গাজায় গণহত্যা চালাচ্ছে না ইসরায়েল, দাবি বাইডেনের

গাজায় গণহত্যা চালাচ্ছে না ইসরায়েল, দাবি বাইডেনের

পাথেয় টোয়েন্টিফোর ডটকম : ফিলিস্তিনের অবরুদ্ধ গাজা উপত্যকায় ইসরায়েল গণহত্যা চালাচ্ছে না। এমন দাবি করেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। ফিলিস্তিনপন্থি বিক্ষোভকারীদের সমালোচনার মুখে সোমবার (২০ মে) হোয়াইট হাউজের এক অনুষ্ঠানে এমন দাবি করেন তিনি। ব্রিটিশ বার্তা সংস্থা রয়টার্স এই খবর জানিয়েছে।

হোয়াইট হাউজে ইহুদি-আমেরিকানদের একটি অনুষ্ঠানে বাইডেন বলেন, ‘গাজায় গণহত্যা চালাচ্ছে না ইসরায়েল। আমরা এমন অভিযোগ অস্বীকার করি।’

যুক্তরাষ্ট্রে একাধিক অনুষ্ঠানে ফিলিস্তিনপন্থি বিক্ষাভের সম্মুখীন হয়েছেন বাইডেন। ইসরায়েলকে কট্টর সমর্থন দেওয়ায় মার্কিন এই প্রেসিডেন্টকে ‘জেনোসাইড জো’ বা গণহত্যাকারী জো বলে অভিহিত করেছেন তারা।

হোয়াইট হাউজের ওই অনুষ্ঠানে ইসরায়েলকে ৭ অক্টোবরে হওয়া হামলার ভুক্তভোগী হিসেবে উল্লেখ করেছেন বাইডেন। ওইদিন ইসরায়েলি ভূখণ্ডে ফিলিস্তিনি সশস্ত্র গোষ্ঠী হামাসের হামলায় ১ হাজার ২০০ ইসরায়েলি নিহত হন। এসময় আরও কয়েকশ ইসরায়েলিকে জিম্মি করে গাজায় নিয়ে যান সশস্ত্র যোদ্ধারা।

অনুষ্ঠানে ইসরায়েলিদের নিরাপত্তা ও সুরক্ষায় দৃঢ় মার্কিন সমর্থনের কথা ব্যক্ত করেছেন বাইডেন।

তিনি বলেন, ‘হামাস নেতা ইয়াহিয়া সিনওয়ার এবং হামাসের অন্যান্য কসাইদের বের করে আনতে ইসরায়েলের পাশে রয়েছি আমরা। আমরা হামাসের হার দেখতে চাই। এ নিয়ে ইসরায়েলের সঙ্গে আমরা কাজ করছি।’

হামাসের হাতে জিম্মি অসুস্থ, বয়স্ক এবং আহত ইসরায়েলিদের মুক্তির লক্ষ্যে ইসরায়েল ও হামাসের মধ্যকার আলোচনা স্থগিত হয়েছে। তবে তাদের মুক্তির প্রচেষ্টা চালিয়ে যাওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন বাইডেন।

তিনি বলেছিলেন, ‘আমরা তাদের বাড়ি ফিরিয়ে আনব। আমরা তাদের বাড়ি ফিরিয়ে আনবই।’

এসময় গাজায় অবিলম্বে যুদ্ধবিরতির আহ্বানও জানান বাইডেন। এর আগে, রবিবার মোরহাউস কলেজে দেওয়া বক্তৃতার সময়ও যুদ্ধবিরতির আহ্বান জানিয়েছিলেন তিনি।

হোয়াইট হাউজের ওই অনুষ্ঠানে যুদ্ধাপরাধের দায়ে ইসরায়েলি প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু এব্ং তার প্রতিরক্ষামন্ত্রীর বিরুদ্ধে আন্তর্জাতিক অপরাধ আদালত আইসিসির গ্রেফতারি পরোয়ানার বিরোধিতা করেছেন বাইডেন।

সোমবার নেতানিয়াহু এবং ইয়াহিয়া সিনওয়ারসহ আরও আরও দুই হামাস নেতাকে গ্রেফতারের নির্দেশ দেয় আইসিসি।

সাম্প্রতিক মাসগুলোতে গাজা ইস্যু নিয়ে নিজ দলের সহকর্মীদের কাছ থেকে ক্রমবর্ধমান রাজনৈতিক চাপের মুখে রয়েছেন বাইডেন।

গাজার স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের মতে, ইসরায়েলের হামলায় সেখানে নিহত ফিলিস্তিনির সংখ্যা বেড়ে ৩৫ হাজার ছাড়িয়েছে। ইসরায়েলি অবরোধের কারণে সেখানে মানবিক সংকট দেখা দিয়েছে।

Related Articles