২রা ডিসেম্বর, ২০২০ ইং , ১৭ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ , ১৬ই রবিউস-সানি, ১৪৪২ হিজরী

নবীজীকে অবমাননার প্রতিবাদে আলেম-জনতা ঐক্য পরিষদের মানববন্ধন

নবীজীকে অবমাননার প্রতিবাদে আলেম-জনতা ঐক্য পরিষদের মানববন্ধন

পাথেয় টোয়েন্টিফোর ডটকম : ফ্রান্সে নবীজী হজরত মুহাম্মদ (সা.)-এর অবমাননা এবং দেশটির প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাঁক্রোর ইসলামবিরোধী বক্তব্যের প্রতিবাদে শনিবার (৭ নভেম্বর) রাজধানীর রামপুরায় মানববন্ধন করেছে আলেম জনতা ঐক্য পরিষদ।

ফ্রান্স সরকারকে ক্ষমা চাওয়ার আহ্বান জানিয়ে দেশটির সঙ্গে সব ধরনের সম্পর্ক ছিন্ন করা দাবি করে ফরাসি পণ্য-সামগ্রী বর্জনের ডাক দিয়েছেন সংগঠনটির নেতারা। এছাড়া বাংলাদেশ সরকার ও মুসলিম বিশ্বকে ফ্রান্সের বিরুদ্ধে আরো সোচ্চার হওয়ার আহ্বান জানিয়েছে তারা।

আলেম জনতা ঐক্য পরিষদের সভাপতি মাওলানা দেলওয়ার হোসাইন সাইফী বলেন, ফ্রান্সের ইসলাম বিদ্বেষ ও মহানবীর (সা.) অবমাননায় বিশ্বের দুইশ কোটি মুসলমান ব্যথিত ও ক্ষুব্ধ। মুসলমানদের হৃদয়ের ক্ষত মুছতে হলে ফ্রান্সকে রাষ্ট্রীয়ভাবে ক্ষমা চাইতে হবে। তা না হলে সারা দুনিয়ার মুসলমানরা রাজপথে নামবে।’

তিনি বলেন, নবীজী মুহাম্মাদ (সা.) আমাদের হৃদয়ের নয়ন মনি, আমাদের প্রাণের চেয়েও প্রিয়। তাঁর সাথে যে ভালো আচরণ করবে, আমরা তার সাথে ফুলের মত আচরণ করবো, আর যে নবীজীর সাথে খারাপ আচরণ করবে, তাঁকে অবমাননা করবে, তার সাথে আমাদের আচরণ হবে তরবারির মত।

আলেম জনতা ঐক্য পরিষদের মহাসচিব মাওলানা আবদুর রহীম কাসেমী বলেন, হযরত মুহাম্মাদ (সা.) কে পিতা-মাতা, সন্তান-সন্ততি ও দুনিয়ার সবকিছুর চেয়ে বেশি ভালোবাসতে না পারলে প্রকৃত ঈমানদার হওয়া যায় না। তাই তাঁর অবমাননায় কোন মুসলিম নিশ্চুপ বসে থাকতে পারে না। সামর্থের সবটুকু দিয়ে ফ্রান্স সরকারের পদক্ষেপ সম্পর্কে প্রতিবাদ জানানো প্রতিটি মুসলিমদের ঈমানী দায়িত্ব।

বর্তমান পরিস্থিতিতে ফরাসি পণ্য বর্জন করা মুসলমানদের ঈমানী দায়িত্ব উল্লেখ করে মাওলানা আবদুর রহীম কাসেমী বলেন, মানবতার মুক্তির দূত হযরত মুহাম্মদ (স.) এর ব্যঙ্গচিত্র প্রকাশের পর মুসলমানদের হৃদয়ে যে রক্তক্ষরণ সৃষ্টি করেছে ফ্রান্স সরকার, তার প্রতিবাদের প্রথম ধাপ হিসেবে ফ্রান্সের সঙ্গে বাণিজ্যিক সম্পর্ক ছিন্ন ও সব ধরনের ফরাসি পণ্য বর্জন এবং ফরাসি রাষ্ট্রদূতকে তলব করে এই ন্যক্কারজনক ঘটনার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাতে হবে।

মানববন্ধনে আরও বক্তব্য রাখেন তাকওয়া মাদরাসা ও এতিমখানার সিনিয়র শিক্ষক মাওলানা মাহবুবুর রহমান, মুফতি এনায়াত উল্লাহ, মুফতি শাফায়াত হোসাইন, মাওলানা আবদুর রউফ, মাওলানা ফারুক হোসাইন, মাওলানা সাঈদুর রহমান, মাওলানা ইসমাঈল হোসাইন, মাওলানা আল আমিন, মাওলানা মিজানুর রহমান প্রমুখ।

নিউজটি শেয়ার করুন

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার সম্পূর্ণ বেআইনি এবং শাস্তিযোগ্য অপরাধ
Design & Developed BY ThemesBazar.Com