৪ঠা ডিসেম্বর, ২০২০ ইং , ১৯শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ , ১৮ই রবিউস-সানি, ১৪৪২ হিজরী

মেঘ কাটলেই জাকিয়ে নামবে শীত

পাথেয় টোয়েন্টিফোর ডটকম : অগ্রহায়নের এই সময়ে সুর্যের দেখা মিলছে না গত কয়েকদিন ধরেই। মেঘলা আকাশ। সঙ্গে পড়ছে গুঁড়ি গুঁড়ি বৃষ্টিও। ফলে হালকা শীতও অনুভূত হচ্ছে। আবহাওয়াবিদদের ভাষ্য, রোববার (২২ নভেম্বর) থেকে দিনে সূর্যের দেখা যাবে এবং তাপমাত্রাও বাড়বে। আর রাতে শীত পড়বে।

লঘুচাপের প্রভাবে চলমান হালকা মেঘ-বৃষ্টি কেটে গেলেই শীত বাড়ার পাশাপাশি কুয়াশার দাপট দেখা দেবে বলে আভাস দিয়েছে আবহাওয়া অফিস।

আবহাওয়া অফিস জানিয়েছে, মৌসুমের স্বাভাবিক লঘুচাপ দক্ষিণ পশ্চিম বঙ্গোপসাগরে অবস্থান করছে। এর বর্ধিতাংশ উত্তর পূর্ব বঙ্গোপসাগর পর্যন্ত বিস্তৃত রয়েছে।

শনিবার (২১ নভেম্বর) আবহাওয়াবিদ আবদুল মান্নান গণমাধ্যমকে বলেন, আজ কুয়াশার সঙ্গে বৃষ্টিও ছিল। এ কারণে দিনের বেলা তাপমাত্রা কিছুটা কম ছিল। কিন্তু আগামীকালও দেশের দক্ষিণাঞ্চলের কিছু কিছু এলাকায় বৃষ্টি হবে। তবে রোদও দেখা যেতে পারে। ফলে দিনে তাপমাত্রা কিছুটা বাড়বে আর রাতে শীত পড়বে।

শনিবার (২১ নভেম্বর) সকাল ৯টায় আবহাওয়া অধিদফতরের পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, আগামী ২৪ ঘণ্টা খুলনা, রাজশাহী, ঢাকা ও চট্টগ্রাম বিভাগের দু-এক জায়গায় বৃষ্টি অথবা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। তবে দেশের অন্যান্য অঞ্চল আংশিক মেঘাচ্ছন্ন থাকলেও আবহাওয়া শুষ্ক থাকতে পারে। একইসঙ্গে মধ্যরাত থেকে সকাল পর্যন্ত দেশের কোথাও কোথাও হালকা থেকে মাঝারি ধরনের কুয়াশা পড়তে পারে। আগামী তিনদিন রাতের তাপমাত্রা ক্রমান্বয়ে কমতে পারে।

গত ২৪ ঘণ্টায় ঢাকা, খুলনা, বরিশালের কিছু স্থানে হালকা বৃষ্টি রেকর্ড হয়েছে। এ সময় ঢাকায় তিন মিলিমিটার ও ফরিদপুরে ২৯ মিলিমিটার বৃষ্টি হয়েছে।

দেশের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল চট্টগ্রাম ও যশোরে ৩২ ডিগ্রি সেলসিয়াস; সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল তেতুঁলিয়ায় ১৫ দশমিক ৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

/এএ

নিউজটি শেয়ার করুন

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার সম্পূর্ণ বেআইনি এবং শাস্তিযোগ্য অপরাধ
Design & Developed BY ThemesBazar.Com