২৮শে জানুয়ারি, ২০২১ ইং , ১৪ই মাঘ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ , ১৪ই জমাদিউস-সানি, ১৪৪২ হিজরী

চেয়ারম্যান ও তিন মেম্বার করোনায় আক্রান্ত ফেনীতে

চেয়ারম্যান ও তিন মেম্বার করোনায় আক্রান্ত ফেনীতে

পাথেয় টোয়েন্টিফোর ডটকম : ফেনীতে এক ইউপি চেয়ারম্যানসহ নতুন করে ৫৫ জনের দেহে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ পাওয়া গেছে।

শনিবার (১৩ জুন) সকালে নোয়াখালীর আবদুল মালেক উকিল মেডিকেল কলেজের করোনা নমুনা পরীক্ষাগার থেকে প্রাপ্ত ফলাফলের ভিত্তিতে জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ এ তথ্য নিশ্চিত করেছে। নতুন আক্রান্তদের মধ্যে ফেনী সদর উপজেলায় ২০ জন, সোনাগাজীতে ২৬ জন, পরশুরামে আটজন ও ছাগলনাইয়া উপজেলায় একজন।

জেলা করোনা নিয়ন্ত্রণকক্ষের সমন্বয়ক ডা. শরফুদ্দিন মাহমুদ বলেন, ফেনীর ছয় উপজেলায় এ পর্যন্ত ৪৬৬ জনের দেহে করোনা শনাক্ত হয়েছে। এর মধ্যে সুস্থ হয়েছেন ১০১ জন। মারা গেছেন নয়জন। বর্তমানে হোম আইসোলেশন ও করোনা ডেডিকেটেড হাসপাতালের আইসোলেশনে আছেন ৩৫৫ জন।

তিনি আরও জানান, এখন পর্যন্ত ফেনীতে করোনার উপসর্গে তিন হাজার ২০৯ জনের নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষার জন্য বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব ট্রপিক্যাল অ্যান্ড ইনফেকশাস ডিজিজেস (বিআইটিআইডি), চট্টগ্রাম ভেটেরিনারি ও অ্যানিমেল সায়েন্সেস বিশ্ববিদ্যালয় এবং নোয়াখালী আবদুল মালেক উকিল মেডিকেল কলেজে পাঠানো হয়েছে। এর বিপরীতে পরীক্ষাগার থেকে দুই হাজার ৬৮৮ জনের ফলাফলে ৪৬৬ জনের দেহে করোনা সংক্রমণ নিশ্চিত হওয়া গেছে। এখন পর্যন্ত ৫২১টি নমুনার ফলাফল অপেক্ষমান রয়েছে।

জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ জানায়, সোনাগাজী উপজেলার মির্জানগর ইউপি চেয়ারম্যান নুরুজ্জামান ভুট্টো এবং ওই ইউপির তিনজন সদস্যের করোনা শনাক্ত হয়েছে। তাদের দেহে তেমন উপসর্গ দেখা যাচ্ছে না। বর্তমানে ১৩ জন করোনা রোগী ফেনী জেনারেল হাসপাতালের আইসোলেশন ওয়ার্ডে ভর্তি রয়েছেন। অন্যরা স্বাস্থ্য বিভাগের অধীনে হোম আইসোলেশনে থেকে চিকিৎসা নিচ্ছেন। ১০ জনকে অন্যত্র স্থানান্তর করা হয়েছে। করোনায় এখন পর্যন্ত জেলায় নয়জন মারা গেছেন। সুস্থ হয়েছেন ১০১ জন।

এ পর্যন্ত ফেনীতে শনাক্ত ৪৬৬ রোগীর মধ্যে ফেনী সদর উপজেলায় ১৭১ জন, সোনাগাজীতে ৮৩ জন, দাগনভূঞায় ১০৮ জন, ছাগলনাইয়ায় ৬২ জন, ফুলগাজীতে ১০ জন ও পরশুরামে ২৩ জন এবং অন্যান্য উপজেলার নয়জন রোগী রয়েছেন।

নিউজটি শেয়ার করুন

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার সম্পূর্ণ বেআইনি এবং শাস্তিযোগ্য অপরাধ
Design & Developed BY ThemesBazar.Com