১৩ই জুন, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ , ৩০শে জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ , ২রা জিলকদ, ১৪৪২ হিজরি

ভারতে এক মাসে কাজ হারিয়েছে দেড় কোটি মানুষ

পাথেয় টোয়েন্টিফোর ডটকম : করোনাভাইরাসের প্রথম ধাক্কা সামাল দিতে ২০২০ সালে লকডাউনের পথে হেঁটেছিল ভারতের কেন্দ্রীয় সরকার। সেই পর্বে বহু মানুষ কাজ খোয়ানোর সাক্ষী ছিল সে দেশে। ২০২০ সালের এপ্রিল ও মে মাসে বেকারত্বের হার ছাড়িয়েছিল ২০ শতাংশ। বর্তমানে করোনা মহামারির দ্বিতীয় ধাক্কায় আবারো সেই হার ঊর্ধ্বমুখী।

উপদেষ্টা সংস্থা সিএমআইই-র পরিসংখ্যান অনুযায়ী, গত মাসে সারা ভারতে বেকারত্বের হার ১১.৯ শতাংশ। শহরে এবং গ্রামে তা যথাক্রমে ১৪.৭৩ শতাংশ এবং ১০.৬৩ শতাংশ।

বিশেষজ্ঞদের মতে, করোনাভাইরাসের দ্বিতীয় ঝড় আটকাতে সম্প্রতি স্থানীয় বিধিনিষেধ এবং লকডাউনের মতো কড়াকড়ির পথে হেঁটেছে রাজ্যগুলো। ফলে আবারো মাথা তুলেছে বেকারত্ব। তাদের ব্যাখ্যা, মে মাসের মাঝামাঝি ভারতে ১০ শতাংশ ছাপিয়ে যায় বেকারত্বের হার। বিশেষ করে শহরগুলোতে তা বেড়ে চলেছে ধারাবাহিকভাবে।

যার সামগ্রিক প্রতিফলন হিসেবে ক্রমশ বিবর্ণ হচ্ছে কাজের বাজারের ছবি। সিএমআইই-র কর্মকর্তা মহেশ ব্যাস বলেন, ভারতে কাজের সংখ্যা এপ্রিলের ৩৯.০৮ কোটি থেকে কমে মে মাসে ৩৭.৫৫ কোটি হয়েছে।

মাত্র এক মাসে কাজ হারিয়েছেন প্রায় দেড় কোটি মানুষ! যা বেকারত্বের হারকে ৩.৯ শতাংশ বাড়িয়েছে। এই পরিস্থিতি গত বছরের এপ্রিলের ধারেপাশে না-হলেও, কাজ কমার পরিসংখ্যানের নিরিখে রয়েছে তার পরেই। জানুয়ারি থেকে ভারতে খোয়া গেল প্রায় ২.৫৩ কোটি কাজ।

সূত্র: আনন্দবাজার

শেয়ার করুন


সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ১৯৮৬ - ২০২১ মাসিক পাথেয় (রেজিঃ ডি.এ. ৬৭৫) | patheo24.com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com