২২শে ফেব্রুয়ারি, ২০২০ ইং , ১০ই ফাল্গুন, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ , ২৮শে জমাদিউস-সানি, ১৪৪১ হিজরী

যুব বিশ্বকাপ ক্রিকেটে টাইগারদের সাফল্য

যুব বিশ্বকাপ ক্রিকেটে টাইগারদের সাফল্য

পাথেয় টোয়েন্টিফোর ডটকম : দিন দিন উন্নতি করছে টাইগাররা। আগের সেই দিন নেই বাংলাদেশের দামাল ছেলেদের। এবার বিশ্বকাপের ফাইনালে উঠেছে বাংলাদেশের অনূর্ধ্ব-১৯ যুব ক্রিকেট দল। অনেকটা হেসে খেলেই নিউজিল্যান্ড হারিয়ে দিয়ে ফাইনালে নিজেদের শক্তিশালী প্রতিদ্বন্দ্বী হিসেবে জানান দিয়েছে। এটা গোটা বাংলাদেশকেই নতুন করে আন্দোলিত করেছে।

মাহমুদুল হাসান জয় দেশের জন্য যে সেঞ্চুরি হাঁকিয়েছেন তা সহজে কেউ ভুলবে না। দক্ষিণ আফ্রিকার পচেফস্ট্রুমের সেমিফাইনালে তারা শক্তিশালী নিউজিল্যান্ডকে হারিয়েছে ৬ উইকেটে তাও ৩৫ বল হাতে রেখে। দেশের অনূর্ধ্ব-১৯ ক্রিকেট দলের এটি এযাবৎকালের সেরা অর্জন। বলা যায়, সাফল্যের নতুন ইতিহাস গড়তে সমর্থ হয়েছে বাংলাদেশের যুবারা। ২০১৬ সালে ঘরের মাঠে অনুষ্ঠিত অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপে শক্তিশালী দল নিয়ে সেমিফাইনালে উঠেছিল মেহেদি হাসান মিরাজের দল। সেটাই ছিল যুব বিশ্বকাপে বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় অর্জন। কিন্তু এবার তা ছাপিয়ে আকবর আলীর নেতৃত্বাধীন বাংলাদেশের চোখ এখন শিরোপায়। বৃহস্পতিবার প্রথমে ব্যাট করে নিউজিল্যান্ড ৮ উইকেটে করে ২১১ রান। বাংলাদেশ ৬ ওভার আগেই ৬ উইকেট হাতে রেখে জিতে যায়। সেঞ্চুরি ও দুর্দান্ত এক ক্যাচ নিয়ে ম্যাচের ভাগ্য নিজেদের দিকে নিয়েছেন মাহমুদুল হাসান জয়। তিনি কাঁটায় কাঁটায় করেছেন ১০০ রান। তার ১২৭ বলের অনবদ্য ইনিংসটি ছিল ১৩টি বাউন্ডারিতে সাজানো।

সেমিফাইনাল নিউজিল্যান্ডের দেওয়া ২১২ রানের সহজ টার্গেটে ব্যাট করতে নেমে ৩২ রানেই দুই ওপেনার বিদায় নেন। তখন মনে হচ্ছিল কঠিন লড়াইয়ের মুখে পড়ছে তরুণ টাইগাররা। কিন্তু তৃতীয় উইকেটে তৌহিদ হৃদয়কে নিয়ে ৬৮ রানের জুটি গড়েন মাহমুদুল। চতুর্থ উইকেটে শাহাদতের সঙ্গে আরেকটি ১০১ রানের জুটি গড়ে দলকে জয়ের পথে নিয়ে যান তিনি। তৌহিদ ও শাহাদত উভয়েই ৪০ করে রান করেছেন। নিউজিল্যান্ডের ব্যাটিংয়ের প্রথম দিকে যুবা টাইগাররা এমনভাবে প্রতিপক্ষকে চেপে ধরেছিল মনে হচ্ছিল দেড় শ রান হবে না তাদের। বাংলাদেশের যুব ক্রিকেট দলের এ সাফল্যকে আশার আলো হিসেবে দেখা হচ্ছে। বাংলাদেশের ক্রিকেট যে উজ্জ্বল ভবিষ্যতের দিকে এগিয়ে যাচ্ছে বিদেশের মাটিতে যুব ক্রিকেটের ফাইনালে ওঠা তারই প্রমাণ। ফাইনালে রোববার বাংলাদেশ প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবে ভারতের বিরুদ্ধে। সে খেলায় যুব টাইগাররা লড়বে অসীম দুঃসাহস নিয়ে।

জিতলে বাংলাদেশের অনূর্ধ্ব-১৯ দল নিজেদের উন্নীত করবে নতুন উচ্চতায়। উপমহাদেশের দেশগুলোর বদনাম- তারা ঘরের মাঠে বাঘ-সিংহের মতো গর্জন করলেও বিদেশের মাটিতে চুপসে যায়। দক্ষিণ আফ্রিকার মাঠে দাপটের সঙ্গে বাংলাদেশের যুবাদের শিরোপার লড়াইয়ে অংশ নেওয়ার যোগ্যতা প্রমাণ করেছে যুব টাইগাররা সে ধারা অতিক্রম করার সাহসে বলীয়ান হয়ে উঠেছে। আমরাও শুভ কামনা জানাই, লড়াই করো, জিতো, দেশের মান রেখো।

নিউজটি শেয়ার করুন

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার সম্পূর্ণ বেআইনি এবং শাস্তিযোগ্য অপরাধ
Design & Developed BY ThemesBazar.Com