২৬শে জুন, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ , ১২ই আষাঢ়, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ , ২৫শে জিলকদ, ১৪৪৩ হিজরি

ইউক্রেনকে অত্যাধুনিক রকেট ব্যবস্থা পাঠাবে যুক্তরাষ্ট্র

পাথেয় টোয়েন্টিফোর ডটকম : ইউক্রেনকে আরও অত্যাধুনিক রকেট ব্যবস্থা পাঠাতে যাচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র। ডনবাস অঞ্চলে রুশ সেনাদের বিরুদ্ধে লড়াইয়ের জন্য বিভিন্ন ধরনের আধুনিক অস্ত্র সহায়তা চেয়ে আসছেন ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি। বাইডেন প্রশাসন জানিয়েছে, জেলেনস্কির আবেদনে সাড়া দিয়েই দেশটিতে অল্প সংখ্যক উচ্চ-প্রযুক্তি, মাঝারি-পাল্লার রকেট সিস্টেম এবং আধুনিক অস্ত্র সহায়তা পাঠানো হবে। খবর আল জাজিরার।

৭০ কোটি ডলার মূল্যের নতুন অস্ত্র সহায়তা প্যাকেজের আওতায় ইউক্রেনকে এই আধুনিক রকেট-ব্যবস্থা সরবরাহ করা হবে বলে জানানো হয়েছে। এর মধ্যে থাকছে হেলিকপ্টার, ট্যাংক বিধ্বংসী জ্যাভেলিন ক্ষেপণাস্ত্র, কৌশলগত যানবাহন, খুচরা যন্ত্রাংশ এবং আরও বেশ কিছু অত্যাধুনিক ক্ষেপণাস্ত্র। দুই মার্কিন প্রশাসনিক কর্মকর্তা এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

উন্নত রকেট ব্যবস্থা প্রদানে যুক্তরাষ্ট্রের এই সিদ্ধান্ত রাশিয়ার সঙ্গে যুদ্ধে ভারসাম্য বজায় রাখার চেষ্টায় ইউক্রেনকে সহায়তা করবে বলে আশা প্রকাশ করা হয়েছে। এছাড়া এই নিশ্চয়তা দেওয়া হয়েছে যে, তাদেরকে এমন অস্ত্র সরবরাহ করা হচ্ছে না যা রাশিয়ার অভ্যন্তরে আরও গভীর লক্ষ্যবস্তুতে আঘাত হানতে পারে এবং সংঘাত আরও বাড়াতে পারে।

মঙ্গলবার সন্ধ্যায় নিউইয়র্ক টাইমসে প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে, প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন নিশ্চিত করেছেন যে, তিনি ইউক্রেনীয়দের আরও উন্নত রকেট সিস্টেম এবং যুদ্ধাস্ত্র সরবরাহ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। এগুলো যুদ্ধক্ষেত্রে মূল লক্ষ্যে আরও সুনির্দিষ্টভাবে আঘাত হানার সক্ষমতা এনে দেবে।

এর আগে সোমবার এক বিবৃতিতে বাইডেন বলেন, যুক্তরাষ্ট্র ইউক্রেনে এমন রকেট সিস্টেম পাঠাবে না যা রাশিয়ার অভ্যন্তরে আঘাত হানতে সক্ষম।

যেকোনো অস্ত্র ব্যবস্থা রাশিয়ায় আঘাত হানতে সক্ষম যদি তা সীমান্তের যথেষ্ট কাছাকাছি থাকে। নতুন সহায়তা প্যাকেজের আওতায় মধ্যম-পাল্লার রকেট প্রেরণ করা হবে যা সাধারণত প্রায় ৭০ কিলোমিটার (৪৫ মাইল) দূরে আঘাত হানতে সক্ষম। অর্থাৎ এসব অস্ত্র ইউক্রেনের আত্মরক্ষার জন্য সরবরাহ করা হচ্ছে। রাশিয়ার অভ্যন্তরে হামলার জন্য নয়।

মার্কিন প্রশাসনের শীর্ষ কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, ইউক্রেন তাদের আশ্বস্ত করেছে যে তারা রাশিয়ার ভূখণ্ডে রকেট নিক্ষেপ করবে না। এক কর্মকর্তা জানান, উন্নত রকেট সিস্টেম ইউক্রেনীয় বাহিনীকে দেশটির অভ্যন্তরেই রুশ সেনাদের লক্ষ্যবস্তুতে আরও নির্ভুল ভাবে হামলার সক্ষমতা এনে দেবে।

ইউক্রেন পূর্ব ডনবাস অঞ্চলে এই রকেটগুলো ব্যবহার করবে বলেই প্রত্যাশা। সেখানে এসব অস্ত্রের মাধ্যমে তারা রাশিয়ার হামলা প্রতিহত করবে এবং সেভেরোডোনেতস্কের মতো শহরগুলোতে তীব্র লড়াই চালিয়ে যেতে পারবে।

বাইডেন বলেন, আমরা ইউক্রেনকে তার সীমানার বাইরে আক্রমণ করতে উত্সাহিত করছি না বা তেমন কোনো অস্ত্রও সরবরাহ করছি না। আমরা যুদ্ধ দীর্ঘায়িতও করতে চাই না।

শেয়ার করুন


সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ১৯৮৬ - ২০২২ মাসিক পাথেয় (রেজিঃ ডি.এ. ৬৭৫) | patheo24.com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com