১১ই আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ , ২৭শে শ্রাবণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ , ১২ই মহর্‌রম, ১৪৪৪ হিজরি

ডায়াবেটিস না হলেও যে ৫ কারণে রক্তে শর্করা বাড়তে পারে

ডায়াবেটিস পরীক্ষা, ছবি সংগৃহীত

পাথেয় টোয়েন্টিফোর ডটকম : রক্তে শর্করার মাত্রা বৃদ্ধি মানেই যে ডায়াবেটিস, তা কিন্তু নয়। বরং ডায়াবেটিসে আক্রান্ত না হলেও বাড়তে পারে রক্তে শর্করার পরিমাণ। চিকিৎসাবিজ্ঞানের ভাষায় এই অবস্থাকে বলা হয় ‘হাইপারগ্লাইসেমিয়া’। খালি পেটে রক্তে শর্করার মাত্রা ১০০ মিলিগ্রামের বেশি হলে তাকে হাইপারগ্লাইসেমিয়া বলে। বারবার এ ধরনের সমস্যা হলে দেখা দিতে পারে হৃদরোগ ও স্টোকের ভয়। কিন্তু এর কারণ কী? চলুন জেনে নেওয়া যাক, ডায়াবেটিস না হলেও কোন ৫ কারণে রক্তের শর্করা বাড়তে পারে-

পলিসিস্টিক ওভারিয়ান সিনড্রোম

পলিসিস্টিক ওভারিয়ান সিনড্রোম আছে যেসব নারীর, তাদের শরীরে হরমোনের ভারসাম্যে সমস্যা দেখা দেয়। এর ফলে বেড়ে যেতে পারে টেস্টোস্টেরন, ইনস্যুলিন ও সাইটোকাইন ক্ষরণ। যে কারণে রক্তে শর্করার মাত্রাও বেড়ে যেতে পারে। তাই শরীরে হঠাৎ শর্করার মাত্রা বেড়ে গেলে তার নেপথ্যের কারণ জেনে নিন।

মানসিক উদ্বেগ

বর্তমান সময়ে মানসিক উদ্বেগ যেন আমাদের নিত্যসঙ্গী। এই মানসিক চাপ ও উদ্বেগ শরীরের কর্টিসোল ও অ্যাড্রিনালিন হরমোন ক্ষরণের মাত্রা বাড়িয়ে দিতে পারে। এই হরমোনগুলোর ভারসাম্য নষ্ট হলেও বেড়ে যেতে পারে রক্তে শর্করার পরিমাণ। তাই যতটা সম্ভব দুশ্চিন্তামুক্ত ও হাসিখুশি থাকার চেষ্টা করুন।

সংক্রমণের কারণে

চারপাশে ক্ষতিকর ভাইরাসের তো অভাব নেই। তাই নানা ধরনের সংক্রমণের ভয়ও উড়িয়ে দেওয়া যায় না। বিভিন্ন ধরনের সংক্রমণ আমাদের শরীরে কর্টিসোলের ক্ষরণ বৃদ্ধি করে। এই হরমোন কমিয়ে দেয় ইনস্যুলিনের রক্ত থেকে অতিরিক্ত শর্করা হ্রাস করার ক্ষমতা। যে কারণে হঠাৎই বেড়ে যেতে পারে রক্তের শর্করার মাত্রা।

ওষুধের কারণে

ডোপামাইন, নর-এপিনেফ্রিনযুক্ত ওষুধ বা রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা কমাতে ব্যবহৃত ওষুধ তৈরি করতে পারে একাধিক পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া। একই প্রতিক্রিয়া দেখা দিতে পারে কর্টিকোস্টেরয়েড রয়েছে এমন ওষুধের ক্ষেত্রেও। যে কারণে বাড়তে পারে রক্তের শর্করার পরিমাণ।

স্থূলতা

স্থূলতার কারণে নানা ধরনের সমস্যা দেখা দেয়। এই সমস্যা ইনস্যুলিনের কার্যকারিতা কমিয়ে দেয়। সেইসঙ্গে রক্তের গ্লুকোজের পরিমাণ কমাতেও প্রতিবন্ধকতা তৈরি করে। তাই আপনার উচ্চতা অনুযায়ী সঠিক ওজন ধরে রাখার চেষ্টা করুন।

শেয়ার করুন


সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ১৯৮৬ - ২০২২ মাসিক পাথেয় (রেজিঃ ডি.এ. ৬৭৫) | patheo24.com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com