২১শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ ইং , ৬ই আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ , ৩রা সফর, ১৪৪২ হিজরী

কোরআনের ওপর মোবাইল রেখে সমালোচিত আজহারী!

কোরআনের ওপর মোবাইল রেখে সমালোচিত আজহারী!

পাথেয় টেয়েন্টিফোর ডটকম : জামাতি প্রোডাক্ট হিসেবে খ্যাত মিজানুর রহমান আজহারী পবিত্র কোরআনের ওপর মোবাইল রেখে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছবি ছড়িয়ে পড়ায় ব্যাপক সমালোচনার মুখে পড়েছেন। জুবাইর আহমাদ নামের একটি আইডি থেকে ওই ছবিটি পোস্ট করা হয়।

পোস্টে দাবি করা হয়, মালয়েশিয়ায় কোয়ালালামপুরে প্রবাসী ভাই-বোনদের নিয়ে আলোচনা করছেন মিজানুর রহমান আজহারী। কোরআনের পাখিদের কেউ থামিয়ে রাখতে পারবে না।

ওই অনুষ্ঠানেই মিজানুর রহমান আজহারীর সামনের কোরআন মাজিদের পৃষ্ঠা যাতে উল্টে না যায় সে কারণে তিনি নিজের মোবাইল ওপরে রেখেছেন। যা ছবিতেই স্পষ্ট দেখা যায়। এ নিয়ে পক্ষে বিপক্ষে উঠেছে ঝড়। অনেকেই বলছেন, মিজানুর রহমান আজহারীর কণ্ঠ ভালো। বলছেন ভালো। কিন্তু অন্তরে রূহ নেই।

শাহিদুল ইসলাম সুহাইল নামের একটি আইডি থেকে বলা হয়, ইস! কিভাবে মিজানুর রহমান আজহারি কুরআনকে তুচ্ছো ভাবলো”

সে জামাতের প্রডাক্ট না, সে আহলে হাদিস না, সে সুন্নি না, তাহলে তাকে কি ভাবা যায় ভাববার বিষয়। কোন এক কিতাবে পড়েছিলাম এক লোক কুরআন পড়তে পারেনা কিন্তু সে কুরআন কে এত টা মহব্বত করে যে কুরআন বাড়ির টিনের উপর রাখতো সব কিছু যেনো কুরআনের নিছে থাকে তাই,

আর আমরা আজ কি দেখি কুরআনের অবমাননা কুরআনের উপরে মোবাইল। মোবাইল কি কুরআনের থেকে দামি হয়ে গেলো?

আর কত নিছু নামবেন? আর কত মানুষ দেখা ইবাদত করবেন? আর কত ভুল ভাল ফতুয়া বাজি করবেন? আপনার ভক্তদের কবে শিক্ষা দিবেন? আর কত অভিনয় করবেন ইসলাম নিয়ে?

প্লিজ দোয়া করে আর এরকম করবেননা আপনার কাজে হিতে সব বিপরিত। আপনি মুফতি না তবুও ফতুয়া দেন আপনার মাঝে জাকির নায়েকের প্রতিচ্ছবি প্রকাশ পায়।

জাকির নায়েকের লেকচার আলেম জালেম সবাই শুনতো বাট আজকে তার অধপতন সেই ফতুয়ার কারনে তিনি যদি ওয়াজ নসিয়াত করতেন তাহলে সে কখনো বিলুপ্ত হতেন না।

শেষ মেশ একথা বলতে চাই আপনি ওয়াজ করেন ভালো কথা বাট ফতুয়া দিয়েন না নাহলে আপনাকেও বিলুপ্ত ঘোষণা করবে জনতা তাই সময় থাকতে তাফসিরের নামে কুরআনের অসম্মান কিছু করবেননা।

এমজে হোসাইন লিখেছেন, যে লোকটি পবিত্র কোরআনের উপর মোবাইল রেখে কথা বলে, তার চেয়ে বেআদব আর কে হতে পারে? এমন বেআদবের কথা শুনে মানুষ কিভাবে হেদায়াত পাবে?

নিউজটি শেয়ার করুন

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার সম্পূর্ণ বেআইনি এবং শাস্তিযোগ্য অপরাধ
Design & Developed BY ThemesBazar.Com