২২শে ফেব্রুয়ারি, ২০২০ ইং , ১০ই ফাল্গুন, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ , ২৮শে জমাদিউস-সানি, ১৪৪১ হিজরী

পরীক্ষায় নকল সরবরাহ; কারাদন্ড পাঁচ শিক্ষকের

পাথেয় টোয়েন্টিফোর ডটকম: দাখিল পরীক্ষার্থীদের নৈর্ব্যক্তিকের উত্তর সরবরাহের দায়ে পাঁচ শিক্ষককে দুই বছর করে কারাদন্ড দিয়েছে ভ্রাম্যমাণ আদালত।

রোববার (০২ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আশুগঞ্জ সার কারখানার স্কুল কেন্দ্রে এ ঘটনা ঘটে।

আশুগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিস সূত্রে জানা গেছে, এসএসসি, দাখিল পরীক্ষার প্রথমদিন রোববার আশুগঞ্জ সার কারখানার স্কুল কেন্দ্রের মাদ্রাসা পরীক্ষার্থীদের এমসিকিউ উত্তরপত্র লিখে নকল সরবরাহ করার সময় ৫ শিক্ষককে হাতেনাতে ধরে ফেলেন আশুগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. নাজিমুল হায়দার।

পরে সোমবার (০৩ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে কেন্দ্রের অফিসে জিজ্ঞাসাবাদে শিক্ষার্থীদের নকল সরবরাহের কথা স্বীকার করলে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. নাজিমুল হায়দার তাৎক্ষণিকভাবে ৫ শিক্ষককে দুই বছরের জেল এবং প্রত্যেককে ১০ হাজার করে টাকা জরিমানা করেন। এদিন মাদরাসার কোরআন মাজিদ ও তাজবিদ পরীক্ষা ছিল।

দণ্ডিতরা হলেন, উপজেলার চরচারতলা ইসলামিয়া আলিম মাদরাসার সহকারী সুপার মো. মাজহারুল ইসলাম, একই মাদরাসার সহকারী শিক্ষক মো. শফিকুল ইসলাম, খোলাপাড়া ওমেদ আলী শাহ দাখিল মাদরাসার সহকারী সুপার মো. মহিউদ্দিন, তালশহর করিমিয়া ফাজিল মাদরাসার প্রভাষক কবির হোসেন ও সরাইল উপজেলার পানিস্বর মাদেনিয়া গাউছিয়া দাখিল মাদরাসার সহকারী সুপার আব্বাস আলী।

আশুগঞ্জ উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মো. আবুল হোসেন বলেন, ‘শিক্ষকরা শিক্ষার্থীদের নকল সরবরাহ করে একটি গুরুতর অপরাধ করেছেন। ভবিষ্যতে যেন কেউ এ ধরনের অপরাধ করতে সাহস না পায় সে জন্য আটককৃতদের ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে সাজা দেয়া হয়েছে।’

উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. নাজিমুল হায়দার বলেন, ‘শিক্ষার্থীদের নকল দেয়ার সময় হাতেনাতে শিক্ষকদের ধরে ভ্রাম্যমাণ আদালতে সাজা দেয়া হয়েছে।’

নিউজটি শেয়ার করুন

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার সম্পূর্ণ বেআইনি এবং শাস্তিযোগ্য অপরাধ
Design & Developed BY ThemesBazar.Com