৩০শে মে, ২০২০ ইং , ১৬ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ , ৬ই শাওয়াল, ১৪৪১ হিজরী

সংবাদ শিরোনাম :

ঘূর্ণিঝড় আম্পান; ঝালকাঠিতে ঝড়-বৃষ্টি; নদীতে বাড়ছে পানি

পাথেয় টোয়েন্টিফোর ডটকম : উপকূলীয় জেলা ঝালকাঠিতে আম্পানের প্রভাবে ঝড় ও গুড়ি বৃষ্টি হচ্ছে। গত রাত ১০টা থেকেই শুরু হয়ে তা অব্যাহত আছে। জেলার নদীগুলো ভয়ানক রূপ ধারণ করেছে। স্বাভাবিকের চেয়ে ৫/৬ ফুট পানি বেড়েছে। নিম্নাঞ্চলে পানি ঢুকতে শুরু করেছে।

বুধবার (২০ মে) ভোর থেকেই জেলাজুড়ে ভয়ানক পরিস্থিতি বিরাজ করছে। আম্ফানের প্রভাবে সুগন্ধা-বিষখালীসহ নদ-নদীর পানি বৃদ্ধি পেতে শুরু করেছে। গত রাত থেকে দমকা হাওয়াসহ থেমে থেমে হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টি হচ্ছে। জেলার ৪৭৪টি আশ্রয় কেন্দ্র এবং প্রায় ৪শ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের পাকা ভবন প্রস্তুত রাখা হয়েছে। এসব আশ্রয় কেন্দ্রে এ পর্যন্ত প্রায় ২ হাজার মানুষ এবং ৪ শতাধিক গবাদিপশু আশ্রয় নিয়েছে।

ঝালকাঠি জেলা প্রশাসন কার্যালয়ের নেজারত ডেপুটি কালেক্টর আহমেদ হাছান মঙ্গলবার গভীর রাতে আশ্রয় কেন্দ্রে ঘুরে ঘুরে ত্রাণ পৌঁছে দেন। এ সময় তার সাথে জেলা প্রশাসন, জনপ্রতিনিধি, জেলা স্কাউট রেসপন্স টীমের সদস্য এস এম রেজাউল করিম ছিলেন।

জেলা দুর্যোগ, ত্রাণ ও পুনর্বাসন কর্মকর্তা আশ্রাফুল হক জানিয়েছেন, জেলায় মোট ৪৭৩টি আশ্রয় কেন্দ্রে প্রায় ১০ হাজার মানুষ আশ্রয় নিয়েছে। মানুষের পাশাপাশি কায়েক হাজার গবাদি পশুও আশ্রয় নিয়েছে। জেলায় ৫টি সরকারি কন্ট্রোল রুম থেকে পরিস্থিতি তদারকি করছে প্রশাসন।

নিউজটি শেয়ার করুন

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার সম্পূর্ণ বেআইনি এবং শাস্তিযোগ্য অপরাধ
Design & Developed BY ThemesBazar.Com