২৪শে জুলাই, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ , ৯ই শ্রাবণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ , ১৩ই জিলহজ, ১৪৪২ হিজরি

ইজতেমায় তাবলীগ জামায়াতকে প্রশাসনের ১০ শর্ত

পাথেয় রিপোর্ট : এবারের ৪ দিনব্যাপী বিশ্ব ইজতেমা সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন করতে তাবলিগ জামাতের দুই গ্রুপের মুরব্বিদের ১০টি শর্ত বেঁধে দিয়েছে প্রশাসন। এর মধ্যে প্রথম গ্রুপকে আখেরি মোনাজাতের ৬ ঘণ্টার মধ্যে মাঠ ছাড়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

আগামী ১৫ ফেব্রুয়ারি বাদ ফজর আম বয়ানের মধ্য দিয়ে শুরু হবে ৫৪তম বিশ্ব ইজতেমার আনুষ্ঠানিকতা। শান্তিপূর্ণ পরিবেশে ইজতেমা শেষ করতে ইজতেমা ময়দান ও এর আশপাশ এলাকায় মোতায়েন থাকবে আইনশৃঙ্খলা রক্ষা বাহিনীর ১০ হাজার সদস্য।

১৫ ফেব্রুয়ারি কাকরাইল মসজিদের খতিব মাওলানা জোবায়েরের অনুসারীরা ইজতেমা শুরু করে ১৬ ফেব্রুয়ারি শনিবার আখেরি মোনাজাত করে ইজতেমা মাঠ ত্যাগ করবেন। এই মোনাজাতের ৬ ঘণ্টার মধ্যে তাদের মাঠ ছাড়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

পরে দিল্লী মারকাযের মুরব্বি মাওয়ালানা সা’দ অনুসারীরা ১৭ ফেব্রুয়ারি ফজরের নামাজের পর ইজতেমা মাঠে প্রবেশ করবেন এবং ১৮ ফেব্রুয়ারি আখেরি মোনাজাতের মাধ্যমে শেষ হবে এবারের বিশ্ব ইজতেমা। এছাড়াও মাঠ ছাড়ার সময় প্রশাসনকে বুঝিয়ে দেয়াসহ, মাঠের যাবতীয় সরঞ্জামাদির দায়িত্ব প্রশাসনের হাতেই থাকছে।

জেলা প্রশাসক ড. দেওয়ান মুহাম্মদ হুমায়ূন কবীর বলেন, অন্যান্য বছরের তুলনায় এবারের ইজতেমাকে ঘিরে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী ও প্রশাসনের পক্ষে থেকে নেয়া হয়েছে বাড়তি সতর্কতা। প্রায় ৫০০ সিসি ক্যামেরার পাশাপাশি মাঠের চারপাশে থাকছে ১৭টি ওয়াচ টাওয়ার।

তিনি আরও বলেন, ‘আমরা ১২৩টি ট্রেনে বিশেষ ব্যবস্থা করেছি। বিআরটিসির জন্য ৪০০ বাসের ব্যবস্থা করেছি। আশা করা যায়, সব রকমের সমস্যা আমরা মোকাবেলা করতে পারবো।’

তিনি আরো বলেন, ‘আমরা ১২৩টি ট্রেনে বিশেষ ব্যবস্থা করেছি। বিআরটিসির জন্য ৪০০ বাসের ব্যবস্থা করেছি। সিসি ক্যামেরা ৫০ এর জায়গায় ৩০০ করা হয়েছে। আশা করা যায়, সব রকমের সমস্যা আমরা মোকাবেলা করতে পারবো।’ আগামী ১৮ ফেব্রুয়ারি দ্বিতীয় আখেরি মোনাজাতের মধ্য দিয়ে শেষ হবে এবারের বিশ্ব ইজতেমার।

শেয়ার করুন


সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ১৯৮৬ - ২০২১ মাসিক পাথেয় (রেজিঃ ডি.এ. ৬৭৫) | patheo24.com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com