৩১শে অক্টোবর, ২০২০ ইং , ১৫ই কার্তিক, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ , ১৩ই রবিউল-আউয়াল, ১৪৪২ হিজরী

পিছিয়ে গেলেও লঙ্কা সফর হবে : আকরাম খান

পিছিয়ে গেলেও লঙ্কা সফর হবে : আকরাম খান

পাথেয় টোয়েন্টিফোর ডটকম : কোয়ারেনটাইন ইস্যুতে শ্রীলঙ্কান সরকারের অনড় সিদ্ধান্তে আগের সূচিতে টাইগারদের শ্রীলঙ্কা সফর হচ্ছে না এটা অনেকেই ইতোমধ্যে বুঝে ফেলেছেন। একই কারণে অনেকে আবার সিরিজটির সলিল সমাধিও দেখে ফেলেছিলেন। কিন্তু ভালো খবর হলো, শ্রীলঙ্কা ও বাংলাদেশের মধ্যকার তিন ম্যাচ সিরিজের টেস্ট হচ্ছে। তবে নির্ধারিত সময়ে নয়। প্রায় এক মাস পিছিয়ে যাচ্ছে। কেননা পুরোনো তারিখ বদলে নতুন তারিখ অনুযায়ী ডমিঙ্গো শিষ্যরা দেশ ছাড়বে অক্টোবরের দ্বিতীয় সপ্তাহে।

তাই যদি হয় তাহলে অবধারিতভাবেই ২৪ অক্টোবর থেকে টেস্ট শুরুর কোনো সম্ভাবনাই নেই। ন্যূনতম নভেম্বরের ১০ তারিখের আগে নয়। তাছাড়া যেহেতু লঙ্কান প্রিমিয়ার লিগ (এলপিএল) পিছিয়ে জানুয়ারিতে চলে গেছে সেহেতু নভেম্বর-ডিসেম্বরে এই সিরিজ অনুষ্ঠিত হলেও লঙ্কান ক্রিকেট বোর্ডের খুব একটা সমস্যা হওয়ার কথা নয়।

সিরিজ পিছিয়ে যাচ্ছে তা স্পষ্ট হয়েছিল গত বৃস্পতিবারই। যখন বিসিবির প্রধান চিকিৎসক দেবাশীষ চৌধুরী জানিয়ে দিলেন, সফরের ৭২ ঘণ্টা আগে টাইগারদের করোনা পরীক্ষাটি হচ্ছে না। কবে হবে সেটাও তিনি স্পষ্টত বলতে পারেননি। পরীক্ষা পিছিয়ে যাওয়া মানেই তো ভ্রমণের দিন তারিখ পিছিয়ে যাওয়া। আর ভ্রমণের দিন তারিখ পিছিয়ে যাওয়া মানে অবধারিত সিরিজ পিছিয়ে যাওয়া। কেননা লঙ্কান কোভিড-১৯ নিয়ন্ত্রণ টাস্কফোর্সের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী সফরকারীদের কোয়ারেনটাইনের সময়সীমা ১৪ দিনের একদিনও কমিয়ে আনা হবে না।

যা হোক সফরে ভ্রমণের আগের তারিখ অনুযায়ী আগামিকাল (২৭ সেপ্টেম্বর) শ্রীলঙ্কার বিমান ধরার কথা ছিল টিম বাংলাদেশের। সেটা হচ্ছে না। ভ্রমণের নতুন সম্ভাব্য তারিখ হিসেবে অক্টোবরের ৭ কি ১০ তারিখ জানিয়েছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের পরিচালনা বিভাগ।

শনিবার বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডে সভা শেষে সংবাদমাধ্যমকে এতথ্য দিলেন বিসিবির ক্রিকেট পরিচালনা বিভাগের চেয়ারম্যান আকরাম খান।

তিনি বললেন, ‘যেহেতু ট্যুর পেছাচ্ছে আমাদের যে তারিখে যাওয়ার কথা ছিল তা হচ্ছে না। আমাদের হাতে সময় আছে। শ্রীলঙ্কা থেকে সবশেষ আগের কথাই বলেছে। ওদের হাতে নেই। মন্ত্রণালয়ের ব্যাপার। স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় থেকে গতকালও আশা করেছিল ওরা কিছু পাবে। ওরা আশা করছে আগামি দুই দিনের মধ্যে ওরা জানতে পারবে।’

‘ওরা চেষ্ট করছে। ওরা চাচ্ছে যত তাড়াতাড়ি সম্ভব ট্যুরটা করতে। আমার মনে হয় ওরা ইতিবাচক আছে। শনি বা রবিবার ওদের বন্ধ। আশা করছি সোমবার বা মঙ্গলবার চূড়ান্ত কিছু চলে আসবে। যদি ইতিবাচক হয় আমরা আগামি মাসের ৭-১০ তারিখের মধ্যে যেতে পারি। যেহেতু ওদের যে শ্রীলঙ্কান টি-টোয়েন্টি হওয়ার কথা ছিল সেটা এখন নিশ্চিত না। অতএব ওদের কাছে সময় আছে।’ যোগ করেন আকরাম।

নিউজটি শেয়ার করুন

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার সম্পূর্ণ বেআইনি এবং শাস্তিযোগ্য অপরাধ
Design & Developed BY ThemesBazar.Com