৩রা ডিসেম্বর, ২০২০ ইং , ১৮ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ , ১৭ই রবিউস-সানি, ১৪৪২ হিজরী

বিশ্ব মিডিয়ায় ইসলামী আন্দোলন

বিশ্ব মিডিয়ায় ইসলামী আন্দোলন

মাওলানা আমিনুল ইসলাম : এবার স্বদেশ পেরিয়ে আন্তর্জাতিক মিডিয়ায় ঝড় তুললেন ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ তথা পীর সাহেব চরমোনাই ভক্তরা।বিশ্বের এমন কোন মিডিয়া বাকী নেই গতকালের ইসলামী আন্দোলনের নিউজ প্রকাশ করেনি। সারা বিশ্বের মিডিয়ায় জায়গা করে নিয়েছে, ইসলামী আন্দোলনের লক্ষাধিক লোকের মিছিলের নিউজ।

বড় গর্বের বিষয় আমাদের। একজন পীর যিনি খানকায় মানুষের ইসলাহে নফসের কাজ করেন, সেই ব্যক্তি আবার রাজনৈতিক ময়দানে বীরের বেশে। এজন্যই মানুষ বলে থাকে, খানকার পীর ময়দানের বীর, এর নাম চরমোনাইয়ের পীর।

খানকাতে তিনি যেমন একজন শীর্ষ পীর। এদেশে তাঁর লক্ষ লক্ষ মুরীদ- ভক্তবৃন্দ রয়েছে। তদ্রুপ ময়দানে রয়েছে তাঁর লক্ষ লক্ষ কর্মি। যখনই তিনি কোন কর্মসুচিতে আহ্বান করেন, হাজির হয়ে যায় লাখো জনতা।

শুধু খানকা কেন্দ্রীক নয় চরমোনাই এর পীর। খানকাতে বসে থাকেন না। বরং তিনি দেশের আনাচে – কানাচে চষে বেড়ান মানুষের ইসলাহের কাজে, মানুষকে সহী রাস্তায় আহবান করেন। পাশাপাশি তিনি ময়দানে বাতিলের বিরুদ্ধে গর্জে ওঠেন।

দেশে পীরের সংখ্যা কম নয়। খানকাও আছে বেশুমার। কিন্তু ক’জন পীর আছেন সচেতন। ক’জন পীর ময়দানে নেমে হক কথা বলেন। সবই তো আছে নিজের স্বার্থ রক্ষায়। নিজের আখের গোছানোর কাজে।

অথচ আজ দেশ আন্তর্জাতিক অঙ্গনের কি হালাত। ইসলামের উপর নগ্ন হামলা করে যাচ্ছে ইসলাম বিরোধী শক্তিগুলো। কিন্তু ওসব খানকার গন্ডির মধ্যে থাকা পীরেরা তারা যেন মুখে কুলুপ এঁটে রেখেছেন। ওদের চোখ যেন অন্ধ! ওরা যেন বধীর! কোনদিন মুখ দিয়ে হক কথা বলেন না।

আলহামদুলিল্লাহ, চরমোনাই এর পীর সাহেব একজন বীর মুজাহিদ। যিনি বাতিল শক্তির বিরুদ্ধে হুঙ্কার ছাড়েন। ইসলাম বিরোধী শক্তির বিরুদ্ধে ময়দানে নেমে লড়াই করেন। তিনি চলছেন পুরো আমাদের আকাবির- আছলাফের বাতলানো রাস্তায়। আমাদের পুর্বসুরীগণ যেভাবে চলেছেন,ঠিক সেই রাস্তায় এগিয়ে যাচ্ছে চরমোনাই এর সংগঠন। আল্লাহ তায়ালা এ সংগঠনকে কবুল করুন। আমিন।
লেখক : কওমি মাদরাসা শিক্ষক

নিউজটি শেয়ার করুন

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার সম্পূর্ণ বেআইনি এবং শাস্তিযোগ্য অপরাধ
Design & Developed BY ThemesBazar.Com