৩০শে অক্টোবর, ২০২০ ইং , ১৪ই কার্তিক, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ , ১২ই রবিউল-আউয়াল, ১৪৪২ হিজরী

ঘোষিত ফুটবল দল আমার কাছে সেরা : জেমি

ঘোষিত ফুটবল দল আমার কাছে সেরা : জেমি

পাথেয় টোয়েন্টিফোর ডটকম : বিশ্বকাপ ও এশিয়ান কাপের বাছাইপর্বকে সামনে রেখে রবিবার ৩৬ সদস্যের ফুটবল দলের ঘোষণা করেছে বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন (বাফুফে)। লিগের পারফরম্যান্স আর ধারাবাহিকতাকে বিবেচনায় এনে এই দল গঠন করা হয়েছে বলে দাবি করা হয়েছে। ক্যাম্পে ডাক পাওয়া এই দলটা নিয়ে ইতোমধ্যে সমালোচনা শুরু হয়েছে। তবে দলের প্রধান কোচ জেমি বলছেন, ‘এটা আমার সম্ভবত সেরা দল।’

দলসহ পরিকল্পনা নিয়েও মঙ্গলবার ভার্চুয়ালি গণমাধ্যমের মুখোমুখি হয়েছে এই ইংলিশ কোচ। সংবাদ সম্মেলনের চুম্বক অংশটুকু তুলে ধরা হলো নিচে-

প্রশ্ন: দল কেমন হয়েছে?
জেমি: তারুণ্য আর অভিজ্ঞতার সংমিশ্রণ ঘটেছে এবারের স্কোয়াডে। নতুন যে ৪ জন ডাক পেয়েছে তারা লিগে নিজেদের প্রমাণ করেছে। এখান থেকে ২৪ জনের স্কোয়াড রাখা হবে। সাধারণত ২৩ জনের দল ডাকার রীতি, তবে চোটের কথা মাথায় রেখে হয়ত একজন বেশি থাকবে।
যে চারজনকে ডাকা হয়েছে তাদের খেলা আমি দেখেছি। প্রথমত এই চারজনকে ফিটনেস ধরে রেখে ট্রেনিংয়ের প্রাথমিক পর্যায় শেষ করতে হবে। এখন বাকিটা তাদের ওপর।

প্রশ্ন: জনি, মতিন আর ফাহাদ লম্বা চোটের পর দলে সুযোগ পেয়েছেৃ
জেমি: জনি আর ফাহাদ জাতীয় দলে আগেও ভালো করেছে। ওদের ফিরে পেয়ে ভালো হয়েছে। ওরা লম্বা সময় খেলার বাইরে ছিল। আমি জানি ফাহাদ বসুন্ধরার সঙ্গে ছিল কিন্তু কোনো ম্যাচ খেলেনি। জনি কেবল ফিরল। ক্যাম্পে বোঝা যাবে ওদের বর্তমান অবস্থা কেমন। ক্যাম্পে ভালো করলে স্কোয়াডে থাকবে। নতুনদের মতোই তাদের জায়গা করে নিতে হবে দলে।

প্রশ্ন: ফুটবলারদের মধ্যে মূল দলে ঢোকার প্রতিযোগিতা কেমন দেখছেন?
জেমি: আমাদের দলে প্রতিযোগিতা দরকার। প্রতি পজিশনে দুইজন বা তিনজন খেলোয়াড় আমরা সবসময়ই রেখেছি। এবার আমাদের দলে এবার অনেক সেন্ট্রাল মিডফিল্ডার আছে। এটা সম্ভবত আমার সেরা দলই। এখন এখান থেকে ২৪ এরপর একাদশে ঢোকার চেষ্টা করতে হবে খেলোয়াড়দের।

প্রশ্ন: অক্টোবরেই বিশ্বকাপ বাছাইয়ের পাশাপাশি কাছাকাছি সময়ে এএফসি কাপেও অংশ নিচ্ছে বসুন্ধরা কিংস। দলের বেশিরভাগ ফুটবলারই কিংস দলের। আর বাংলাদেশের খেলা একই সময়ে। সে বিষয়ে কী পরিকল্পনা নিচ্ছে বাফুফে?
জেমি: বসুন্ধরা কিংসে জাতীয় দলের অনেকে খেলোয়াড় আছে। একই সময় যেহেতু ম্যাচ পড়েছে তাই একটা সঙ্কট তৈরি হতে পারে। তবে আমি অস্কারের সঙ্গে কথা বলব। আশা করি এই নিয়ে তেমন কোনো ঝামেলা হবে না।

প্রশ্ন: বসুন্ধরা, জাতীয় দলের খেলোয়াড়রা অক্টোবর নভেম্বরে অল্প দিনে অনেক ম্যাচ খেলবে, এটা ঝামেলা কী না?
জেমি: এটা তো আদর্শ কোনো পরিস্থিতি নয়। বসুন্ধরার জন্যও না, জাতীয় দলের জন্যও না। এতো অল্প সময়ে এতোগুলো ম্যাচ খেললে তাদের কাছ থেকে সেরাটা আশা করা কঠিন। এসব মাথায় রেখে আমাদের ট্রেনিং সেশনগুলো সাজানো হবে। দরকার হলে বিশ্রাম দিয়ে ট্রেনিং করানো হবে।

প্রশ্ন: বিশ্বকাপের বাছাইপর্বের জন্য প্রস্তুত হতে ক্যাম্পে ৬ সপ্তাহ কি পর্যাপ্ত সময়?
জেমি: আপনি যদি পুরো পৃথিবীর দিকে তাকান যেমন প্রিমিয়ার লিগের ক্লাবগুলোও প্রাক মৌসুমে ৬ সপ্তাহ ট্রেনিং করে মাঠে খেলতে নেমে যায়। ভারত সেপ্টেম্বরে ক্যাম্প শুরু করবে। ওদের ম্যানেজার বিশ্বকাপও খেলেছেন, প্রাক মৌসুমে কী করতে হয় সে সম্পর্কে তাদের স্পষ্ট ধারণা আছে।
১৫ সপ্তাহ ধরে ট্রেনিং করার মানে হয় না। শুধু আমার জন্য নয়, পৃথিবীর সব কোচের জন্যই ৬ সপ্তাহ যথেষ্ট সময় যদি কাজে লাগানো যায়। যদি আপনার ভালো পিচ থাকে, ভালো জিম থাকে- এই ৬ সপ্তাহই যথেষ্ট। এখানে একটাই সমস্যা যে প্রীতি ম্যাচ হয়ত আমাদের খেলা হবে না। ওদের কি সময় কম হয়ে যাবে? এটা আমার মনে হয় না কোনো সমস্যা সৃষ্টি করবে।
যদি খেলোয়াড়রা যদি ওজন বাড়িয়ে আসে তাহলে তাকে বিবেচনা করা হবে না। তবে আমি আশা করব খেলোয়াড়রা ভালো শেপে ট্রেনিংয়ে যোগ দেবে। গত ৩ মাসে তারা আমাকে তাদের ট্রেনিং সেশনের ভিডিও পাঠিয়েছে নিয়মিত, তাদের ওজন, ডায়েট চার্ট সম্পর্কেও আমরা অবগত। তারা দারুণ করেছে, আমার বিশ্বাস তারা নিয়ম মেনে চলেছে। দুই সপ্তাহ ট্রেনিংয়ের পর আমার মনে হয় বাকি যে ঝামেলাগুলো আছে সেগুলো কাটিয়ে উঠবে ওরা।

প্রশ্ন: নতুন কোন প্রবাসী খোঁজা হচ্ছে কি না?
জেমি: ইউরোপ থেকে এই মুহুর্তে আর খেলোয়াড় নেওয়া হচ্ছে না। যেহেতু ট্রাভেল রেস্ট্রিকশন আছে। একেবারে নতুন কাউকে দলে নেওয়ার আগে তাদের খেলা আমার দেখতে হবে। সেটা এই মুহুর্তেই সম্ভব হচ্ছে না। আর তারা যেহেতু বাংলাদেশে লিগ খেলে না, তাই নানান জটিলতাও আছে। আপাতত নভেম্বর পর্যন্ত বাংলাদেশি বংশোদ্ভুত অন্য কাউকে দলে ডাকার সম্ভাবনা নেই বললেই চলে।

প্রশ্ন: বাছাইপর্বের প্রস্তুতির জন্য প্রাকটিক ম্যাচ আয়োজন নিয়ে পরিকল্পনা কী?
জেমি: প্র্যাকটিস ম্যাচ আয়োজন করা আসলে খুব কঠিন হবে যাবে। তবে ট্রেনিং শুরুর পর ৫ সপ্তাহে পরিস্থিতি ভালো হলে হয়ত সেটা হতেও পারে। অন্য কোনো দল আনা গেলে স্কোয়াডের খেলোয়াড়রাদের দিয়েই প্র্যাকটিস ম্যাচ খেলানোর পরিকল্পনা আমাদের।

নিউজটি শেয়ার করুন

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার সম্পূর্ণ বেআইনি এবং শাস্তিযোগ্য অপরাধ
Design & Developed BY ThemesBazar.Com