৮ই অক্টোবর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ , ২৩শে আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ , ১১ই রবিউল আউয়াল, ১৪৪৪ হিজরি

ডলারের আন্তঃব্যাংক দাম এখন ১০৬ টাকা ১৫ পয়সা

পাথেয় টোয়েন্টিফোর ডটকম : বাংলাদেশ ব্যাংক ডলারের আন্তঃব্যাংক লেনদেনের মূল্যে পরিবর্তন এনেছে। মঙ্গলবার (১৩ সেপ্টেম্বর) ব্যাংকগুলো প্রতি ডলার সর্বোচ্চ ১০৬ টাকা ১৫ পয়সা দরে বিক্রি করে। যেখানে প্রতি ডলারের ক্রয়মূল্য ধরা হয়েছে ১০১ টাকা ৬৭ পয়সা। এটি কেন্দ্রীয় ব্যাংকের বেঁধে দেওয়া দর নয়। ব্যাংকগুলো নিজেদের মধ্যে নতুন এ দরে ডলার কেনাবেচা করেছে।

এদিন বাংলাদেশ ব্যাংকের ওয়েবসাইটে ডলারের নতুন আন্তঃব্যাংক রেট আপলোড করা হয়েছে। সেখানে বলা হয়েছে, বাজারে ডলার ও টাকার জোগান-চাহিদার ভিত্তিতে বাংলাদেশ ফরেন এক্সচেঞ্জ ডিলার অ্যাসোসিয়েশনের (বাফেদা) বিবেচনায় ডলারের এ দাম নির্ধারণ করা হয়েছে। এখন থেকে বাংলাদেশ ব্যাংক দৈনন্দিন ভিত্তিতে ডলার কেনাবেচা করবে না। তবে বাজার বিবেচনায় প্রয়োজন হলে ডলার কেনাবেচা করবে বাংলাদেশ ব্যাংক।

গত রোববার কেন্দ্রীয় ব্যাংকের ওয়েবসাইটে ডলারের বিক্রয়মূল্য ৯৫ টাকা দেখানো হয়েছিল। গতকাল সোমবার ডলারের দাম ১ টাকা বাড়িয়ে ৯৬ টাকা করা হয়। একই দরে মঙ্গলবার বৈদেশিক মুদ্রার মজুত বা রিজার্ভ থেকে বাংলাদেশ ব্যাংক সাড়ে ৪ কোটি ডলার বিক্রি করেছে। সোমবার রিজার্ভ কমে দাঁড়িয়েছিল ৩৭ দশমিক ১৩ বিলিয়ন ডলারে।

মঙ্গলবার বাংলাদেশ ব্যাংকের ওয়েবসাইটে ডলারের বিক্রয়মূল্য দেখানো হচ্ছে ১০৬ টাকা ১৫ পয়সা এবং ক্রয়মূল্য ১০১ টাকা ৬৭ পয়সা। যদিও গত রোববার কেন্দ্রীয় ব্যাংকের ওয়েবসাইটে ডলারের বিক্রয়মূল্য দেখানো হয়েছিল ৯৫ টাকা।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে বাংলাদেশ ব্যাংকের মুখপাত্র ও নির্বাহী পরিচালক মো. সিরাজুল ইসলাম বলেন, ডলারের দাম গতকাল এক টাকা বৃদ্ধি করে ৯৬ টাকা করা হয়েছিল। একই দামে কেন্দ্রীয় ব্যাংক ৪ কোটি ডলার বিক্রি করেছে।

তিনি বলেন, বাফেদার নির্ধারিত দরে ব্যাংকগুলো নিজেদের মধ্যে ডলার লেনদেন করবে। এ লেনদেনই আন্তঃব্যাংক লেনদেন হিসেবে বিবেচিত হবে। কেন্দ্রীয় ব্যাংক আগের মতো প্রতিদিন ডলার বিক্রি করবে না। তবে প্রয়োজন হলে ব্যাংকগুলোর কাছে ডলার বিক্রি করবে। কিন্তু আন্তঃব্যাংকের দামে কেন্দ্রীয় ব্যাংক ডলার বিক্রি করবে না।

শেয়ার করুন


সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ১৯৮৬ - ২০২২ মাসিক পাথেয় (রেজিঃ ডি.এ. ৬৭৫) | patheo24.com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com