২২শে ফেব্রুয়ারি, ২০২০ ইং , ১০ই ফাল্গুন, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ , ২৮শে জমাদিউস-সানি, ১৪৪১ হিজরী

সংবাদ শিরোনাম :

জনগণের মৌলিক অধিকারে হতাশা : ইসলামী আন্দোলন

পাথেয় টোয়েন্টিফোর ডটকম : ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ-এর রাজনৈতিক উপদেষ্টা অধ্যাপক আশরাফ আলী আকন বলেছেন, ‘বর্তমান সরকার জনগণের মৌলিক অধিকার ও ভোটাধিকার কেড়ে নিয়েছে। আওয়ামী লীগ সরকার পুরো নির্বাচনী ব্যবস্থাকেই ধ্বংস করে দিয়েছে।’ তিনি সরকারের আজ্ঞাবহ ও ব্যর্থ ইসি’র পদত্যাগ দাবী করে বলেন, ‘দেশের ভবিষ্যৎ নিয়ে আমরা চরমভাবে উদ্বিগ্ন। নির্বাচন নিয়ে এদেশের সাধারণ জনগণের আর কোন আগ্রহ অবশিষ্ট নেই।’

তিনি বলেন, ‘নির্বাচনের নামে এধরণের প্রহসনের কোন প্রয়োজন ছিল না। প্রধানমন্ত্রী গণভবন থেকে তাদের পছন্দের প্রার্থীদের নাম ঘোষণা দিয়ে দিলে জনগণের অর্থ ব্যয় হতো না। তিনি জনগণের ভোটাধিকার রক্ষায় সবাইকে প্রস্তুত হওয়ার আহ্বান জানান।’

মঙ্গলবার (১১ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশন নির্বাচন পরিচালনা কমিটির নির্বাচন পরবর্তী পর্যালোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

দক্ষিণ নির্বাচন পরিচালনা কমিটির আহ্বায়ক এবং দক্ষিণ মেয়রপ্রার্থী আলহাজ্ব আব্দুর রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত পর্যালোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন দক্ষিণ সভাপতি মাওলানা ইমতিয়াজ আলম, মাওলানা আহমদ আবদুল কাইয়ূম,আলহাজ্ব আলতাফ হোসেন, সমন্বয়কারী আব্দুল আউয়াল মজুমদার, মুফতী মোস্তফা কামাল, ডা. শহিদুল ইসলাম, নুরুজ্জামান সরকার, মাওলানা আব্দুর রাজ্জাক, মাওলানা নজরুল ইসলাম, নজরুল ইসলাম খোকন, মুফতী মানসুর আহমদ সাকী, শ্রমিকনেতা আলহাজ্ব জাহাঙ্গীর আলম, মাওলানা কামাল হোসাইন।

সভাপতির বক্তব্যে আলহাজ্ব আব্দুর রহমান বলেন, ‘নির্বাচন নিয়ে আমরা হতাশ, জনগণ হতাশ। আসলে বাংলাদেশের মানুষ যদি ভোট দিতে না পারে তাহলে রাজনীতির দরকার নেই। আর রাজনৈতিক দলেরও প্রয়োজন নেই। একদলীয় শাসন করে দিলেই হয়। ভোট দিতে না পারলে রাজনৈতিক দলের কেন প্রয়োজন?’

নিউজটি শেয়ার করুন

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার সম্পূর্ণ বেআইনি এবং শাস্তিযোগ্য অপরাধ
Design & Developed BY ThemesBazar.Com