১৪ই জুন, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ , ৩১শে জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ , ৩রা জিলকদ, ১৪৪২ হিজরি

‘শোলাকিয়ায় হামলা মওলানা মাসউদকে হত্যার উদ্দেশে’

কিশোরগঞ্জ প্রতিনিধি ● কিশোরগঞ্জের শোলাকিয়ায় দেশের বৃহত্তম ঈদের জামাতের ইমাম মওলানা ফরীদ উদ্দীন মাসউদকে হত্যার পরিল্পনা ছিল বলে আদালতে নব্য জেএমবি সংগঠক ‘রাজীব গান্ধীর’ স্বীকারোক্তি দেওয়ার কথা জানিয়েছে পুলিশ।

গত বছরের ৭ জুলাই ঈদ জামাতের আগে শোলাকিয়া ঈদগাহের অদূরে আজিমুদ্দিন স্কুলের পাশে পুলিশ সদস্যদের ওপর আত্মঘাতী হামলা চালায় জঙ্গিরা। এ ঘটনায় চারজনের মৃত্যু হয়।

কিশোরগঞ্জ সদর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মো. মুর্শেদ জামান জানান, রাজীব গান্ধি (৩২) ওরফে সুভাস ওরফে জাহিদ বৃহস্পতিবার বিকালে জেলার জ্যেষ্ঠ বিচারিক হাকিম মো. ইকবাল মাহমুদের কাছে জবানবন্দি দেন।

“শোলাকিয়ায় হামলা মওলানা মাসঊদকে হত্যার উদ্দেশে। কিন্তু ঈদগাহের অদূরে আজিমুদ্দিন স্কুলের পাশে তল্লাশি চৌকিতে বাধার মুখে জঙ্গিরা পুলিশের ওপর হামলা চালায়।”

সে সময় পুলিশের দুই সদস্য ও আবির রহমান নামে এক জঙ্গি ঘটনাস্থলেই মারা যায়। জঙ্গিদের সঙ্গে পুলিশের গোলাগুলির সময় জানালা দিয়ে গুলি ঢুকে পাশের বাড়ির এক গৃহবধূর মৃত্যু হয়। এতে আহত হয় আরও আট পুলিশসহ তিন পথচারী।

এর এক সপ্তা আগে ঢাকার গুলশানের হলি আর্টিসান রেস্তোরাঁয় জঙ্গি হামলায় ২২ জনের মৃত্যু হয়।

চলতি বছর ২৬ ফেব্রুয়ারি গ্রেপ্তার করা হয় রাজীব গান্ধীকে।

পরিদর্শক মুর্শেদ বলেন, গত ২৯ মে রাজীব গান্ধীকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তিন দিনের পুলিশ হেফাজতে দেয় আদালত। জিজ্ঞাসাবাদ শেষে তাকে আদালতে নেওয়া হয়।

“রাজীব গান্ধী হলি আর্টিসান ও শোলাকিয়া হামলায় পরিকল্পনা, অস্ত্র সরবরাহ ও টাকার উৎস বিষয়ে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন।”

জবানবন্দি শেষে আদালতের নির্দেশে আবার তাকে কিশোরগঞ্জ কারাগারে পাঠানো হয় বলে জানান পরিদর্শক মুর্শেদ।

গুলশানের হলি আর্টিসানসহ দেশের বিভিন্ন জায়গায় ২৩টি জঙ্গি হামলার ঘটনায় দায়ের করা মামলায় রাজীব গান্ধিকে গেপ্তার দেখানো হয়েছে বলেও তিনি জানান।

শেয়ার করুন


সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ১৯৮৬ - ২০২১ মাসিক পাথেয় (রেজিঃ ডি.এ. ৬৭৫) | patheo24.com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com