মঙ্গলবার, ২২ অক্টোবর ২০১৯, ০৮:৩০ অপরাহ্ন

মুসলিম উম্মাহর শান্তি কামনায় ময়মনসিংহ ইসলাহী ইজতেমায় আখেরি মোনাজাত

মুসলিম উম্মাহর শান্তি কামনায় ময়মনসিংহ ইসলাহী ইজতেমায় আখেরি মোনাজাত

পাথেয় রিপোর্ট :  দেশের কল্যাণ, বিশ্বের মুসলিম উম্মাহর মধ্যে সুদৃঢ় ঐক্য এবং দুনিয়া ও আখিরাতের শান্তি কামনার মধ্য দিয়ে শেষ হলো বাংলাদেশ জমিয়তুল উলামার ময়মনসিংহ উদ্যোগে আয়োজিত তিনব্যাপি ইসলাহী ইজতেমা। 

মঙ্গলবার (১৭ সেপ্টেম্বর) সকাল ৯টায় ময়মনসিংহ জামিয়া আশরাফিয়া খাগডহর মাদরাসা মিলনায়তনে ইসলাহী ইজতেমার আখেরি মোনাজাত পরিচালনা করেন বাংলাদেশ জমিয়তুল উলামার চেয়ারম্যান, শোলাকিয়া ঈদগাহের গ্র্যান্ড ইমাম, মাওলানা সাইয়্যিদ আসআদ মাদানী রহ.-এর খলীফা, শাইখুল হাদীস আল্লামা ফরীদ উদ্দীন মাসঊদ। 

মোনাজাতে দুই হাত তুলে মহান আল্লাহর দরবারে ফরিয়াদ জানান হাজারও মুসল্লি। আল্লাহর সন্তুষ্টি লাভ, আত্মশুদ্ধি, গুনাহ মাফ, বালা-মুসিবত থেকে হেফাজত ও রহমত প্রার্থনায় চোখের পানি ফেলেন মুসল্লিরা। মোনাজাতে অংশ নিতে মঙ্গলবার ভোর থেকেই  মুসল্লিরা বিভিন্ন যান ও পায়ে হেঁটে ইজতেমা মিলনায়তনে পৌঁছান।

মোনাজাতের আগ মূর্হতে ইসলামী ইজতেমার শেষ বয়ানে আল্লামা ফরীদ উদ্দীন মাসঊদ বলেন, আমাদের এই ইসলাহী ইজতেমা ও ইসলাহী সফরের একমাত্র উদ্দেশ্য আমরা আল্লাহকে পেতে চাই। আমরা আশা করছি, আল্লাহ আমাদের ইজতেমা কবুল করে নিবেন। আমাদেরকে তাঁর প্রিয় বান্দাদের কাতারে শামিল করে নিবেন। 

পৃথিবীর সবচেয়ে মধুর শব্দ ‘আল্লাহ ও তাঁর নামের জিকির’ উল্লেখ করে বাংলাদেশ জমিয়তুল উলামার চেয়ারম্যান বলেন, আল্লাহ নামের জিকিরের স্বাদ, আল্লাহ নামের স্বাদ কখনো কমে না, বরং যত বেশি বেশি করবে ততো স্বাদ বৃদ্ধি পাবে। আল্লার নামের জিকিরে কখনো বিরক্তিও আসে না। যে ব্যক্তি যত বেশি জিকির করবে সে আল্লাহর কাছে ততো প্রিয় হতে থাকবে। দুনিয়া ও আখেরাতে আল্লাহ ও আল্লাহর নামের জিকিরের চাইতে মধুর কোন শব্দ নেই।

বেশি বেশি দূরুদ শরীফ পড়ার আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, দরুদ শরীফ গুরুত্বপূর্ণ একটি আমল। এ আমলের মাধ্যমে একসঙ্গে আল্লাহ ও তাঁর রাসূলের সন্তুষ্টি পাওয়া যায়। এটি মুমিনের আত্মার খোরাক এবং প্রিয় তাসবিহ। আমাদের পেয়ারে নবীজী হযরত মুহাম্মদ রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামকে ভালোবাসার শ্রেষ্ঠ নিদর্শন তাঁর উপর দুরূদ প্রেরণ করা। 

মোনাজাতসহ আগ মূহুর্তে আল্লামা মাসঊদ বলেন, কান্নাই একমাত্র মোনাজাতের ভাষা। মোনাজাতে শিশুর মত কান্না করতে হয়। শিশুর মত চাইতে হয়। আর আল্লাহর ভয়ে চোখ থেকে ঝরে পড়া এক ফোঁটা অশ্রুরই হাশরের ময়দানে নাজাতের কারণ হতে পারে। 

তিনি বলেন, আমাদের হৃদয় পাথরের চেয়েও শক্ত হয়ে গেছে। আমরা কাঁদতে ভুলে গেছি। কবর, কিয়ামত, হাশর, জাহান্নামের ভয়ে এখন আমাদের চোখ থেকে অশ্রু ঝরে না। অথচ আল্লাহর ভয়ে চোখ থেকে অশ্রু ঝরানো মুমিনের আলামত। 

ইজতেমা শেষে বাড়িতে গিয়ে ইসলাহী ইজতেমার আমলগুলোর প্রতি যত্নবান থাকা কথা উল্লেখ করে আল্লামা মাসঊদ আগত মুসল্লীদের উদ্দেশে বলেন, ভাই! আমরা এখানে যেসব আমল করেছি, সেসব আমল যেন বাড়িতে গিয়ে ভুলে না যাই। আমাদের এই আমলগুলো যেন অভ্যাহত থাকে। আমরা এই আমলগুলো পরিবারের সবাইকে নিয়ে সবসময় করার চেষ্টা করবো। এই প্রতিজ্ঞা করি এখানে বসে থাকতেই। 

নিউজটি শেয়ার করুন

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার সম্পূর্ণ বেআইনি এবং শাস্তিযোগ্য অপরাধ
Design & Developed BY ThemesBazar.Com