২০শে অক্টোবর, ২০২০ ইং , ৪ঠা কার্তিক, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ , ২রা রবিউল-আউয়াল, ১৪৪২ হিজরী

ধর্ষণবিরোধী মিছিলে রাজধানীতে পুলিশের লাঠিপেটা

পাথেয় টোয়েন্টিফোর ডটকম : ‘ধর্ষণ ও নিপীড়নবিরোধী ছাত্র-জনতা’র ব্যানারে ছাত্র ইউনিয়নের নেতাকর্মীদের মিছিলে রাজধানীতে শাহবাগের জাতীয় জাদুঘরের সামনে পুলিশের লাঠিপেটার ঘটনা ঘটেছে।

মঙ্গলবার (০৬ অক্টোবর) বেলা ১২টার পূর্বঘোষিত কর্মসূচির অংশ হিসেবে আজ দিকে শাহবাগের জাতীয় জাদুঘরের সামনে জড়ো হয়েছিলেন ছাত্র ইউনিয়নের নেতাকর্মীরা। এতে যোগ দেন প্রগতিশীল বিভিন্ন সংগঠনের নেতাকর্মী, লেখক, কবি, শিল্পী, অনলাইন অ্যাক্টিভিস্ট ও নারী অধিকারকর্মীরাও। ‘ধর্ষণ ও নিপীড়নবিরোধী ছাত্র-জনতা’র ব্যানারে সারাদেশে একের পর এক ধর্ষণ-নিপীড়নের বিচার দাবিতে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় অভিমুখে কালো পতাকা মিছিল করছিলেন তারা। এতে বাধা দেয় পুলিশ। এরপর সেখানে হাতাহাতি ও লাঠিপেটার ঘটনা ঘটেছে।

দুপুর সোয়া ১টার দিকে মিছিলটি শাহবাগ মোড় থেকে কালো পতাকা মিছিল নিয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের টিএসসি এলাকা ঘুরে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় অভিমুখে যাত্রা করে। মিছিলটি হোটেল ইন্টারকন্টিনেন্টাল মোড়ে পুলিশ তাদের আটকে দেয়। এ সময় মিছিলকারীদের সঙ্গে পুলিশের হাতাহাতি হয়। পরে পুলিশ লাঠিপেটা শুরু করে। এতে ছাত্র ইউনিয়নের বেশ কয়েকজন নেতাকর্মী আহত হন।

পরে মিছিলকারীরা ইন্টারকন্টিনেন্টাল মোড়েই অবস্থান নিয়ে বিক্ষোভ শুরু করেন। ‘ফাঁসি ফাঁসি চাই, ধর্ষকের ফাঁসি চাই’, ‘ধর্ষকের আস্তানা, ভেঙে দাও গুঁড়িয়ে দাও’, ‘যে রাষ্ট্র ধর্ষণ পোষে, সেই রাষ্ট্র চাই না’, ‘আমার বোনকে ধর্ষণ কেন, প্রশাসন জবাব চাই’, ‘নিপীড়ক যেখানে, লড়াই হবে সেখানে’- ইত্যাদি স্লোগানে স্লোগানে মুখর হয়ে ওঠে ওই এলাকা। এ সময় তারা ধর্ষক ও নিপীড়কদের শাস্তির পাশাপাশি স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামালের পদত্যাগের দাবি জানান। প্রায় আধা ঘণ্টা সেখানে অবস্থান শেষে মিছিলকারীরা আবার শাহবাগে হয়ে টিএসসি এলাকায় ফিরে রাজু ভাস্কর্যের সামনে অবস্থান নেন।

/এএ

নিউজটি শেয়ার করুন

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার সম্পূর্ণ বেআইনি এবং শাস্তিযোগ্য অপরাধ
Design & Developed BY ThemesBazar.Com