১০ই এপ্রিল, ২০২০ ইং , ২৭শে চৈত্র, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ , ১৬ই শাবান, ১৪৪১ হিজরী

সর্ষের ভেতর ভুত; চট্টগ্রামে ১৪ হাজার ইয়াবাসহ ধরা পড়ল সেনাসদস্য

পাথেয় টোয়েন্টিফোর ডটকম : চট্টগ্রাম-কক্সবাজার মহাসড়কের পটিয়ায় একটি প্রাইভেটকার তল্লাশি করে ১৪ হাজার পিস ইয়াবাসহ এক সেনাসদস্যকে আটক করেছে গোয়েন্দা পুলিশ।

শুক্রবার (২১ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে পটিয়া উপজেলার ইন্দ্রপোল এলাকায় তল্লাশি চালিয়ে তাকে আটক করা হয়।

আটক ওই সেনাসদস্যের নাম এস এম ইব্রাহিম হোসেন (৩৩)। সার্জেন্ট পদবির এই সেনাসদস্য ঢাকার মিরপুরের ন্যাশনাল ডিফেন্স কলেজের কমান্ড্যান্টের ব্যক্তিগত সহকারী (পিএ) হিসেবে কর্মরত আছেন। তিনি গোপালগঞ্জ জেলার মুকসুদপুর উপজেলার গোবিন্দরবিল এলাকার ইমান উদ্দিনের ছেলে।

এ বিষয়ে পটিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) বোরহান উদ্দিন বলেন, ‘পুলিশের কাছে তথ্য ছিল কক্সবাজার থেকে ইয়াবার একটি চালান ঢাকা যাবে। তাই পটিয়ার বাইপাস সড়কের ইন্দ্রপোল এলাকায় তল্লাশি চলছিল। এ সময় কক্সবাজার থেকে একটি প্রাইভেটকার চট্টগ্রামের দিকে দ্রুতগতিতে যাওয়ার চেষ্টা করে। পুলিশ কারটিকে থামানোর সংকেত দেয়ার পরও সেটি এগিয়ে যেতে থাকে। গোয়েন্দা পুলিশের একটি টিম ধাওয়া দিয়ে কারটিকে আটকায়। কার থামানোর পর যাত্রীর আসনে বসে থাকা যুবক নিজেকে সেনাবাহিনীর সার্জেন্ট হিসেবে পরিচয় দেন। পরে কার তল্লাশি করে যাত্রীর আসনের নিচ থেকে দুই বান্ডিলে ১৪ হাজার পিস ইয়াবা জব্দ করা হয়।’

জিজ্ঞাসাবাদে ইব্রাহিম হোসেন পুলিশকে জানান, উদ্ধার ইয়াবাগুলো মিরপুর-১ নম্বর এলাকায় কাজল নামে এক ব্যক্তির কাছে পৌঁছে দেয়ার কথা ছিল। সেজন্য শুক্রবার সকালে তিনি ঢাকা থেকে বিমানে কক্সবাজার আসেন। একই সঙ্গে সড়কপথে কক্সবাজার পৌঁছায় তার প্রাইভেটকারটিও।

তিনি আরও জানান, আজ দুপুরে কক্সবাজার থেকে ইয়াবা সংগ্রহ করে ঢাকার উদ্দেশে রওনা হন। দুই মাস আগে একইভাবে তিনি ইয়াবার আরও একটি চালান কক্সবাজার থেকে ঢাকায় নিয়ে যান।

নিউজটি শেয়ার করুন

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার সম্পূর্ণ বেআইনি এবং শাস্তিযোগ্য অপরাধ
Design & Developed BY ThemesBazar.Com