২৯শে জুন, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ , ১৫ই আষাঢ়, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ , ২৮শে জিলকদ, ১৪৪৩ হিজরি

দেশে বেড়েছে গরু-ছাগলের সংখ্যা

পাথেয় টোয়েন্টিফোর ডটকম : দেশে গরুর সংখ্যা বেড়েছে প্রায় ৪০ লাখ এবং ৬১ লাখের বেশি ছাগল বেড়েছে। ২০২০ সালে করা কৃষিশুমারির প্রাথমিক ফল নিজেদের ওয়েবসাইটে প্রকাশ করেছে বাংলাদেশ পরিসংখ্যান ব্যুরো (বিবিএস)। সেই ফল থেকে এ তথ্য মিলেছে।

বিবিএসের শুমারি অনুযায়ী, দেশে এখন গরুর সংখ্যা দুই কোটি ৪০ লাখ ১৪ হাজার ১৪৪।

২০০৮ সালে এই সংখ্যা ছিল দুই কোটি ৫৭ হাজার ৮৫৩। এক যুগের ব্যবধানে গরুর সংখ্যা বেড়েছে প্রায় ৪০ লাখ। অন্যদিকে দেশে বর্তমানে ছাগলের সংখ্যা এক কোটি ৬২ লাখ ৯৫ হাজার ২০০। এক যুগ আগে ছাগলের সংখ্যা ছিল এক কোটি এক লাখ ৫৯ হাজার ৫০৯।

গরু-ছাগল ছাড়াও বিবিএসের ওই প্রতিবেদনে ভেড়া ও মহিষের হিসাবও দেওয়া হয়েছে। ২০০৮ থেকে ২০২০ সাল পর্যন্ত ভেড়ার সংখ্যা প্রায় তিন গুণ বেড়ে ১৩ লাখ ৪১ হাজার ৬১৯টি হয়েছে। ২০০৮ সালে এই সংখ্যা ছিল চার লাখ ৭৮ হাজার ১৭। অন্যদিকে মহিষের সংখ্যা বেড়েছে প্রায় দুই লাখ। দেশে এখন ছয় লাখ ২৯ হাজার ৬৪০টি মহিষ আছে। ২০০৮ সালে এই সংখ্যা ছিল চার লাখ ৩১ হাজারের মতো।

এক যুগের ব্যবধানে হাঁস-মুরগিসহ বিভিন্ন ধরনের পাখি পালনও ব্যাপকভাবে বেড়েছে। দেশে ১৪ কোটির বেশি দেশি ও ব্রয়লার মুরগি আছে। হাঁস আছে প্রায় সাড়ে পাঁচ কোটি। এক যুগের ব্যবধানে হাঁসের সংখ্যা বেড়ে দ্বিগুণ হয়েছে।

অন্যদিকে মাছ চাষেও ব্যাপক আগ্রহ বেড়েছে। একই সময়ের ব্যবধানে মাছ চাষের জলাশয়ের পরিমাণ দ্বিগুণের বেশি হয়েছে। শুমারির ফল অনুযায়ী, ২০২০ সালে দেশে প্রায় ১১ লাখ একর জলাশয়ে মাছ চাষ হয়েছে। এক যুগ আগে সোয়া পাঁচ লাখ একর জলাশয়ে মাছ চাষ হতো।

শেয়ার করুন


সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ১৯৮৬ - ২০২২ মাসিক পাথেয় (রেজিঃ ডি.এ. ৬৭৫) | patheo24.com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com