আলোচিত বক্তা আবু ত্বহা ৩ দিন ধরে নিখোঁজ

আলোচিত বক্তা আবু ত্বহা ৩ দিন ধরে নিখোঁজ

পাথেয় টোয়েন্টিফোর ডটকম : আলোচিত ইসলামী বক্তা আবু ত্বহা মুহাম্মদ আদনান বৃহস্পতিবার (১০ জুন) দিবাগত রাত থেকে নিখোঁজ রয়েছেন বলে অভিযোগ করেছে তার পরিবার। ওই দিন তিনি রংপুর থেকে ঢাকায় আসছিলেন।

আবু ত্বহা মুহাম্মদ আদনানের নিখোঁজ হওয়ার তথ্য জানিয়ে দারুসসালাম ও মিরপুর থানায় গেলে কোনো থানাই সাধারণ ডায়েরি বা মামলা গ্রহণ করেনি বলেও অভিযোগ করছেন তার পরিবার। এ নিয়ে সর্বশেষ রংপুর সদর থানায় একটি জিডি করা হয়েছে।

তবে পুলিশ বলছে, তিনি ঠিক কোনো জায়গা থেকে নিখোঁজ হয়েছেন তা নিশ্চিত হওয়া যায়নি বলেই মামলা নেয়া হয়নি।

আবু ত্বহা মুহাম্মদ আদনানের স্ত্রী সাবেকুন নাহার গণমাধ্যমকে বলেছেন, আদনান বৃহস্পতিবার (১০ জুন) দুপুরে রংপুর থেকে ঢাকার উদ্দেশে রওনা হন।

তিনি আরো বলেন, ‘রাত ২টা ৩৭ মিনিটে তার (আদনান) সাথে শেষ কথা হয়, তিনি তখন বলেছেন কাছাকাছি চলে আসছেন। তিনি তখন গাবতলী ছিলেন। এরপর রাত ৩টা থেকে তার ফোন বন্ধ পাই, এখনো পর্যন্ত নম্বর বন্ধই পাচ্ছি। নিখোঁজ হওয়ার সময় তার সাথে গাড়িচালকসহ আরো তিনজন সহকর্মী ছিলেন।

ওই তিনজন সহকর্মী ও গাড়িটির কোনো খোঁজ এখন পর্যন্ত পাওয়া যায়নি বলে অভিযোগ করছেন আদনানের পরিবার।

এ ঘটনায় এখনো পর্যন্ত কোনো মামলা দায়ের করা হয়নি।

কারণ জানতে চাইলে সাবেকুন নাহার পাল্টা প্রশ্ন করেন, কোথায় মামলা করবো, কার কাছে অভিযোগ করবো? মামলা করবো কী, কেউ তো জিডিই নিতে রাজী হচ্ছে না।’

তিনি বলেছেন, স্বামীর নিখোঁজ হওয়ার বিষয় নিয়ে শুক্রবার (১১ জুন) বিকেলেই পুলিশের শরণাপন্ন হন তারা।

কিন্তু রোববার (১৩ জুন) বিকেলে এই রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত গাবতলী সংলগ্ন দারুসসালাম থানা কিংবা মিরপুর থানা কেউই মামলা গ্রহণ করেনি।

সাবেকুন নাহার অভিযোগ করেন, ‘থানায় ঘুরে ঘুরে ক্লান্ত হয়ে যাচ্ছি। কোনো থানাই দায়িত্ব নিচ্ছে না, এক থানা আরেক থানাকে দেখিয়ে দিচ্ছে।’ তবে রোববার সকালে রংপুর সদর থানায় এ নিয়ে একটি জিডি করা হয়েছে আদনানের মায়ের পক্ষ থেকে।

৩১ বছর বয়সী আবু ত্বহা মুহাম্মদ আদনানকে ফেসবুক ও ইউটিউবে অনেকেই অনুসরণ করেন। এই মুহূর্তে আদনানের নিখোঁজ হওয়ার ঘটনা নিয়ে এবং তার সন্ধান চেয়ে সামাজিক মাধ্যমে হ্যাশট্যাগ দিয়ে প্রচারণা চালানো হচ্ছে।

তবে বিভিন্ন সময়ে দেয়া আবু ত্বহা মুহাম্মদ আদনানের কিছু বক্তব্য দেশের ধর্মীয় অঙ্গনে সমালোচনার জন্ম দিয়েছে। বিশেষত দাজ্জাল ও ইমাম মাহদীকে নিয়ে তার বিভিন্ন বিভ্রান্তিকর বক্তব্য সম্পর্কে ইতোপূর্বে আলেমগণ দেশের ধর্মপ্রাণ মুসলমানদের সতর্ক করেছেন।

সূত্র: বিবিসি

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *