১৬ই আগস্ট, ২০২০ ইং , ১লা ভাদ্র, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ , ২৫শে জিলহজ্জ, ১৪৪১ হিজরী

নবী দাবি, আদালতেই গুলি করে হত্যা

পাথেয় টোয়েন্টিফোর ডটকম : ধর্ম অবমাননা করে নিজেকে শেষ নবী করায় পাকিস্তানে আদালত কক্ষের ভেতরেই এক ব্যক্তিকে গুলি করে হত্যা করা হয়েছে।

বুধবার (২৯ জুলাই) পাকিস্তানের পেশওয়ারের একটি আদালতে মামলার শুনানি চলার সময়ই তাহির আহমেদ নাসিম নামের ওই ব্যক্তিকে হত্যা করা হয়।

নিরাপত্তা বাহিনী জানিয়েছে, ধর্ম অবমাননাকারী ওই ব্যক্তিকে লক্ষ্য করে ছয়টি গুলি চালানো হয়। এ ঘটনায় হামলাকারীকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

বিবিসি, আল জাজিরাসহ একাধিক আন্তজর্তিক গণমাধ্যম জানিয়েছে, নিজেকে নবী দাবি করে ধর্ম অবমাননা করার অভিযোগে ২০১৮ সাল থেকে পুলিশি হেফাজতে ছিলেন নাসিম। তার বিরুদ্ধে অভিযোগ, নিজেকে ‘নবী’ দাবি করে ব্লাসফেমি আইন ভঙ্গ করেছেন তিনি। নাসিমের বিরুদ্ধে দায়ের করা মামলায় ব্লাসফেমি আইনের ২৯৫-এ, ২৯৫-বি এবং ২৯৫-সি ধারা ভঙ্গের অভিযোগ আনা হয়।

অভিযোগে বলা হয়, নিজেকে ‘নবী’ দাবি করে ইসলাম ধর্মের মহানবী হযরত মুহাম্মদকে (সা.) অবমাননা করেছেন তিনি। আইন অনুযায়ী, এ অপরাধের সর্বোচ্চ শাস্তি মৃত্যুদণ্ডের বিধান রয়েছে।

স্থানীয় প্রশাসন জানায়, হামলার পরপরই ঘটনাস্থল থেকে হামলাকারীকে আটক করা হয়েছে। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে তিনি দোষ স্বীকারও করেছেন।

পাকিস্তানে ধর্মীয় অবমাননা আইনে সর্বোচ্চ শাস্তি মৃত্যুদণ্ড। যদিও এখন পর্যন্ত কাউকে সর্বোচ্চ শাস্তি দেওয়া হয়নি। তবে ১৯৯০ সাল থেকে বিভিন্ন সময় অভিযুক্তদের ওপর হামলা চালিয়ে হত্যা করা হয়েছে কমপক্ষে ৭৭ জনকে।

/এএ

নিউজটি শেয়ার করুন

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার সম্পূর্ণ বেআইনি এবং শাস্তিযোগ্য অপরাধ
Design & Developed BY ThemesBazar.Com