২৫শে অক্টোবর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ , ৯ই কার্তিক, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ , ১৭ই রবিউল আউয়াল, ১৪৪৩ হিজরি

ওমরার আবেদন শুরু, যেসব দেশ থেকে সৌদি যাওয়ায় বিধি-নিষেধ

পাথেয় টোয়েন্টিফোর ডটকম : দীর্ঘ দেড় বছর পর আজ থেকে বিদেশিদের ওমরার আবেদন শুরু হয়েছে। করোনা সংক্রমণ রোধে শুধুমাত্র স্বীকৃত টিকার উভয় ডোজ নেওয়া মুসল্লিরাই ওমরাহ পালনে আবেদন করতে পারবেন।

এদিকে করোনা সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ায় ভারত ও পাকিস্তানসহ বিশ্বের অনেক দেশের ওপর সৌদি যাতায়াতে নিষেধাজ্ঞা রয়েছে। দেশগুলোর মধ্যে ভারত-পাকিস্তানসহ বিশ্বের ১৩টির বেশি দেশ রয়েছে। সেসব দেশ থেকে সরাসরি সৌদি যাওয়া যাবে না।

সৌদি গেজেটের প্রতিবেদন থেকে জানা যায়, স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণ করে বিশ্বের বিভিন্ন দেশের ওমরাহযাত্রীরা আবেদনের মাধ্যমে ওমরাহ পালন, নামাজ আদায় ও জিয়ারতের সুযোগ পাবেন। ওমরাহ পালনে আগ্রহীদের সৌদির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় স্বীকৃত করোনা মহামারি সুরক্ষায় টিকা গ্রহণের সার্টিফিকেট দেখাতে হবে।

খবরে আরো জানা যায়, পবিত্র মসজিদুল হারামে প্রতিদিন ৬০ হাজারের বেশি মুসল্লির ওমরাহ পালনের ব্যবস্থা করা হয়েছে। ফলে প্রতিমাসে ২০ লাখ মুসল্লি ওমরাহ পালন করবেন। এ সংখ্যা ধীরে ধীরে আরো বাড়ানো হবে বলে জানা যায়।

এদিকে করোনা সংক্রমণের হার বেড়ে যাওয়ায় বিশ্বের অনেক দেশে থেকে যাতায়াত বন্ধ রেখেছে সৌদি। দেশগুলো হলো : ভারত, পাকিস্তান, ইন্দোনেশিয়া, মিসর, তুরস্ক, আর্জেন্টিনা, ব্রাজিল, দক্ষিণ আফ্রিকা, আরব আমিরাত, ইথিওপিয়া, ভিয়েতনাম, আফগানিস্তান ও লেবানন।

এ ছাড়াও যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য, ফ্রান্স, ইতালি, ইরান, সুইডেন, আয়ারল্যান্ড, পর্তুগাল ও জার্মানি থেকে সৌদি যাতায়াতে নিষেধাজ্ঞা রয়েছে বলে জানা যায়। এসব দেশ ছাড়া অন্যান্য দেশ থেকে সরাসরি ফ্লাইটে সৌদি আরব যাওয়া যাবে। ওই ৯ দেশ থেকে যাত্রীদের তৃতীয় কোনো দেশে ১৪ দিন বাধ্যতামূলক কোয়ারেন্টিন পালন শেষে সৌদিতে ঢুকতে হবে।

করোনা সংক্রমণ রোধে দীর্ঘ ১৮ মাস বিদেশীদের জন্য হজ ও ওমরাহ পালনে সৌদি আসা বন্ধ ছিল। এ সময় শুধুমাত্র সৌদিতে অবস্থানরত দেশটির নাগরিক ও সেখানে বসবাসরত মুসল্লিরা হজ, ওমরাহ পালন এবং মসজিদুল হারাম ও মসজিদে নববিতে নামাজ আদায় ও মদিনায় গিয়ে মহানবী (সা.)-এর রওজা শরিফ জিয়ারতের সুযোগ পান।

সৌদির হজ ও ওমরাহ বিষয়ক জাতীয় কমিটির সদস্য হানি আলি আল আমিরি জানান, ওমরাহ বিষয়ক পাঁচ শতাধিক কম্পানি ও ছয় হাজারের বেশি বিদেশি কম্পানি আগ্রহীদের আবেদন গ্রহণে কাজ করছে। এ ছাড়াও ৩০টির বেশি অনলাইন প্লাটফর্মের মাধ্যমে ওমরার ফি আদায় ও প্যাকেজ বুকিং দেওয়া যাবে।

করোনা সংক্রমণ রোধে ২০২০ সালের মার্চ থেকে সৌদির বাইরের দেশের নাগরিকরা ওমরাহ পালন করতে পারেননি। এরপর অক্টোবর মাস থেকে কেবল সৌদিতে অবস্থানরত সীমিত সংখ্যক মুসল্লি স্বাস্থ্যবিধি মেনে ওমরাহ পালন করেন এবং মক্কা মদিনার পবিত্র দুই মসজিদে নামাজ আদায় করেন।

করোনাকালে স্বাস্থ্যবিধি মেনে দুটি হজ অনুষ্ঠিত হয়েছে। ২০২০ সালে সৌদিতে অবস্থানরত মাত্র ১০ হাজার মুসল্লি হজ পালন করেন। এ বছর প্রায় ৬০ হাজার মুসল্লি হজ পালন করেন।

সূত্র : সৌদি গেজেট

শেয়ার করুন


সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ১৯৮৬ - ২০২১ মাসিক পাথেয় (রেজিঃ ডি.এ. ৬৭৫) | patheo24.com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com