২রা ডিসেম্বর, ২০২০ ইং , ১৭ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ , ১৬ই রবিউস-সানি, ১৪৪২ হিজরী

রাতে হোয়াইট হাউসে পার্টি দিচ্ছেন ট্রাম্প

পাথেয় টোয়েন্টিফোর ডটকম : মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের জন্য খুব বেশি সময় অপেক্ষা করতে হচ্ছে না। আর কয়েক ঘণ্টা পরেই ভোট দিতে শুরু করবেন আমেরিকান ভোটাররা। এখন যুক্তরাষ্ট্রের নির্বাচনের দিকেই তাকিয়ে আছে পুরো বিশ্ব।

তবে এবারের নির্বাচন আগের সব নির্বাচনের চেয়ে কিছুটা ভিন্ন। সাম্প্রতিক সময়ে করোনা মহামারি পরিস্থিতির কারণে দেশটিতে অনেকেই ডাকযোগে ভোট দিয়েছেন। ইউএস ইলেকশনস প্রজেক্ট বলছে, ছয় কোটি মার্কিন ভোটার এবার ডাকযোগে ভোট দিয়েছেন; যা অন্যান্যবারের চেয়ে অনেক বেশি। ডাকযোগে ভোটদান সম্পর্কে রিপাবলিকান প্রার্থী ও বর্তমান প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের অসন্তুষ্টি থাকলেও মহামারির পরিস্থিতিতে তা এড়ানো যায়নি।

করোনা সংকটের কারণে যেখানে সবকিছুতেই সীমাবদ্ধতা রাখা হয়েছে সেখানে কোনো বিধি-নিষেধের তোয়াক্কা না করেই প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের রাতে অর্থাৎ স্থানীয় সময় সোমবার রাতের বেলা এক পার্টির আয়োজন করেছেন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প।

২০১৬ সালের নির্বাচনের পর হোয়াইট হাউসের দায়িত্ব গ্রহণের পর থেকে গত চার বছর ধরেই নানা ধরনের বিতর্কিত কাজের জন্য সমালোচিত হয়েছেন এই মার্কিন প্রেসিডেন্ট। দ্বিতীয়বার নির্বাচনে অংশ নিয়েও কম বিতর্কের জন্ম দেননি তিনি।

বিভিন্ন সময় বেফাঁস মন্তব্য আর ভুলভাল তথ্য উপস্থাপন এবং নানা ধরনের বিধি-নিষেধ ভঙ্গ করে সমালোচনা পাত্র হয়েছেন ট্রাম্প। এবারের নির্বাচনে তিনি জয়ী হবেন কিনা সেটা এখনও নিশ্চিত নয়। অথচ তার আগেই হোয়াইট হাউসে পার্টির আয়োজন করে বসে আছেন এই মার্কিন প্রেসিডেন্ট।

রয়টার্স এবং নিউইয়র্ক টাইমস জানিয়েছে, ওই পার্টিতে ৪শ মানুষকে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে। ট্রাম্প ইন্টারন্যাশনাল হোটেলে ওই পার্টি হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু করোনাভাইরাসের কারণে বিভিন্ন বিধি-নিষেধের ফলে তা হোয়াইট হাউসের ইস্ট রুমে আয়োজন করা হয়েছে।

ট্রাম্প ইন্টারন্যাশনাল হোটেল ওয়াশিংটন ডিসিতে অবস্থিত। কোভিড-১৯ ভাইরাসের কারণে ওয়াশিংটনে অভ্যন্তরীণ কোনো পার্টি বা অনুষ্ঠানে ৫০ জনের বেশি মানুষের সমবেত হওয়ার ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ রয়েছে। সে কারণেই নিজের হোটেলে এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করতে পারেননি ট্রাম্প।

হোয়াইট হাউসের এক কর্মকর্তার বরাত দিয়ে নিউইয়র্ক টাইমস জানিয়েছে, হোয়াইট হাউসের ইস্ট রুমে নির্বাচনের রাতে উৎসবের প্রস্তুতি নিচ্ছেন ট্রাম্প। এ অনুষ্ঠানে আমন্ত্রণ জানানো হতে পারে ৪শ জনের মতো অতিথিকে।

এর আগে গত ২৬ সেপ্টেম্বর সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতি হিসেবে অ্যামি কোনি ব্যারেটকে মনোনয়ন দেওয়ার জন্য হোয়াইট হাউসে একটি অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। সেখানে সমবেত হওয়া বেশ কয়েকজনের পরবর্তীতে করোনা পজিটিভ ধরা পড়ে।

এমনকি প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প, মার্কিন ফার্স্ট লেডি মেলানিয়া ট্রাম্প এবং তাদের ছেলেও করোনায় আক্রান্ত হন। মার্কিন স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞ ডা. অ্যান্থনি ফাউসি ওই আয়োজনের সমালোচনা করে একে ‌‌‌‌’সুপার স্প্রেডার’ বলে উল্লেখ করেছিলেন।

এদিকে, প্রতিবার মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের ফল স্পষ্ট হতে শুরু করে ভোটগ্রহণের রাত থেকেই। পরের দিন পরাজিত পক্ষের বক্তব্যের মাধ্যমেই শিলমোহর পড়ে জনগণের রায়ে। কিন্তু করোনা সংকটের কারণে এবার অনেক কিছুই বদলে গেছে।

এবার ডাকযোগে বিপুল আগাম ভোট পড়ায় বেশ কয়েকটি রাজ্য ৩ নভেম্বর নির্বাচন শেষে ভোট গণনা শুরু করবে। কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ রাজ্য ভোট গণনা শুরু করবে ৩ নভেম্বরেরও পরে। নির্বাচনের চূড়ান্ত ফল পেতে তাই কয়েক দিন লেগে যেতে পারে।

কিন্তু ট্রাম্প চান নির্বাচনের রাতেই নিজেকে বিজয়ী ঘোষণা করতে। নির্বাচনে ‘এগিয়ে থাকার’ আভাস পেলেই নিজেকে বিজয়ী ঘোষণার কথা বলেছেন এই মার্কিন প্রেসিডেন্ট। সেটা বৈধ করারও পাঁয়তারা করছেন তিনি।

যদিও অধিকাংশ সমীক্ষায় ডেমোক্র্যাট প্রার্থী জো বাইডেন এগিয়ে আছেন। এমনকি ২০০৮ সালের পর কোনো প্রেসিডেন্ট প্রার্থীকে এতটা শক্তিশালী দেখায়নি। কিন্তু সমীক্ষাকে ‘ভুয়া’ বলে ট্রাম্প হুংকার দিয়ে চলেছেন। ব্যাটলগ্রাউন্ড হিসেবে পরিচিত দোদুল্যমান রাজ্যগুলোতেও বাইডেন কিছুটা এগিয়ে থাকলেও নির্বাচনে দুই প্রার্থীর মধ্যে হাড্ডাহাড্ডি লড়াইয়ের আভাসই পাওয়া যাচ্ছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার সম্পূর্ণ বেআইনি এবং শাস্তিযোগ্য অপরাধ
Design & Developed BY ThemesBazar.Com