১৩ই জুন, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ , ৩০শে জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ , ২রা জিলকদ, ১৪৪২ হিজরি

জামাআতে নামাজ

মাহমুদুর রহমান ● আমলের মধ্যে সবচেয়ে পরিপাটি ও সুন্দর আমল হলো সালাত।  মানুষের ঈমান লাভের পর আল্লাহর হুকুম পালনে শ্রেষ্ঠ ও প্রধান ইবাদত নামাজ। এটি ইসলামের দ্বিতীয় রুকন। আল্লাহ তাআলা মানুষের জন্য দিনে ও রাতে পাঁচ ওয়াক্ত নামাজ ফরজ করেছেন। নামাজের ওয়াক্ত হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে তা আদায় করার জন্য মসজিদে চলা এবং সেখানে অপেক্ষায় রয়েছে বিশেষ ফজিলত ও মর্যাদা। তাছাড়া কুরআন এবং হাদিসে নামাজের অনেক ফজিলত বর্ণনা করা হয়েছে। সময় মতো জামাআতের সঙ্গে নামাজ আদায়, নামাজের জন্য মসজিদে হেঁটে যাওয়া এবং জামাআতে নামাজ পড়ার জন্য অপেক্ষাকারীর গুরুত্বপূর্ণ ফজিলত বর্ণনা করেছেন প্রিয়নবি সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম।

হাদিসে এসেছে- হজরত আবু হুরায়রা রাদিয়াল্লাহু আনহু থেকে বর্ণিত প্রিয়নবি সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেছেন, ‘বাড়ি বা বাজারে একাকি নামাজ আদায়ের চেয়ে জামাআতে নামাজ আদায়ে ২৫ গুণ বেশি সওয়াব রয়েছে। কারণ, তোমাদের কেউ যখন ভালো করে অজু করে এবং শুধুমাত্র নামাজের জন্য মসজিদে যায়; তখন মসজিদে পৌঁছা পর্যন্ত প্রতিটি পদে পদে আল্লাহ তাআলা তার একটি করে মর্যাদা বাড়িয়ে দেন এবং একটি করে গোনাহ মিটিয়ে দেন। আর (ওই ব্যক্তি) যখন নামাজের জন্য মসজিদে প্রবেশ করে অপেক্ষা করতে থাকে তখন সে সময়টুকু নামাজ হিসেবে পরিগণিত হয়। আর যে স্থানে নামাজ আদায় করেছে সে স্থানে অজু অবস্থায় অপেক্ষা করে, ওই সময়টি তার জন্য ফেরেশতাগণ রহমতের দোয়া করতে থাকেন। তাঁরা (ফেরেশতারা) বলেন, ‘হে আল্লাহ! তাকে ক্ষমা করুন এবং তার প্রতি দয়া করুন।’ (বুখারি ও মুসলিম) উল্লেখিত হাদিসের আলোকে প্রমাণ হয় যে, নামাজই একমাত্র ইবাদত যা মানুষকে পরকালের সফলতায় অগ্রণী ভূমিকা পালন করবে। এ কারণেই হাদিসে এসেছে, ‘কিয়ামতের ময়দানে সর্ব প্রথম নামাজের হিসাব গ্রহণ করা হবে। যে ব্যক্তি নামাজের হিসাব দিতে পারবে; তার পরবর্তী হিসাব সহজ হয়ে যাবে।

নামাজের উপকারিতা
ক. নামাজ মানুষের রুটি-রুজিতে বরকত দান করে
খ. নামাজ মানুষের স্বাস্থ্যের হিফাজত করে
গ. নামাজ মানুষের রোগব্যাধি দূর করে
ঘ. নামাজ অন্তরকে করে শীতল ও শক্তিশালী
ঙ. নামাজ চেহারার উজ্জলতা ও সৌন্দর্য বৃদ্ধি করে
চ. নামাজ মুদমিনের আনন্দের খোরাক
ছ. নামাজ মানুষের প্রতিটি অঙ্গ-প্রত্যঙ্গকে সজীবতা দান করে
জ. নামাজে অলসতা দূর হয়
ঝ. নামাজ মানুষের অন্তরের বন্ধ দরজাগুলো খুলে দেয়
ঞ. নামাজ আত্মার খোরাক
ট. নামাজে দিল বা ক্বলবের মরীচিকা দূর করে আত্মাকে আলোকিত করে
ঠ. নামাজ আল্লাহর দেয়া নেয়ামতের রক্ষাকারী
ড. নামাজ আল্লাহর ভয়াবহ আজাব থেকে হিফাজত করে
ঢ. নামাজ শয়তানের কুমন্ত্রণা থেকে আশ্রয়দান করে
ন. নামাজ আল্লাহর নৈকট্য অর্জনের সর্বশ্রেষ্ঠ মাধ্যম হিসেবে কাজ করে।
সুতরাং যে ব্যক্তি যথাযথ নিয়মে নামাজ আদয় করবে, আল্লাহ তাআলা দুনিয়া এবং আখিরাতে তার জন্য রেখেছেন অসংখ্য নিয়ামত এবং অসংখ্য পুরস্কার। যার কিছুমাত্র ধারণার জন্য পেশ করা হলো।

নামাজ আদায়ের পুরস্কার
ক. কুরআনুল কারিমের ঘোষণা অনুযায়ী নামাজি ব্যক্তিকে জান্নাতে এমন লোকদের সঙ্গে রাখা হবে কেয়ামতের দিন যাদের কোনো ভয়ভীতি এবং কোনো চিন্তা থাকবে না।
খ. আল্লাহ রাব্বুল আলামিন নামাজি ব্যক্তিদের ভালোবাসেন
গ. নামাজি ব্যক্তিকে আল্লাহ সুস্থতা দান করেন
ঘ. ফেরেশতাগণ নামাজি ব্যক্তির হিফাজতের দায়িত্বে থাকেন এবং মাগফিরাত কামনা করেন
ঙ. নামাজি ব্যক্তির ঘরে আল্লাহ রহমত ও বরকত নাজিল হতে থাকে
চ. বিশেষ নূর দ্বারা নামাজির ব্যক্তির চেহারাকে আলোকিত করে দেন
ছ. নামাজি ব্যক্তির মধ্যে আল্লাহর দয়ার প্রকাশ পায় অর্থাৎ নামাজি ব্যক্তির দিল সর্বদা নরম থাকে
জ. নামাজি ব্যক্তির আখিরাতে সব মাঞ্জিল পার হবে দ্রুততার সঙ্গে এমনকি ফুলসিরাতেও
ঝ. নামাজি ব্যক্তিকে জাহান্নামের ভয়াবহ আযাব থেকে নাজাত দেয়া হবে।
ইসলামের অনুসারী সব মুসলমানের ওপর নামাজ হলো ফরজ ইবাদত। আল্লাহ তাআলা এই ফরজ ইবাদত পালনে মুসলিম উম্মাহকে তাওফিক দান করুন।
আল্লাহ তাআলা মুসলিম উম্মাহকে ওয়াক্ত হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে জামাআতের নামাজ আদায় করা, নামাজের জন্য মসজিদের দিকে চলা এবং অজু অবস্থায় মসজিদে অপেক্ষা করে প্রিয়নবি ঘোষিত ফজিলত ও মর্যাদা লাভের তাওফিক দান করুন।

 

শেয়ার করুন


সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ১৯৮৬ - ২০২১ মাসিক পাথেয় (রেজিঃ ডি.এ. ৬৭৫) | patheo24.com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com