৫ই ডিসেম্বর, ২০২০ ইং , ২০শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ , ১৯শে রবিউস-সানি, ১৪৪২ হিজরী

বরখাস্ত হলেন ইরফান সেলিম

পাথেয় টোয়েন্টিফোর ডটকম : ঢাকা-৭ আসনের সংসদ সদস্য হাজী মোহাম্মদ সেলিমের ছেলে মোহাম্মদ ইরফানকে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ডিএসসিসি) ৩০ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলরের পদ থেকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে।

মঙ্গলবার (২৭ অক্টোবর) স্থানীয় সরকার বিভাগ থেকে তার বরখাস্ত আদেশ জারি করা হয়।

এর আগে দুপুরে সচিবালয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে স্থানীয় সরকারমন্ত্রী তাজুল ইসলাম বলেন, ‘আইন অনুসারে প্রথমে তাকে সাময়িক বরখাস্ত করা হবে। পরে স্থায়ীভাবে বরখাস্ত করা হবে।’

তিনি বলেন, যেহেতু বিচারাধীন বিষয় আছে সেহেতু আমাদের আইনগত বিষয়গুলো আজকে আমরা সম্পন্ন করতে পারব। সেটা হলো তাকে সাময়িকভাবে বরখাস্ত করা এবং এরপর পরবর্তী প্রক্রিয়া শুরু হবে।

দুপুরে স্থানীয় সরকার বিভাগের জ্যেষ্ঠ সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ সাংবাদিকদের বলেন, মোহাম্মদ ইরফানের দণ্ডিত হওয়ার রিপোর্ট দক্ষিণ সিটি করপোরেশন থেকে পেলে আমরা তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেব। আইনে (স্থানীয় সরকার সিটি করপোরেশন আইন) বলা হয়েছে, কেউ সাজাপ্রাপ্ত হলে তিনি বরখাস্ত হবেন।

বিকেলে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা আকরামুজ্জামান গণমাধ্যমে প্রকাশিত খবরের বরাত দিয়ে মোহাম্মদ ইরফানের দণ্ডিত হওয়ার বিষয়টি স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়কে অবগত করেন। এরপরই স্থানীয় সরকার বিভাগের উপসচিব আ.ন.ম. ফয়জুল হক ডিএসসিসির ওয়ার্ড কাউন্সিলরের পদ থেকে মোহাম্মদ ইরফানকে সাময়িক বরখাস্তের আদেশের প্রজ্ঞাপন জারি করেন।

প্রজ্ঞাপনে বলা হয়, ‘সিটি করপোরেশনের কোনো কাউন্সিলরের বিরুদ্ধে নৈতিক স্খলনজনিত অপরাধ এবং অসদাচরণের অভিযোগে স্থানীয় সরকার (সিটি করপোরেশন) আইন ২০০৯ এর ১২ ধারার উপধারা ১ অনুযায়ী অভিযুক্ত কাউন্সিলরকে সাময়িক বরখাস্তের বিধান আছে। এই ক্ষমতাবলে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের ৩০ নং সাধারণ ওয়ার্ডের নির্বাচিত কাউন্সিলর পদ হতে তাকে সাময়িক বরখাস্ত করা হলো।’

উল্লেখ্য, গত ২৫ অক্টোবর রাতে ধানমন্ডিতে ঢাকা-৭ আসনের এমপি হাজী মোহাম্মদ সেলিমের ‘সংসদ সদস্য’ লেখা সরকারি গাড়ি থেকে নেমে নৌবাহিনীর কর্মকর্তা ওয়াসিফ আহমেদ খানকে মারধর করা হয়। রাতে এ ঘটনায় জিডি হলেও পরদিন ২৬ অক্টোবর ভোরে হাজী সেলিমের ছেলেসহ ৭ জনের বিরুদ্ধে মামলা করেন ওয়াসিফ। ২৬ অক্টোবর সকালেই ইরফানকে গ্রেপ্তার করে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী। পরে আদালত তাকে দেড় বছরের কারাদণ্ড দেন।

/এএ

নিউজটি শেয়ার করুন

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার সম্পূর্ণ বেআইনি এবং শাস্তিযোগ্য অপরাধ
Design & Developed BY ThemesBazar.Com