মঙ্গলবার, ২২ অক্টোবর ২০১৯, ০৮:১৯ অপরাহ্ন

দেশের জনগণ এক শ্বাসরুদ্ধকর অবস্থায় দিন কাটাচ্ছে : চরমোনাই পীর

১১ অক্টোবর শুক্রবার ঢাকায় বিক্ষোভ

দেশের জনগণ এক শ্বাসরুদ্ধকর অবস্থায় দিন কাটাচ্ছে : চরমোনাই পীর

পাথেয় রিপোর্ট : ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ-এর আমীর মুফতী সৈয়দ মুহাম্মাদ রেজাউল করীম বলেছেন, দেশের জনগণ এক শ্বাসরুদ্ধকর অবস্থায় দিন কাটাচ্ছে। সাধারণ মানুষের মাঝে বিরাজ করছে এক অজানা আতঙ্ক। দেশের রাজনৈতিক অনিশ্চয়তা, শিক্ষাঙ্গণে খুন, নির্যাতন এবং সরকারি দলের ছাত্রলীগের পৈশাচিক রাজনীতির কারণে সর্বত্র এক ভীতিকর পরিস্থিতির সৃষ্টি করেছে। আওয়ামীলীগের নেতৃত্বাধীন ক্ষমতাসীন বিতর্কিত সরকারের ক্ষমতার দাপটে সর্বত্র মানুষের মাঝে এক আতঙ্ক বিরাজ করছে। আতঙ্কের মাত্রা ক্রমেই বাড়ছে। বুয়েট ছাত্র আবরার হত্যার পর ছাত্রলীগের হুমকি-দমকি আরো বৃদ্ধি পাচ্ছে। অপরদিকে বরিশালে যুবলীগ নেতা কর্তৃক একজনকে মল পান করানোর ঘটনায় মানুষ চরম উদ্বিগ্ন।

মুফতী সৈয়দ মুহাম্মাদ রেজাউল করীম বুধবার এক বিবৃতিতে আরো বলেন, ছাত্রলীগের ছাত্র নামধারী সন্ত্রাসী নেতা-কর্মীদের চাঁদাবাজী, টেন্ডারবাজী, দুর্নীতি, হত্যা ও ধর্ষণ অপরাধের মাত্রা সীমা ছাড়িয়ে গেছে।

মুফতী সৈয়দ মুহাম্মাদ রেজাউল করীম বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ভারত সফরকালে ভারত ও বাংলাদেশের মধ্যে স্বাক্ষরিত সমঝোতা স্মারকের আওতায় ফেনী নদী থেকে ভারতকে ১.৮২ কিউসেক পানি প্রত্যাহার করার অধিকার দেয়া জাতীয় স্বার্থ বিরোধী সিদ্ধান্ত।

তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রীর ভারত সফরের পূর্বে দেশের বিভিন্ন রাজনৈতিক দলগুলো ভারতের নিকট বাংলাদেশের স্বার্থ বিকিয়ে না দিয়ে গঙ্গা ও তিস্তা নদীর পানির ন্যায্য হিস্যা আদায় করে দেশে ফেরার আহ্বান জানিয়েছিল।

তিনি বলেন, বাংলাদেশের ভিতর দিয়ে ভারতীয় ট্রেন যাতায়াত করার চুক্তি এবং বাংলাদেশের স্বার্থ আদায়ে প্রধানমন্ত্রীর চরম ব্যর্থতায় দেশের জনগণ গভীরভাবে উদ্বিগ্ন ও ক্ষুব্ধ।

তিনি বলেন, জাতীয় স্বার্থবিরোধী যে কোন চুক্তি দেশপ্রেমিক ঈমানদার জনতা রুখে দাড়াবে।

ঢাকায় ইসলামী আন্দোলনের বিক্ষোভ শুক্রবার : দেশে ভয়াবহ মদ-জুয়া, খুন, সন্ত্রাস বন্ধের দাবি ও বুয়েট ছাত্র আবরার হত্যার প্রতিবাদ এবং ভারতের সাথে দেশবিরোধী সকল চুক্তি বাতিলের দাবিতে ইসলামী আন্দোলন বাংলদেশ ঢাকা মহানগর ১১ অক্টোবর শুক্রবার বাদ জুমআ রাজধানীর বায়তুল মোকাররম উত্তর গেটে বিক্ষোভ সমাবেশের কর্মসূচি ঘোষণা করেছে।

বুধবার বিকেলে সচিবদের এক সভায় এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। সমাবেশে দলের নায়েবে আমীর মুফতী সৈয়দ মুহাম্মদ ফয়জুল করীম প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন।

নিউজটি শেয়ার করুন

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার সম্পূর্ণ বেআইনি এবং শাস্তিযোগ্য অপরাধ
Design & Developed BY ThemesBazar.Com