জাতীয় স্লোগানে ‘জয় বঙ্গবন্ধু’ অন্তর্ভুক্ত করতে রিট

জাতীয় স্লোগানে ‘জয় বঙ্গবন্ধু’ অন্তর্ভুক্ত করতে রিট

পাথেয় টোয়েন্টিফোর ডটকম : দেশের জাতীয় স্লোগান “জয় বাংলা”র সঙ্গে “জয় বঙ্গবন্ধু” অন্তর্ভুক্ত করার নির্দেশনা চেয়ে হাইকোর্টে রিট দায়ের করা হয়েছে। রিট আবেদনটি শুনানির জন্য রবিবার (১১ ডিসেম্বর) বিচারপতি কে এম কামরুল কাদের ও বিচারপতি মোহাম্মদ আলীর সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চের কার্যতালিকায় রয়েছে বলে এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে অনলাইন সংবাদমাধ্যম বাংলা ট্রিবিউন।

সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী আব্দুল্লাহ আল হারুন ভূঁইয়া রাসেলসহ ১৩ আইনজীবী রিটটি দায়ের করেন। রিটে মন্ত্রিপরিষদ সচিব, আইন মন্ত্রণালয় সচিবসহ সংশ্লিষ্টদের বিবাদী করা হয়েছে।

এর আগে গত ২০ জুন এ বিষয়ে পদক্ষেপ গ্রহণে সরকারকে আইনি নোটিশ পাঠানো হয়। মন্ত্রিপরিষদ সচিব, আইন মন্ত্রণালয় সচিব ও শিক্ষা মন্ত্রণালয় সচিবকে এ নোটিশ পাঠানো হয়। সুপ্রিম কোর্টের ১১ জন আইনজীবী এ নোটিশ পাঠান।

নোটিশে বলা হয়, “জয় বাংলা”-কে জাতীয় স্লোগান হিসেবে গেজেট প্রকাশ করা হয়েছে। কিন্তু ইতিহাস থেকে দেখলে, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান মহান স্বাধীনতার যুদ্ধের মাধ্যমে জাতির মুক্তির পথ উন্মোচন করেছিলেন। তাই “জয় বঙ্গবন্ধু” শব্দকে বাদ দিয়ে শুধুমাত্র “জয় বাংলা” জাতীয় স্লোগান হতে পারে না।

নোটিশে আরও বলা হয়, মুক্তিযুদ্ধকালে সকলেই “জয় বাংলা”র সঙ্গে “জয় বঙ্গবন্ধু” স্লোগান একসঙ্গে উচ্চারণ করতো। সুতরাং “জয় বাংলা”র সঙ্গে “জয় বঙ্গবন্ধু” হবে অবিচ্ছেদ্য অংশ।

নোটিশ প্রাপ্তির ১০ দিনের মধ্যে “জয় বাংলা”র সঙ্গে “জয় বঙ্গবন্ধু” স্লোগান একত্রিত করে পুনরায় গেজেট প্রকাশ করতে অনুরোধ জানানো হয়। তবে সেই নোটিশের জবাব না পেয়ে প্রতিকার চেয়ে হাইকোর্টে রিট দায়ের করা হয়।

উল্লেখ্য, এ বছরের মার্চে “জয় বাংলা”কে জাতীয় স্লোগান করে প্রজ্ঞাপন জারি করে সরকার। এতে বলা হয়, “জয় বাংলা” বাংলাদেশের জাতীয় স্লোগান হবে। সাংবিধানিক পদধারীরা, দেশে ও দেশের বাইরে কর্মরত সরকারি, স্বায়ত্তশাসিত ও সংবিধিবদ্ধ সংস্থার কর্মকর্তা-কর্মচারীরা সব জাতীয় দিবস উদযাপন এবং অন্যান্য রাষ্ট্রীয় ও সরকারি অনুষ্ঠানে বক্তব্যের শেষে “জয় বাংলা” স্লোগান উচ্চারণ করবেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *