১৩ই জুন, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ , ৩০শে জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ , ২রা জিলকদ, ১৪৪২ হিজরি

চাঁদপুরে প্রথম মডেল মসজিদের দ্বার উন্মোচিত

মডেল মসজিদ

পাথেয় টোয়েন্টিফোর ডটকম : চাঁদপুরে আট উপজেলার মধ্যে প্রথম মডেল মসজিদ উন্মুক্ত হলো কচুয়া উপজেলায়। সারাদেশে যে ৫০টি মডেল মসজিদ ও ইসলামি বিকাশ কেন্দ্র প্রধানমন্ত্রী উদ্বোধন করেছেন, তারমধ্যে একই আদলের দৃষ্টিনন্দন তিনতলা বিশিষ্ট এই মসজিদও রয়েছে।

এই উপলক্ষে বৃহস্পতিবার সকাল এগারোটায় কচুয়া উপজেলা সদরে উপস্থিত হয়ে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে যোগ দেন, জেলা প্রশাসক অঞ্জনা খান মজলিশ।

এসময় অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা দীপায়ন দাশ শুভ, থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোহাম্মদ মহিউদ্দিন, উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি আইউব আলী পাটোয়ারী, সাধারণ সম্পাদক সোহরাব হোসেন চৌধুরীসহ সরকারি বেসরকারি কর্মকর্তা এবং এলাকার ধর্মপ্রাণ মুসলিম সম্প্রদায়ের একাংশ।

এদিকে, প্রত্যন্ত জনপদে মডেল মসজিদ এবং একই সঙ্গে ইসলাম সাংস্কৃতিক ও গবেষণা কেন্দ্র উন্মুক্ত হওয়ায় স্থানীয়রা বেশ উল্লাসিত। কারুকার্য শোভিত দৃষ্টিনন্দন তিনতলা বিশিষ্ট মসজিদ দেখতে জেলার বিভিন্নস্থান থেকে আলেম ওলামাসহ সাধারণ মানুষ ছুটে যান।

তারা বলেন, এটি চালু হওয়ায় ধর্মীয় গোঁড়ামি, উগ্র ও জঙ্গিবাদ নিয়ে সাধারণ মানুষের ভ্রান্ত ধারণা দুর হবে। এখান থেকে শান্তির ধর্ম ইসলামের মূল বাণী প্রচারে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে। এই জন্য দেশের প্রধানমন্ত্রীকে ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানান তারা।

অন্যদিকে, উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ভিডিও কনফারেন্স মডেল মসজিদ নির্মাণ ও এর গুরুত্ব তুলে ধরে বক্তব্য দেন।

স্থানীয়ভাবে সংসদ সদস্য ডা. মহীউদ্দীন খান আলমগীরও ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে এলাকাবাসীর সঙ্গে প্রধানমন্ত্রীকেও ধন্যবাদ জানান। এছাড়া জেলা প্রশাসক অঞ্জনা খান মজলিশ মডেল মসজিদ রক্ষণাবেক্ষণ এবং এখানে এসে ধর্মের মূল বাণী সবার মধ্যে ছড়িয়ে দিতে স্থানীয় আলেম ওলামাদের প্রতি আহ্বান জানান।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, কচুয়ার প্রবীণ রাজনীতিক ও বিশিষ্ট ব্যবসায়ী সরকারি এই মসজিদ নির্মাণের জায়গা কোনো আর্থিক সুবিধা না নিয়ে দান করেন। তবে সরকারি অর্থায়নে নির্মিত এই আধুনিক মসজিদে একসঙ্গে কয়েক শ মুসল্লি নামাজ আদায়, আলাদাভাবে নারীদের নামাজের স্থান, ইসলামি বিষয় প্রশিক্ষণ ও গবেষণা, হজ্ব যাত্রীদের আবাসন ও প্রশিক্ষণ এবং বিপুল সংখ্যক ধর্মীয় বই পুস্তক এখানে সংরক্ষিত থাকবে। যা যে কেউ আধুনিক সুবিধাজনক পরিবেশে পাঠ করতে পারবেন।

জেলা প্রশাসন সূত্রে জানা গেছে, চাঁদপুরের আরো সাত উপজেলায় একই ধরনের মডেল মসজিদ ও ইসলামি বিকাশ কেন্দ্র নির্মাণের কাজ দ্রুত এগিয়ে চলছে।

শেয়ার করুন


সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ১৯৮৬ - ২০২১ মাসিক পাথেয় (রেজিঃ ডি.এ. ৬৭৫) | patheo24.com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com