২৬শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ , ১১ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ , ১৭ই সফর, ১৪৪৩ হিজরি

কিশোর গ্যাং দমনে আলেমদের কাজ করতে হবে : মাওলানা মাকনুন

পাথেয় টোয়েন্টিফোর ডটকম : কিশোর গ্যাং দমনে আলেমদের কাজ করতে হবে মন্তব্য করে বাংলাদেশ জমিয়তুল উলামা ঢাকা মহানগরীর নির্বাহী সভাপতি ও ইকরা বাংলাদেশের প্রিন্সিপাল মাওলানা সদরুদ্দীন মাকনুন বলেন, বর্তমানে বিপথে চলে যাওয়া কিশোরদের উদ্ধারে আলেম-উলামাদের কাজ করতে হবে। দীর্ঘদিন যাবৎ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকায় সমাজের কিশোররা নানান অপকর্মে লিপ্ত হচ্ছে। এই কিশোরদের রক্ষার্থে আমাদের আলেম-উলামাদেরকেই এগিয়ে আসতে হবে। বাংলাদেশ জমিয়তুল উলামার কর্মীদের কিশোর গ্যাং দমন করার লক্ষ্যে পরিকল্পনা গ্রহণের পরামর্শ দেন তিনি।

প্রত্যেক বাসা-বাড়িতে জিকিরের আমল জারি করার আহ্বান জানিয়ে মাওলানা সদরুদ্দীন মাকনুন বলেন, প্রতিদিন ফজরের পর অথবা মাগরিবের পর পরিবারের সকল সদস্যদের নিয়ে জিকিরের মজলিস করা আমাদের জন্য আবশ্যক, সাংগঠনিকভাবে এই নির্দেশনা জারী করা হয়েছে কিছুকাল পূর্বে। কারণ জিকিরের দ্বারা আমাদের অন্তর পরিস্কার হয়। জিকিরই একমাত্র মাধ্যম, যার দ্বারা নিজেকে পরিশুদ্ধ করা যায়। আর আমি নিজে সংশোধন হলে সমাজ আমার দ্বারা সংশোধিত হয়ে যাবে।

বাংলাদেশ জমিয়তুল উলামার চেয়ারম্যান, শোলাকিয়া ঈদগাহের গ্র্যান্ড ইমাম, শাইখুল ইসলাম আল্লামা ফরীদ উদ্দীন মাসঊদের উপস্থিতিতে রাজধানীর খিলগাঁও, চৌধুরিপাড়ায় বাংলাদেশ জমিয়তুল উলামা ঢাকা মহানগরী আয়োজিত আলোচনা ও পরামর্শ সভায় এসব কথা বলেন তিনি।

শনিবার (২১ আগস্ট) সকাল ১০টা থেকে শুরু হওয়া এই আলোচনা ও পরামর্শ সভার সভাপতিত্ব করেন সংগঠনটির ঢাকা মহানগরীর সভাপতি মাওলানা দেলওয়ার হোসাইন সাইফী, সঞ্চালনা করেন ঢাকা মহানগরীর প্রচার সম্পাদক মুফতি আব্দুস সালাম।

বাংলাদেশ জমিয়তুল উলামার কেন্দ্রীয় মহাসচিব ও জামিআ ইকরা বাংলাদেশের সিনিয়র মুহাদ্দিস মাওলানা আব্দুর রহীম কাসেমী বলেন, আমাদেরকে সংগঠনের চেয়ারম্যান আল্লামা ফরীদ উদ্দীন মাসঊদ (দা.বা.) সাহেবের চিন্তা-চেতনা বুঝতে হবে এবং সেটাই লালন করতে হবে। হজরতের চিন্তা সমাজের সর্বস্তরে ছড়িয়ে দেয়ার লক্ষ্যে কাজ করতে হবে।

খুলনা মাদানীনগর মাদরাসার মুহতামিম ও বাংলাদেশ জমিয়তুল উলামার কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক মাওলানা ইমদাদুল্লাহ কাসেমী বলেন, ‘বাংলাদেশ জমিয়তুল উলামা’ বাংলাদেশে জঙ্গিবাদ নির্মূলে কাজ করেছে এবং সফল হয়েছে। এখন কেবল বাংলাদেশ নয়, সারাবিশ্ব থেকে জঙ্গিবাদ নির্মূলে কাজ করছে, ইনশাআল্লাহ একদিন সফল হবে।

জমিয়তে উলামায়ে হিন্দের কর্মপদ্ধতি আমাদের জানা থাকতে হবে উল্লেখ করে বাংলাদেশ জমিয়তুল উলামার কেন্দ্রীয় সহ-সভাপতি মাওলানা ইব্রাহিম শিলিস্তানি বলেন, আমাদের আদর্শ হলো জমিয়তে উলামায়ে হিন্দ। তাই আমাদের চিন্তা ও কাজ করার ক্ষেত্রে জমিয়তে উলামায়ে হিন্দকে সামনে রাখতে হবে। তাদের কর্মপদ্ধতি অনুযায়ী চলতে হবে, কাজ করতে হবে।

বাংলাদেশ জমিয়তুল উলামার লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য সম্পর্কে আলোচনা করতে গিয়ে বাংলাদেশ জমিয়তুল উলামা ঢাকা মহানগরীর সেক্রেটারি মাওলানা সইফুর রহমান শোয়াইব বলেন, আমাদেরকে নেক হতে হবে এবং এক হতে হবে। নেক ও এক হতে হলে দাওয়াত, তাবলীগ, তাযকিয়া, মুজাহাদা ফী সাবিলিল্লাহের মেহনত করতে হবে। আমরা যদি এক হতে পারি, তাহলে জাগতিক শান্তি লাভ করবো, নেক হতে পারলে আখিরাতের শান্তিও লাভ করতে পারবো ইনশাআল্লাহ।

আলোচনা ও পরামর্শ সভা অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য রাখেন জামিআ ইকরা বাংলাদেশের রাঈস মাওলানা আরীফ উদ্দীন মারুফ, বাংলাদেশ জমিয়তুল উলামার অভিভাবক পরিষদের সদস্য ও ঢাকা ইউনিভার্সিটির শিক্ষক মাওলানা হুসাইনুল বান্না, মাওলানা শাহাদাত হোসেন ইমদাদী, বাংলাদেশ জমিয়তুল উলামার কেন্দ্রীয় শিক্ষা ও গবেষণা সম্পাদক মুফতি ফয়জুল্লাহ আমান কাসেমী, মাওলানা আব্দুর রহিম গাজীপুরী, মাওলানা মাসরুর আহমেদ, মাওলানা মাহবুবুর রহমান, মাওলানা মিরাজ রহমান, মাওলানা তামীমুল ইসলাম ফরীদী, মুফতি সালমান আহমদ প্রমুখ।

শেয়ার করুন


সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ১৯৮৬ - ২০২১ মাসিক পাথেয় (রেজিঃ ডি.এ. ৬৭৫) | patheo24.com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com