২২শে ফেব্রুয়ারি, ২০২০ ইং , ১০ই ফাল্গুন, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ , ২৮শে জমাদিউস-সানি, ১৪৪১ হিজরী

দিল্লি নির্বাচনে আপের ৫ জন মুসলিম প্রার্থীরই জয়

পাথেয় টোয়েন্টিফোর ডটকম : দিল্লির রাজ্যসভা নির্বাচনে জয়ের হ্যাটট্রিক করে ফের দিল্লির মসনদে বসতে চলেছেন অরবিন্দ কেজরিওয়াল। বিশেষজ্ঞদের মত, বিজেপির ধর্মীয় বিভাজনের রাজনীতির বিরুদ্ধে আম আদমির উন্নয়নের রাজনীতি জয়যুক্ত হয়েছে।আগের বারের মতো এ বছরও দিল্লির মুসলিম সংখ্যাগরিষ্ঠ এলাকাগুলিতে ভালো ফল করেছে আপ। আম আদম পার্টি (আপ) থেকে দাঁড়ানো ৫ জন মুসলমান প্রার্থী-ই জয়যুক্ত হয়েছেন।

তারা হলেন, শোয়েব ইকবাল (মতিয়ামহল), ইমরান হোসাইন (বাল্লিমারান), আবদুল রহমান (সিলমপুর), আমানাতউল্লাহ খান (ওখলা) এবং হাজি ইউনুস (মুস্তাফাবাদ) এ বারের বিধানসভা নির্বাচনে জয়লাভ করেছেন। মুসলিম-অধ্যুষিত চাঁদনি চক বিধানসভা কেন্দ্র থেকেও আপের প্রার্থী প্রহ্লাদ সিং সাহনি জয় ছিনিয়ে নিয়েছেন। কংগ্রেস প্রার্থী অলকা লাম্বা এখানে সুবিধা করতে পারেননি।

এ বছর দিল্লির ৭০ আসনে পাঁচজন মুসলিম প্রার্থী নির্বাচনে লড়েছিলেন আপের পক্ষ থেকে। মতিয়ামহলে শোয়েব ইকবাল প্রদত্ত ভোটের ৭৫ শতাংশ পেয়ে ৫০০০০-এর অধিক ব্যবধানে জিতেছেন। ওখলায় আমানাতউল্লাহ খান বিজেপির বি সিংয়ের থেকে ৭৫০০০-এর বেশি ব্যবধানে জয় পেয়েছেন।

বিজেপির মুসলিম-বিদ্বেষী রাজনীতির মুখে এই জয় কষে থাপ্পড় বলে মনে করছে রাজনৈতিক মহল। শাহিনবাগে আন্দোলন নিয়েও মিথ্যাচার করেছে বিজেপি। জামিয়া মিল্লিয়াতে পুলিশ পাঠিয়ে অত্যাচার করেছে পড়ুয়াদের উপর। পিস্তল হাতে সন্ত্রাসীও পাঠানো হয়েছে আন্দোলনকারীদের জন্য। এই প্রেক্ষাপটে মুসলিম নাগরিকরা বিভাজনের বিরুদ্ধে আম আদমি পার্টিকেই ভোট দিয়েছে বলে মত বিশ্লেষকদের।

উল্লেখ্য, এবারের দিল্লি রাজ্যসভা নির্বাচনে ৭০ আসনেরর মধ্যে ৬৩টি আসন পেয়ে জয়ী হয়েছে কেজরিওয়ালের আম আদম পার্টি (আপ)। এই নিয়ে টানা তিনবার দিল্লির মসনদে বসছে আম আদম পার্টি।

নিউজটি শেয়ার করুন

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার সম্পূর্ণ বেআইনি এবং শাস্তিযোগ্য অপরাধ
Design & Developed BY ThemesBazar.Com