১৩ই জুন, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ , ৩০শে জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ , ২রা জিলকদ, ১৪৪২ হিজরি

সিপিএ তরুণদের প্রতিনিধিত্ব করে : স্পিকার

নিজস্ব প্রতিবেদক ● বাংলাদেশ জাতীয় সংসদের স্পিকার ও সিপিএ নির্বাহী কমিটির চেয়ারপার্সন ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী বলেছেন, কমনওয়েলথ পার্লামেন্টারি এসোসিয়েশন (সিপিএ) বিশ্বের ২ দশমিক ৪ বিলিয়ন জনগণের প্রতিনিধিত্ব করছে। সিপিএ কমনওয়েলথভুক্ত দেশসমূহের সংসদ সদস্যদের একটি প্লাটফরম , যা তরুণদের প্রতিনিধিত্ব করে থাকে।

তিনি মঙ্গলবার অষ্ট্রেলিয়ার ডারউইনে নর্দাণ টেরিটরি লেজিসলেটিভ এসেম্বলি চেম্বারে কমনওয়েলথ পার্লামেন্টারি এসোসিয়েশন (সিপিএ) এর কার্যনির্বাহী কমিটির মধ্যবার্ষিকী সভার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বক্তৃতাকালে একথা বলেন।

ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী বলেন, তরুণ সমাজ উন্নয়নের অবিচ্ছেদ্য অংশ। তাদের মধ্যে গণতান্ত্রিক চিন্তা চেতনার প্রসার ঘটাতে সিপিএভুক্ত পার্লামেন্টসমূহকে একসাথে কাজ করতে হবে। তিনি গণতান্ত্রিক ব্যবস্থার উন্নয়নে তরুণ সমাজকে সম্পৃক্ত করার মাধ্যমে এই ব্যবস্থার উন্নয়নে সক্রিয় ভূমিকা পালনের আহ্বান জানান।

নর্দাণ টেরিটরি লেজিসলেটিভ এসেম্বলি চেম্বারে কমনওয়েলথ পার্লামেন্টারি এসোসিয়েশন (সিপিএ) এর কার্যনির্বাহী কমিটির মধ্যবার্ষিকী সভা আহবানের সুযোগকে একটি অনন্য মর্যাদা উল্লেখ করে ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী বলেন, সিপিএভুক্ত প্রতিটি দেশে রাজনৈতিক প্রতিনিধিত্বের ক্ষেত্রে তরুণ সমাজের প্রতিনিধিদের সক্রিয় অংশগ্রহণ নিশ্চিত করতে হবে এবং প্রতিটি উন্নয়ন নীতিমালা প্রণয়নের ক্ষেত্রে তরুণদের প্রাধান্য দিতে হবে।

এসময় নর্দাণ টেরিটরি লেজিসলেটিভ এসেম্বলি চেম্বারের স্পিকার কেজিয়া পুরিক, ডেপুটি স্পিকার এবং সংসদ সদস্যবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী ২৫ থেকে ২৮ এপ্রিল পর্যন্ত ৪ দিনব্যাপী অষ্ট্রেলিয়ার ডারউইনে নর্দাণ টেরিটরিতে কমনওয়েলথ পার্লামেন্টারি এসোসিয়েশন (সিপিএ) এর কার্যনির্বাহী কমিটির মধ্যবার্ষিকী সভায় অংশগ্রহণ করছেন।

তিনি আগামী ২৮ এপ্রিল ঢাকায় প্রত্যাবর্তন করবেন বলে আশা করা হচ্ছে।

শেয়ার করুন


সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ১৯৮৬ - ২০২১ মাসিক পাথেয় (রেজিঃ ডি.এ. ৬৭৫) | patheo24.com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com