১৩ই জুন, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ , ৩০শে জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ , ২রা জিলকদ, ১৪৪২ হিজরি

৩ স্থলবন্দরের নিরাপত্তা আধুনিকায়ন হচ্ছে

নিজস্ব প্রতিবেদক ● সরকার আঞ্চলিক কানেক্টিভিটির মাধ্যমে ভারতের সঙ্গে বাণিজ্য বৃদ্ধি করতে তিনটি স্থলবন্দরের অবকাঠামো উন্নয়নে নতুন একটি প্রকল্প গ্রহণ করেছে। নতুন তিনটি স্থলবন্দর হচ্ছে- সিলেটের শেওলা, সাতক্ষীরায় ভোমরা এবং খাগড়াছড়ি জেলায় রামগড়। প্রকল্পের অধীন বেনাপোল স্থলবন্দরের নিরাপত্তাব্যবস্থা আধুনিকায়ন করা হবে। পরিকল্পনা মন্ত্রণালয় সূত্র জানায়, ভারতের সঙ্গে ব্যবসা-বাণিজ্য বৃদ্ধি করতে বাংলাদেশ রিজিওনাল কানেক্টিভিটি প্রজেক্ট ১-এর অধীনে প্রয়োজনীয় অবকাঠামো উন্নয়নের মাধ্যমে ইমিগ্রেশন ও কাস্টম সুযোগ-সুবিধা বাড়ানো হবে।

তিনি বলেন, জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের (একনেক) নির্বাহী কমিটি ইতোমধ্যেই ৬৯৩ কোটি টাকার একটি প্রকল্প অনুমোদন করেছে। বাংলাদেশ স্থলবন্দর কর্তৃপক্ষ ২০২১ সালের জুনের মধ্যে একটি প্রকল্প বাস্তবায়ন করবে। উন্নয়ন প্রকল্প প্রফর্মা অনুযায়ী ১৯১৫ সালে সিলেট জেলার বিয়ানিবাজার উপজেলায় শেওলা কাস্টম স্টেশনকে একটি স্থলবন্দর ঘোষণা দেয়া হয়। ভারতের আসাম রাজ্যের করিমগঞ্জ জেলায় সুতারকান্দি স্থলবন্দরটি আমদানী রফতানির জন্য অবকাঠামো উন্নয়ন করা হবে। পাশাপাশি ২০১৩ সালে ভোমরা স্থলবন্দরটির কার্যক্রম শুরু হয়। এজন্য ওপেন ইয়ার্ড, ওয়ারহাউস এবং অন্যান্য অবকাঠামো উন্নয়ন করা হয়েছে। পদ্মা সেতু চালু হবার পর কার্গোর চাপ আরো বৃদ্ধি পাবে। এজন্য বন্দরে অবকাঠামো সুবিধা আরো বাড়ানো হবে। কলকাতার সাথে দূরত্ব কমে যাওয়ায় এই বন্দর দিয়ে যোগাযোগ ও যান চলাচল বৃদ্ধি পাবে। অপরদিকে ভারতের ত্রিপুরা রাজ্যের সাথে বাণিজ্য বৃদ্ধির ক্ষেত্রে খাগড়াছড়ির রামগড় স্থলবন্দরের গুরুত্ব আরও বাড়বে। বন্দরটির উন্নয়নে চট্টগ্রাম বন্দর ব্যবহারের পথ সুগম হবে।

বাংলাদেশের কাছে বেনাপোল স্থলবন্দর অধিক গুরুত্বপূর্ণ হওয়ায় সরকার বেনাপোল ও বুড়িমারি স্থলবন্দর উন্নয়ন সাসেক রোড কানেক্টিভিটি প্রকল্পটি বাস্তবায়ন করছে। তবে বেনাপোলের নিরাপত্তা ব্যবস্থাটি এই প্রকল্পের অন্তর্ভুক্ত নয়। এটি নতুন কোনো প্রকল্পে অন্তর্ভুক্ত করা হবে। বেনাপোল বন্দরের নিরাপত্তাব্যবস্থা জোরদারে আধুনিক নিরাপত্তাব্যবস্থা গ্রহণ এবং সীমানা প্রাচীর নির্মাণ করা হবে। আঞ্চলিক বাণিজ্য পরিচালনায় ভারতের সাথে ৪,০৯৫ কিলোমিটার সীমান্তে এবং মিয়ানমারের সাথে ২৫৬ কিলোমিটার সীমান্তে বাংলাদেশের ২৩টি স্থলবন্দর রয়েছে।

শেয়ার করুন


সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ১৯৮৬ - ২০২১ মাসিক পাথেয় (রেজিঃ ডি.এ. ৬৭৫) | patheo24.com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com