২৯শে অক্টোবর, ২০২০ ইং , ১৩ই কার্তিক, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ , ১১ই রবিউল-আউয়াল, ১৪৪২ হিজরী

রক্তের অক্ষরে লেখা বাংলাদেশ-ভারতের সম্পর্ক : তথ্যমন্ত্রী

পাথেয় টোয়েন্টিফোর ডটকম : বাংলাদেশ-ভারতের সম্পর্ক সুগভীর, বহুমাত্রিক ও রক্তের অক্ষরে লেখা বলে জানিয়েছেন তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ।

তিনি বলেন, এ সম্পর্কের সাথে অন্য কোনো দেশের সম্পর্কের তুলনা চলে না। কারণ বাংলাদেশের মহান মুক্তিযুদ্ধে ভারতের সৈন্যরা রক্ত দিয়েছেন। এক কোটি মানুষকে ভারত সরকার আশ্রয় দিয়েছে। বাংলাদেশ যতদিন থাকবে, ততদিন এই ইতিহাসের পাতায় এটি লিপিবদ্ধ থাকবে।

মঙ্গলবার (১৩ অক্টোবর) সচিবালয়ে তথ্য মন্ত্রণালয়ে বাংলাদেশে নবনিযুক্ত ভারতের হাইকমিশনার বিক্রম দোরাইস্বামীর সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ শেষে সাংবাদিকদের তিনি একথা বলেন। তথ্যসচিব কামরুন নাহার ও মন্ত্রীর দপ্তরের কর্মকর্তাবৃন্দ এসময় উপস্থিত ছিলেন।

তথ্যমন্ত্রী বলেন, ভারতের নবনিযুক্ত হাইকমিশনের সঙ্গে এটি একটি সৌজন্য সাক্ষাৎ ছিল। আমরা অনেকগুলো বিষয় নিয়ে আলোচনা করেছি। যেমন বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে ফিল্ম যেটা নির্মিত হচ্ছে সেটা নিয়ে আলোচনা করেছি। মুজিববর্ষের মধ্যেই যাতে শেষ করা যায় সে পরিকল্পনা নেওয়া হচ্ছে। আরেকটি হচ্ছে মুক্তিযুদ্ধের ওপর একটি ডকুমেন্টারি হচ্ছে সেটি নিয়েও আমরা কাজ করছি। সেখানে পরিচালক বাংলাদেশের হবে এবং কো- ডিরেক্টর হবে ভারতের।

তিনি আরো বলেন, ভারতের বিভিন্ন রাজ্যে বাংলাদেশের প্রাইভেট টেলিভিশনগুলো দেখা যায়। বিশেষ করে ত্রিপুরা ও মেঘালয়ে দেখা যায়। তবে সমস্যা হচ্ছে পশ্চিমবাংলায়। সেখানে আমাদের দু’একটি বাদে বেশিরভাগ টেলিভিশন চ্যালেনগুলো দেখা যায় না। সেখানে কিভাবে বেসরকারি টেলিভিশন চ্যালেনগুলো দেখানোর ব্যবস্থা করা যায় সেটা নিয়ে আলোচনা করা হয়েছে। এ ক্ষেত্রে কেন্দ্রীয় সরকারের কোনো বাধা নেই। পাশাপাশি পশ্চিমবাংলা সরকারও বলে তাদের পক্ষ থেকে কোনো বাধা নেই। কিন্তু সেখানে কিছু সমস্যা অবশ্যই আছে। সেগুলো কীভাবে সমাধান করা যায় সে বিষয়ে আলোচনা হয়েছে।

হাছান মাহমুদ বলেন, চট্টগ্রাম ও মোংলাবন্দর ব্যবহার করে উভয় দেশ উপকৃত হয়। বিশেষ করে ভারতের পূর্বাঞ্চলের রাজ্যগুলো চট্টগ্রাম বন্দর দ্রুত ব্যবহার করতে পারে। সেখানে সড়ক ও রেল যোগাযোগ ব্যবস্থা পুনরায় চালুর কাজ চলছে। সেগুলো যেন দ্রুত সম্পন্ন হয় তা নিয়ে আলোচনা করেছি।

/এএ

নিউজটি শেয়ার করুন

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার সম্পূর্ণ বেআইনি এবং শাস্তিযোগ্য অপরাধ
Design & Developed BY ThemesBazar.Com