২৬শে নভেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ , ১১ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ , ৩০শে রবিউস সানি, ১৪৪৪ হিজরি

পাচার হওয়া অর্থ ফেরাতে ৮ দেশের সঙ্গে চুক্তি চায় দুদক

পাথেয় টোয়েন্টিফোর ডটকম : বিভিন্ন দেশে পাচার হওয়া অর্থ ফেরত আনতে আটটি দেশের সঙ্গে চুক্তির উদ্যোগ নিয়েছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। এর অংশ হিসেবে বাংলাদেশ ফাইন্যান্সিয়াল ইন্টেলিজেন্স ইউনিটের (বিএফআইইউ) নেতৃত্বে সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন সংস্থার কর্মকর্তাদের সমন্বয়ে কমিটি গঠন করা হয়েছে।

মঙ্গলবার নিজ কার্যালয়ে এসব বলেন সংস্থাটির সচিব মো. মাহবুব হোসেন।

জানা গেছে, কানাডা, যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য, সিঙ্গাপুর, অস্ট্রেলিয়া, মালয়েশিয়া, সংযুক্ত আরব আমিরাত ও থাইল্যান্ডের সঙ্গে আইনি সহায়তা পেতে চুক্তি করতে যাচ্ছে দুদক। ইতিমধ্যে এসব দেশের সঙ্গে যোগাযোগও করা হয়েছে।

এ প্রসঙ্গে দুদক সচিব মাহবুব হোসেন বলেন, গত বছরের ১২ সেপ্টেম্বর সংশ্লিষ্ট দেশগুলোতে সাক্ষ্য-প্রমাণ সংগ্রহ, রেকর্ডপত্র সংগ্রহ, পাচার করা অর্থ পুনরুদ্ধার কার্যক্রমে পারস্পরিক আইনি সহায়তা চুক্তি (মিউচুয়াল লিগ্যাল অ্যাসিসট্যান্স ট্রিটি) করার জন্য দুদক থেকে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগকে অনুরোধ করা হয়েছে। মন্ত্রিপরিষদ বিভাগে বিএফআইইউ থেকে একটি জবাবসহ অনুরোধপত্র আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগে পাঠানো হয়। গত ১ নভেম্বর এ বিষয়ে একটি সভাও হয়। যেখানে দুদকসহ অন্যান্য দপ্তরের কর্মকর্তারা অংশ নেন।

তিনি বলেন, ওই সভায় চুক্তির খসড়া তৈরি করতে বিএফআইইউয়ের নেতৃত্বে এবং অন্যান্য সংস্থার কর্মকর্তাদের সমন্বয়ে একটি কমিটি গঠন করা হবে। আগামী ৩ সপ্তাহের মধ্যে কমিটি একটি খসড়া চুক্তি আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগে দাখিল করবে। পরবর্তীতে ওয়ার্কিং কমিটি বা ন্যাশনাল কো-অর্ডিনেশন কমিটির সভায় উপস্থাপন করা হবে।

চুুক্তি হলে পাচার করা অর্থ ফেরার প্রক্রিয়া সহজ হবে কিনা এমন প্রশ্নের জবাবে সচিব বলেন, যদি মিউচুয়াল লিগ্যাল অ্যাসিটেন্স ট্রিটির আওতায় ওই দেশগুলো একমত হয়, তাহলে সাক্ষ্য-প্রমাণ ও রেকর্ডপত্র সংগ্রহের প্রক্রিয়া সহজ হবে। তার মাধ্যমে পাচার করা অর্থ ফেরানোর পথ আগের তুলনায় সহজ হবে।

শেয়ার করুন


সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ১৯৮৬ - ২০২২ মাসিক পাথেয় (রেজিঃ ডি.এ. ৬৭৫) | patheo24.com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com