৮ই ফেব্রুয়ারি, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ , ২৫শে মাঘ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ , ১৬ই রজব, ১৪৪৪ হিজরি

‘ইকরায়’ পড়লে স্কুলগামী সন্তানও ধর্মীয় অনুশাসনে থাকে : মাওলানা মানসুরপুরী

  • ইকরা বাংলাদেশ স্কুলের ২০২৩ শিক্ষাবর্ষের উদ্বোধনী দুআ মাহফিল অনুষ্ঠিত

পাথেয় টোয়েন্টিফোর ডটকম : রাজধানী ঢাকার রামপুরায় অবস্থিত ইকরা বাংলাদেশ স্কুলের প্রধান শাখার ২০২৩ শিক্ষাবর্ষের উদ্বোধনী দুআ মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে।

মঙ্গলবার (৩ জানুয়ারি) বেলা ১২টায় ইকরা বাংলাদেশ স্কুল অডিটোরিয়ামে দুআ পরিচালনা করেন ভারতের প্রাচীন দ্বীনি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান ‘আমরুহা মাদরাসার’ সদরুল মুদাররিসীন, আওলাদে রাসূল আল্লামা কারী আফফান মনসুরপুরী।

অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন ইকরা বাংলাদেশ স্কুলের প্রিন্সিপাল ও বাংলাদেশ জমিয়তুল উলামা ঢাকা মহানগরীর নির্বাহী সভাপতি মাওলানা সদরুদ্দিন মাকনুন।

ফিদায়ে মিল্লাত হযরত সায়্যিদ আসআদ মাদানী (রহ.)-এর স্মৃতিচারণ করে আল্লামা আফফান মানসুরপুরী বলেন, ‘হযরত আসআদ মাদানী (রহ.) তাঁর সময়ে মাদরাসা প্রতিষ্ঠার পাশাপাশি দ্বীনি স্কুল প্রতিষ্ঠায় গুরুত্ব দিতেন। তাঁর প্রচেষ্ঠায় সেই সময় ইউরোপ-আমেরিকা এবং উপমহাদেশে প্রচুর ইসলামিক স্কুল প্রতিষ্ঠিত হয়। ইকরা বাংলাদেশ স্কুল সেই ধারারই একটি স্কুল; বাংলাদেশ যার প্রতিষ্ঠা করেছেন শাইখুল হাদীস আল্লামা ফরীদ উদ্দীন মাসঊদ (দা.বা.)।’

তিনি বলেন, ‘সাধারণত স্কুলে পড়ালেখা করলে ধর্মীয় ও নৈতিক শিক্ষার অভাবে অনেক শিক্ষার্থী নানা ধরণের অনৈতিক কাজে জড়িয়ে পড়ে। কিন্তু ইকরার মতো স্কুলে পড়ালেখা করলে তারা জেনারেল শিক্ষার পাশাপাশি পবিত্র কুরআন শরীফ সহীহ-শুদ্ধভাবে পড়তে শেখে এবং ইসলামের মৌলিক বিষয়াবলীর শিক্ষা পেয়ে থাকে। এতে করে বাচ্চারা ধর্মীয় অনুশাসনে বড় হয়, তাই তাদের বিপথগামী হওয়ার সম্ভবনা খুব কম থাকে।’

‘ইকরা বাংলাদেশ স্কুল’-এর মতো একটি ইসলামিক স্কুলে সন্তানদের ভর্তি করায় অভিভাবকদের ধন্যবাদ জানিয়ে শিক্ষার্থীদের সুন্দর, সফল ও উজ্জ্বল ভবিষৎ কামানা করেন আল্লামা কারী আফফান মনসুরপুরী।

অনুষ্ঠানটিতে আরও উপস্থিত ছিলেন খলিফায়ে ফিদায়ে মিল্লাত মুফতি রশিদ আহমদ, ইকরা বাংলাদেশ স্কুল প্রধান শাখার পরিচালক জনাব মঈনুল ইসলাম, জামিআ ইকরা বাংলাদেশের সিনিয়র মুহাদ্দিস মুফতি ফয়জুল্লাহ আমান কাসেমী, জামিআ ইকরা বাংলাদেশ সিনিয়র শিক্ষক মাওলানা শফিকুল ইসলাম, আত তুরাস একাডেমীর পরিচালক মুফতি আব্দুস সালাম-সহ ইকরা বাংলাদেশ স্কুলের শিক্ষক, শিক্ষার্থী ও অভিভাবকবৃন্দ।

শেয়ার করুন


সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ১৯৮৬ - ২০২২ মাসিক পাথেয় (রেজিঃ ডি.এ. ৬৭৫) | patheo24.com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com