২১শে এপ্রিল, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ , ৮ই বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ , ৮ই রমজান, ১৪৪২ হিজরি

শীলনের ১১৭তম সাহিত্যসভা অনুষ্ঠিত

শীলনের ১১৭তম সাহিত্যসভা অনুষ্ঠিত

পাথেয় টোয়েন্টিফোর ডটকম : আল্লাহর অশেষ মেহের বাণীতে শীলন বাংলাদেশ-এর ১১৭তম সাহিত্যসভা ও কবিতাসন্ধ্যা অনুষ্ঠিত হয়েছে। ঢাকার মারকাযুল মাআরিফ আল ইসলামিয়া-এর প্রিন্সিপাল মুফতি আবু বকর সাদির সভাপতিত্বে গল্পকার আবুদ্দারদা আব্দুল্লাহর পরিচালনায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন প্রধান অতিথি বিশিষ্ট সমাজসেবক জনাব মোহাম্মদ হোসেন খান, বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন জনাব সালাহউদ্দিন, মুফতী সানাউল্লাহ প্রমুখ।

প্রধান অতিথি হোসেন খান বলেন, আমার জানাই ছিলো না মাদরাসার শিক্ষার্থীরা অতটা দারুণ করে সাহিত্য চর্চা করতে পারে। যেকোনো ভালো চিন্তা ও উদ্যোগকে আমি স্বাগত জানাই। সাহিত্যচর্চার মাধ্যমে নিজেকে গঠনের সুযোগ রয়েছে। আপনারা এগিয়ে যান।

সভাপতির আলোচনায় নিজের অতীত ঘেঁটে মুফতী আবুবকর সাদী শীলন বাংলাদেশ নিয়ে অভিজ্ঞতা শেয়ার করেন।
তিনি বলেন, দেশে লেখক তৈরিতে শীলন অবদান রেখেছে। সামনের দিনগুলোতে শীলন আরও ভালো ভালো কাজ করবে বলে আমি আশাবাদি।

উপস্থিত লেখকদের উদ্দেশ্যে শীলন বাংলাদেশ প্রেসিডেন্ট মাসউদুল কাদির বলেন, মাদরাসাপড়ুয়ারা সাহিত্য ও সাংবাদিকতার কাজে আর পিছিয়ে নেই-এটা প্রমাণিত। দেশের মিডিয়াগজতের সর্বত্র কওমি সন্তানরা নিজেদের যোগ্যতার প্রমাণ দিয়ে চলেছেন। নতুনরা আরও যোগ্য হয়ে ওঠে আসবে ইনশাআল্লাহ।

তিনি বলেন, শীলন ধারাবাহিকভাবে কাজ করছে। শীলনের কার্যক্রমের সময় দুই দশক হতে চললো। এ পর্যন্ত শীলন শত শত লেখক-সাংবাদিক তৈরিতে সক্ষমতা দেখিয়েছে। ইনশাআল্লাহ সামনের দিনগুলোতেও শীলনের ধারা অব্যাহত থাকবে।
১১৭তম সাহিত্যসভায় উপস্থিত ছিলেন, ছড়াকার শরিফ হাসানাত, আবুদ্দারদা আবদুল্লাহ, আহমাদ সিরাজী, মুফতি মোবারক উল্লাহ, আতাউর রহমান খানপ্রমুখ।

শুক্রবার (১৫ জানুয়ারি ২০২১) সন্ধ্যায় রাজধানীর তেজগাঁওয়ে মারকাযুল মাআরিফ মিলনায়তনে কবিতা সন্ধ্যায় আলোচকগণ এসব কথা বলেন।

মুফতী সানাউল্লাহর মোনাজাতের মাধ্যমে অনুষ্ঠানটি শেষ হয়।

শেয়ার করুন


সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ১৯৮৬ - ২০২১ মাসিক পাথেয় (রেজিঃ ডি.এ. ৬৭৫) | patheo24.com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com