২৭শে নভেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ , ১২ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ , ১লা জমাদিউল আউয়াল, ১৪৪৪ হিজরি

জোড়া বিস্ফোরণে কাঁপছে জেরুজালেম

পাথেয় টোয়েন্টিফোর ডটকম : ইসরায়েল অধিকৃত জেরুজালেমের প্রবেশপথের কাছে দুটি বাসস্ট্যান্ডে আজ বুধবার দুটি বিস্ফোরণ ঘটেছে। এ ঘটনায় অন্তত একজন নিহত এবং ১৮ জন আহত হয়েছেন। ইসরায়েলি পুলিশ বিস্ফোরণগুলোকে সন্ত্রাসী বোমা হামলা উল্লেখ করে দাবি করছে, সন্দেহভাজন ফিলিস্তিনিরাই এ হামলা চালিয়েছে। খবর হিন্দুস্তানটাইমস ও টাইমস অব ইসরায়েল।

খবরে বলা হয়, সকাল ৭টার কিছু পরে গিভাত শৌল এলাকায় জেরুজালেমের প্রধান প্রবেশদ্বারের কাছের একটি বাসস্ট্যান্ডে প্রথম বিস্ফোরণটি ঘটে। এতে বাস স্টপে অপেক্ষমান ১২ জন আহত হন, যাদের মধ্যে চারজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক ছিল। পরে তাদের একজন শায়ার জেডেক মেডিকেল সেন্টারে মারা যান। শহরের উত্তরে অবস্থিত রামো এলাকার একটি বাসস্ট্যান্ডে দ্বিতীয় বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটে। এতে সাতজন আহত হয়েছেন, যাদের চারজনের অবস্থা গুরুতর।

প্রথম বিস্ফোরণে স্টেশনের একটি বাস ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। পুলিশ সন্দেহ করছে, ব্যাগে রাখা রিমোট কন্ট্রোল ডিভাইস দিয়ে এ বিস্ফোরণ ঘটানো হয়। হতাহতের সংখ্যা বাড়ানোর জন্য ডিভাইসগুলো পেরেক দিয়ে প্যাক করা হয়েছিল।

ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে ইসরায়েলের পুলিশ কমিশনার কোবি শাবতাই বলেন, হামলাকারী দুইজন হতে পারে। এ ধরনের হামলা আমরা অনেকদিন ধরে দেখিনি। তিনি জনসাধারণকে সন্দেহজনক বস্তু বা প্যাকেটের বিষয়ে সতর্ক হওয়ার আহ্বান জানান।

তাৎক্ষণিকভাবে জেরুজালেমের কেউ এই জোড়া হামলার দায় স্বীকার করেনি। তবে ফিলিস্তিনের প্রতিরোধ আন্দোলন হামাস এ হামলাকে স্বাগত জানিয়েছে। হামাসের মুখপাত্র মোহাম্মদ হামাদা এক বিবৃতিতে বলেছেন, জোড়া হামলা দখলদারদের কাছে এই বার্তা পৌঁছে দিয়েছে যে, আমাদের জনগণ তাদের নিজেদের ভূমিতে দৃঢ় থাকবে এবং দখলদারদের প্রতিরোধ করতে থাকবে।

বিবৃতিতে আরও বলা হয়, আগামী দিনগুলো শত্রুদের জন্য আরও তীব্র ও কঠিন হবে। কারণ এমন একটি সেল পুরো ফিলিস্তিন জুড়ে ছড়িয়ে আছে, যারা এ ধরনের হামলা চালাতে প্রস্তুত।

হামলার পর প্রতিরক্ষা মন্ত্রী বেনি গ্যান্টজ শিন বেট নিরাপত্তা সংস্থার প্রধান, উপ সেনাপ্রধান এবং অন্যান্য ঊর্ধ্বতন সামরিক ও পুলিশ কর্মকর্তাদের সাথে বিষয়টি নিয়ে আলোচনা করেছেন। পরে প্রধানমন্ত্রীর সাথেও বিষয়টি নিয়ে বৈঠক করা হবে।

জেরুজালেমে ইসরায়েলিদের লক্ষ্য করে সাম্প্রতিক সময়ে হামলার পরিমাণ অনেক বেড়েছে। কয়েক সপ্তাহের মধ্যে ফিলিস্তিনি হামলায় অন্তত পাঁচ ইসরায়েলি নিহত হয়েছেন। ফিলিস্তিনে ইসরায়েলি বাহিনীর হত্যা, নির্যাতন, গ্রেপ্তার বেড়ে যাওয়ার পরিপ্রেক্ষিতে ইসরায়েলিদের লক্ষ্য করে এ ধরনের হামলা বেড়ে গেছে বলে দাবি করে গাজা উপত্যকার লোকজন।

শেয়ার করুন


সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ১৯৮৬ - ২০২২ মাসিক পাথেয় (রেজিঃ ডি.এ. ৬৭৫) | patheo24.com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com