মঙ্গলবার, ১০ ডিসেম্বর ২০১৯, ০১:৪৮ অপরাহ্ন

বন্দুক হামলা হলো শ্রীলঙ্কায় মুসলিম ভোটারদের বাসে

বন্দুক হামলা হলো শ্রীলঙ্কায় মুসলিম ভোটারদের বাসে

পাথেয় টোয়েন্টিফোর ডটকম : অমুসলিম দেশগুলোতে এমনিতেই মুসলমানরা আতঙ্কের মধ্যে থাকে। এবার শ্রীলঙ্কায় মুসলিম ভোটারদের বাসে মর্মান্তিক হামলা করেছে জঙ্গি বন্দুকধারীরা। শ্রীলঙ্কায় গত এপ্রিল মাসে ইস্টার সানডে-তে ভয়াবহ জঙ্গি হামলা চালানো হয়। আর ওই ঘটনার পর আজ শনিবার ভোট হচ্ছে দেশটিতে। আর সেই ভোটের দিনই ভোটারদের বাসে বন্দুক হামলা চালানো হয়েছে। ওই বাসে সে দেশের সংখ্যালঘু মুসলিম সম্প্রদায়ের ভোটাররা ছিলেন বলে জানা গেছে। তবে এখনো পর্যন্ত হতাহতের কোনও খবর মিলেনি।

পুলিশ জানিয়েছে, শনিবার সকালে ওই ঘটনা কলম্বোর তান্ত্রিমেল এলাকায় ঘটেছে। হামলাকারী রাস্তায় টায়ার জ্বালিয়ে ১০০টি বাসের কনভয়ে আটকানোর চেষ্টা করে। এরপরই গুলি চালাতে থাকে। দুটি বাসে একাধিক গুলি লেগেছে যদিও কেউ জখম হননি।

শ্রীলঙ্কার সাবেক প্রেসিডেন্ট মাইথ্রিপালা শিরিসেনা এবার ভোটে লড়ছেন না। ফলে মূল প্রতিদ্বন্দ্বিতা হচ্ছে ক্ষমতাসীন ইউনাইটেড ন্যাশনাল পার্টি (ইউএনপি)-এর সাজিথ প্রেমাদাসা এবং বিরোধী দল শ্রীলঙ্কা পিপলস ফ্রন্ট (এসএলপিপি)-এর গোটাবায়া রাজাপক্ষের মধ্যে। ক্ষমতাসীন দলের প্রার্থী সাজিথ প্রেমাদাসা দেশের প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী রানাসিংহ প্রেমাদাসার ছেলে। সংখ্যালঘু তামিল ও মুসলিম সম্প্রদায়ের কাছে তিনি জনপ্রিয়।

বিরোধী দলের প্রার্থী গোটাবায়ে রাজাপক্ষে প্রাক্তন প্রেসিডেন্ট মাহিন্দা রাজাপক্ষের ভাই। ভাইয়ের আমলে প্রতিরক্ষামন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করেছিলেন গোটাবায়ে রাজাপক্ষে। ২০০৯ সালে সংখ্যালঘু তামিল ও উগ্রপন্থী বৌদ্ধদের মধ্যে রক্তক্ষয়ী গৃহযুদ্ধ প্রশমনে তাঁর তাৎপর্যপূর্ণ ভূমিকা ছিল।

এই নির্বাচনি প্রচার শেষ হয়েছে বুধবার। শেষ মুহূর্তের প্রচারে নানা প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন প্রার্থীরা। জোর দিয়েছেন দেশের উন্নয়ন ও শক্তিশালী অর্থনীতি গড়ে তোলার ওপর। দেশের সুরক্ষা নিয়েও সরব হয়েছে দু-পক্ষই। যারমধ্যে জ্বলন্ত উদাহরণ সাম্প্রতিককালে চার্চে হামলা। যা নিয়ে উদ্বেগ এখনও কমেনি এশিয়ার এই দ্বীপ রাষ্ট্রে। এখন দেখার ভোটবাক্সে তা কতটা ফলপ্রসূ হয়।

নিউজটি শেয়ার করুন

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার সম্পূর্ণ বেআইনি এবং শাস্তিযোগ্য অপরাধ
Design & Developed BY ThemesBazar.Com