মতো শনাক্তের কথা জানা গেলেও এ মাসের দ্বিতীয় সপ্তাহ থেকে আক্রান্তের হার বাড়ে খুব দ্রুত।

নিউজটি শেয়ার করুন

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার সম্পূর্ণ বেআইনি এবং শাস্তিযোগ্য অপরাধ
Design & Developed BY ThemesBazar.Com