২৭শে অক্টোবর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ , ১১ই কার্তিক, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ , ১৯শে রবিউল আউয়াল, ১৪৪৩ হিজরি

থাইল্যান্ডে পানির নিচে ৭০ হাজারের বেশি বাড়ি-ঘর

পাথেয় টোয়েন্টিফোর ডটকম : থাইল্যান্ডের উত্তর ও কেন্দ্রীয় প্রদেশগুলোতে দেখা দিয়েছে ভয়াবহ বন্যা। পানিতে তলিয়ে গেছে ৭০ হাজারের বেশি বাড়ি-ঘর। এতে প্রাণ গেছে অন্তত ছয়জনের বেশি মানুষের। থাই দুর্যোগ প্রতিরোধ ও প্রশমন বিভাগ জানিয়েছে, মৌসুমি ঝড় ‘দিয়ানমুর’ ফলে ৩০টি প্রদেশে বন্যা দেখা দিয়েছে। এতে সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে কেন্দ্রীয় অঞ্চলগুলো। মঙ্গলবার (২৮ সেপ্টেম্বর) ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম দ্য গার্ডিয়ানের এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

এরই মধ্যে ব্যাংকক থেকে ৪০ মাইল দূরে নদীর বাঁধ রক্ষায় সেনাবাহিনীর সদস্যরা বালুর বস্তা ফেলা শুরু করেছেন। ব্যাংককসহ পুরাতন রাজধানী আয়ুথায়ার প্রত্নতাত্ত্বিক ধ্বংসাবশেষ এবং নিদর্শনগুলো রক্ষায় নেওয়া হয়েছে নানা পদক্ষেপ।

ব্যাংককের মেট্রোপলিটন প্রশাসন জানিয়েছে, চাও ফ্রেয়া নদীর পানির লেভেল পর্যবেক্ষণ করা হচ্ছে এবং পানির পাম্পও প্রস্তুত রাখা হয়েছে। ব্যাংককের গভর্নর অশ্বিন কোয়ানমুয়াং বলেন, পানির স্তর বাড়ার কোনো লক্ষণ থাকলে অথবা হঠাৎ বন্যার আশঙ্কা দেখা দিলে আমরা মানুষকে সতর্ক করবো।

আশা করা হচ্ছে এবার ব্যাংকক ২০১১ সালের ভয়াবহ বন্যার পুনরাবৃত্তি এড়াতে পারবে। মৌসুমি বন্যায় তখন ব্যাংকক শহরের এক-পঞ্চমাংশ পানির নিচে তলিয়ে ছিল। কয়েক দশকের মধ্যে বিধ্বংসী ওই বন্যায় পাঁচ শতাধিক মানুষ মারা যায়।

শেয়ার করুন


সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ১৯৮৬ - ২০২১ মাসিক পাথেয় (রেজিঃ ডি.এ. ৬৭৫) | patheo24.com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com