পৃথিবীর আয়ু আর  মাত্র ১০০ বছর!

পৃথিবীর আয়ু আর মাত্র ১০০ বছর!

আন্তর্জাতিক ডেস্ক ●  মানুষের আবাসস্থল পৃথিবীর দিন শেষ হয়ে এসেছে। আর মাত্র ১০০ বছর। তারপর এই পৃথিবী আর মানুষের বসবাসের যোগ্য থাকবে না। এমনটিই বললেন বিশিষ্ট বিজ্ঞানী স্টিফেন হকিং।

তিনি বলেন, মানবসভ্যতাকে বাঁচাতে হলে পৃথিবী ছেড়ে অন্য কোনো গ্রহে আমাদের পাড়ি দিয়ে সেখানে বাসযোগ্য পরিবেশ তৈরি করতে হবে। আর তা করতে হবে আগামী ১০০ বছরের মধ্যেই। ব্রিটিশ পদার্থবিদ স্টিফেন হকিং বলেন, যেভাবে আবহাওয়ার পরিবর্তন হচ্ছে, তাতে আমাদের এই পৃথিবী আর বেশিদিন মানুষের বসবাসের উপযোগি থাকবে না। সম্প্রতি একটি তথ্যচিত্রে হকিং এ কথা বলেন যা বিবিসিতে প্রচারিত হয়।

নতুন এই তথ্যচিত্রে হকিং আরো বলেন, বায়ুম-লে ব্যাপক দূষণ, আবহাওয়ার দ্রুত পরিবর্তন, মহামারী, জনসংখ্যার ক্রমবৃদ্ধি- পৃথিবীকে ধ্বংসের দিকে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছে। তাই মানুষসহ বিশ্বের প্রাণিজগতের অস্তিত্ব টিকিয়ে রাখতে যত দ্রুত সম্ভব নতুন পৃথিবীর সন্ধান করতে হবে। এমনকি সৌরম-ল থাকবে না বলেও দাবি করেছেন তিনি।

প্রসঙ্গত, নাসার বিজ্ঞানীরা ইতোমধ্যে প্রাণের সন্ধানে মঙ্গল গ্রহে অনুসন্ধান শুরু করেছেন। উপগ্রহ থেকে পাঠানো ছবিতে সেখানে একসময় প্রবাহমান নদী থাকার অস্তিত্ব ধরা পড়েছে বলে জানিয়েছে নাসা। এ থেকে তাদের অনুমান, সেখানে এক সময় প্রাণের অস্তিত্ব ছিল।

নাসা জোর গবেষণা চালাচ্ছে এ বিষয়ে। এ ছাড়া ইতোমধ্যে সেখানে বসবাসের পরিকল্পনাও শুরু হয়েছে। হকিং পৃথিবীর অস্তিত্ব সম্পর্কে যে কথা বললেন তাতে অন্যত্র যেতে হবে মানবসভ্যতাকে টিকে থাকতে। তাহলে সেক্ষেত্রে পৃথিবী ছেড়ে কী মঙ্গলেই পা রাখব আমরা? মানুষ সেখানে নতুন ঠিকানা গড়ে নিবে?

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *