৮ই অক্টোবর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ , ২৩শে আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ , ১১ই রবিউল আউয়াল, ১৪৪৪ হিজরি

নজরুলের ইন্তেকালের দিনে

নজরুলের ইন্তেকালের দিনে

মুস্তাফা জামান আব্বাসী : আজকাল ইন্তেকাল শব্দটাও আমরা ভুলে যেতে বসেছি আমাদের মিডিয়ার কল্যাণে। এখন বলা হচ্ছে মহাপ্রয়ান। ইন্তেকাল হচ্ছে আবার ফিরে আসা।

নজরুল আবার ফিরে আসবেন। প্রতিদিন যতদিন আমরা আছি, বাংলাদেশ আছে, বাংলাদেশের পতাকা আছে, ভাংলা ভাষা আছে, অর্থাৎ কেয়ামত পর্যন্ত এর বিস্তার।

এই মুহূর্তে তার তিরোধানে কি ভাবছি। নজরুলকে সম্মান দি’ নি’। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় দেয় নি’। তার কাব্য পড়ান হয় না। তাকে আধুনিক বলা হয় না। স্কুলে কলেজে নজরুল অনুপস্থিত। জন্মদিন মৃত্যুদিনের খবর নেই। তার লিখিত এতগুলো বই সবার কাছে পৌঁছে দেয়ার ব্যবস্থা হয় নি। শুধু নামে মাত্র জাতীয় কবি বলা হচ্ছে। তার গানের প্রচার কম হচ্ছে। এতগুলো টেলিভিশন, রেডিও, তাদের দায়িত্ব পালন করছেন কি? আমার মনে হয় আমাদের নতুন জেনারেশন নজরুলকে চেনার সুযোগ পাচ্ছে না।

আমাদের বিশ্ববিদ্যালয় বিশাল চিত্রশালা করা হয়েছে নজরুল-আব্বাসউদ্দিন। তাদের বিশাল ১২০টি ছবি সংগ্রহ করা হয়েছে। সব আই ইউ বি-তে রক্ষিত। বাংলা এদাডেমী, শিল্পকলা একাডেমী, নজরুল ইনষ্টিটিউট, নজরুল একাডেমী, সংস্কৃতি মন্ত্রণালয়, কোথাও এত ছবি এত সুন্দরভাবে রক্ষিত হয় নি। আমাদের নজরুল-আব্বাসউদ্দিন সেন্টার কাজটি করেছে সাত বছর আগে। এর বর্তমান মূল্য কোটি ছাড়িয়ে গেছে। এটা দেখতে আসা আপনাদের দায়িত্ব, বিশ্ববিদ্যালয়ের নয়।

মু. জা. আ.
১২ই ভাদ্র, ১৪২৬

শেয়ার করুন


সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ১৯৮৬ - ২০২২ মাসিক পাথেয় (রেজিঃ ডি.এ. ৬৭৫) | patheo24.com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com